০২ অক্টোবর ২০২০

ঢাকাবাসীর পিঠা ও বাকরখানী উৎসব অনুষ্ঠিত

-

হাজারীবাগ পার্ক সংলগ্ন ঢাকাবাসীর কার্যালয়ে ঢাকাবাসী সংগঠনের উদ্যোগে পিঠা ও বাকরখানী উৎসবের আয়োজন হয়। এবারের সেøাগান ছিল ‘পুরাতন ঢাকার ঐতিহ্যবাহী স্থাপনাগুলো সংরক্ষণ ও সংস্কার চাই।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় যুব সংগঠন ফেডারেশনের সভাপতি দুলাল বিশ্বাস। বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকাবাসীর উপদেষ্টা আজফারুজ্জামান সোহরাব। ঢাকাবাসীর সভাপতি মো: শুকুর সালেক এতে সভাপতিত্ব করেন। আলোচনায় অংশ নেন ঢাকাবাসীর মহাসচিব শেখ খোদাবকস, সহকারী মহাসচিব শাহীন পারভীন ও সাংগঠনিক সম্পাদক রাশেদ মাহমুদ, ঢাকাবাসীর মহানগর কমিটির আহ্বায়ক হুমায়ুন আহমেদ মন্টু।
বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের সৌজন্যে এই অনুষ্ঠানে পুরান ঢাকার বিন বাদকের বিন বাজনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান দর্শকদের বেশ আনন্দ দেয়।
পিঠা উৎসবে চিতই পিঠা, ভাপা পিঠা, ছৈ পিঠা, পুয়া পিঠা, পাকন পিঠা, ফুল জরি পিঠা, পাটি শাপটা পিঠা, খেজুর পিঠা, ভিজা পিঠাসহ বাকরখানীও এই উৎসবে স্থান পায়। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ধরনের বাকরখানীর উপস্থিতি ছিল উল্লেখ করার মতো। উৎসবে বক্তারা পুরাতন ঢাকার ঐতিহ্যবাহী স্থাপনাগুলো সংরক্ষণ ও সংস্কারের জন্য দাবি জানান।
পুরান ঢাকার ছোট কাটরা, বড় কাটরা, নবাব বাড়ির গেট, ঢাকার রূপলাল হাউজের সংস্কার ও সংরক্ষণ এবং বিশেষ করে লালবাগ কেল্লা ও আহসান মঞ্জিলের কিছু অংশ বিভিন্ন ব্যক্তি ওয়াল ঘেষে জায়গা দখল করেছে, সেগুলোর ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণ করার আহ্বান জানান। বক্তারা বলেন, পুরান ঢাকার যেসব স্থাপনা হেরিটেজ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে সেগুলোকে সংস্কার এবং সেখানে বসবাসরত বাসিন্দাদের সহযোগিতা করার জন্য অনুরোধ জানান। পরিশেষে বক্তারা, ঢাকার দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের অবস্থিত নগর জাদুঘরটি অবহেলা-অযতেœর কারণে অনেক মূল্যবান জিনিসপত্র নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। সেগুলোকে দ্রুত সংস্কার এবং নগর জাদুঘরটি আধুনিকীকরণ করার জন্য দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের কাছে দাবি জানান। বিজ্ঞপ্তি


আরো সংবাদ