২০ অক্টোবর ২০২০

বগুড়ায় ২ ছাত্রীকে যৌন হয়রানি : অভিযুক্ত ২ শিক্ষক বরখাস্ত

অভিযুক্ত দুই শিক্ষক - ছবি : সংগৃহীত

বগুড়া বিয়াম মডেল স্কুল ও কলেজের সাবেক দুই ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগের ঘটনা তদন্তে জেলা প্রশাসন গঠিত কমিটি সত্যতা পাওয়ায় দুই শিক্ষককে স্থায়ীভাবে বরখাস্তের সুপারিশ করেছে।

তদন্ত কমিটির প্রধান বগুড়ার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মাসুম আলী বেগ এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তদন্ত প্রতিবেদন বিয়াম ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালকের কাছে পাঠানো হচ্ছে। এ ব্যাপারে তিনিই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন।

এর আগে অভিযুক্ত দুই শিক্ষক বাংলা বিভাগের প্রভাষক আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ ও ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক আব্দুল মোত্তালিবকে সাময়িক বরখাস্ত করে কলেজ কর্তৃপক্ষ।

যৌন হয়রানির ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটির পক্ষ থেকে এই সুপারিশের ভিত্তিতে স্কুল ও কলেজ পরিচালনা পর্ষদের সভায় দুই শিক্ষককে চাকরিচ্যুতির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত বগুড়া জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে প্রতিষ্ঠান পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও জেলা প্রশাসক জিয়াউল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে গঠিত তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটির প্রধান অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মাসুম আলী বেগ সভায় উপস্থিত ছিলেন।

মাসুম আলী বেগ জানান, তদন্ত কমিটি অভিযোগের সত্যতা পেয়েছে। তদন্ত শেষে কমিটি দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ শাস্তি প্রদানের সুপারিশ করে জেলা প্রশাসকের কাছে প্রতিবেদন জমা দেন।

বৃহস্পতিবার পরিচালনা পর্ষদের সভায় সর্বসম্মতিক্রমে তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন আমলে নিয়ে ওই দুই শিক্ষককে চূড়ান্ত বরখাস্ত বা চাকরিচ্যুত করার লিখিত সুপারিশ বিয়াম ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালকের কাছে পাঠানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এ ব্যাপারে বিয়াম ফাউন্ডেশন বগুড়া আঞ্চলিক কেন্দ্রের পরিচালক ও সরকারের উপসচিব মো: আব্দুর রফিক বলেন, তদন্ত কমিটির সুপারিশ বাস্তবায়ন করবেন ওই ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক।

অভিযুক্ত দুই শিক্ষককে অপসারণের সিদ্ধান্ত হবে উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। এ ধরনের ঘটনা কোনো প্রশ্রয় পাবে না।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি বগুড়া বিয়াম মডেল স্কুল ও কলেজের সাবেক এক ছাত্রী ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক আবদুল মোত্তালিবের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ তোলেন। এতে তিনি গত ২১ আগস্ট রাতে ফেসবুক মেসেঞ্জারে অশ্লীল প্রস্তাব দেয়ার অভিযোগ করেন ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে। পরে শিক্ষক ফোনে হুমকি ও অশ্লীল ছবি বানিয়ে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়া ও বাড়াবাড়ি করলে ক্ষতি হবে বলেও শাসান।

অপরদিকে একই কলেজের বাংলা বিভাগের শিক্ষক আবদুল্লাহ আল মাহমুদের বিরুদ্ধে এক ছাত্রীকে নিজের বাসায় নেয়ার জন্য টানাহেঁচড়া করার অভিযোগ করা হয়। পরে এ নিয়ে গত জানুয়ারি মাসে অভিযোগ দিলে বিচারের বদলে অভিযুক্ত শিক্ষক নানাভাবে ভয়ভীতি দেখান।

এ ঘটনার পরই কলেজ পরিচালনা পর্ষদ জরুরি সভা করে এ দুই শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করে তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করে।


আরো সংবাদ

সরকারের এজেন্ডা বাস্তবায়নে অঙ্গসংগঠন হিসেবে কাজ করছে ইসি : মির্জা ফখরুল কৃষি মন্ত্রণালয়কে করোনার সম্ভাব্য দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকার নির্দেশ রিজভীর শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করেছে মেডিক্যাল বোর্ড বিজয়ের পথে আজারবাইজান : প্রেসিডেন্ট আলিয়েভ ভোক্তা ঋণ বাড়াতে সঞ্চিতি কমাল কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফজলু গাজীর কাছে নৌকার ভরাডুবি দায়মুক্তি অব্যাহত থাকলে রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধানের সম্ভাবনা কম : পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুসলিম ভ্রাতৃত্ববোধের গভীরে ফাটল ধরানোর ষড়যন্ত্র চলছে : এরদোগান ভোট ডাকাতির প্রতিবাদে বিএনপির বিক্ষোভ কর্মসূচি সন্ত্রাসীরা মুসলিম বিশ্বের ভেতর থেকে হুমকি দেয় : এরদোগান শ্রীমঙ্গলে উপ-নির্বাচনে একটিতে বিএনপি ও আরেকটিতে আ’লীগের প্রার্থী বিজয়ী

সকল