২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

বৈরুতে বিস্ফোরণের কারণ অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট

বৈরুতে বিস্ফোরণের কারণ অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট - ছবি : সংগৃহীত

লেবানন কর্তৃপক্ষ বলেছে, বৈরুতে বিস্ফোরণের কারণ অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট, এটি একটি গন্ধহীন স্ফটিক উপাদান, যা সাধারণত সার হিসেবে ব্যবহৃত হয় এবং এটি কয়েক দশক ধরে অসংখ্য শিল্প বিস্ফোরণের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

এ ধরণের দুর্ঘটনার মধ্যে রয়েছে টেক্সাসে সার কারখানায় ২০১৩ সালের বিস্ফোরণ ,এতে ১৫ জনের মৃত্যু হয় এবং ২০০১ সালে ফ্রান্সের তুলুসি রাসায়নিক প্লান্টে বিস্ফোরণ, এতে মারা যান ৩১ জন।

অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট জ্বালানি তেলের সাথে মেশালে এটি ভয়ঙ্কর বিস্ফোরকে পরিণত হয়, নির্মাণ শিল্পেও অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট ব্যবহার করা হয়। এ ছাড়া বিদ্রোহী গ্রুপগুলো এটি বিস্ফোরক হিসেবে ব্যবহার করে।

১৯৯৫ সালে ওকলাহোমা সিটিতে বোমা বিস্ফোরণের সাথে এই উপাদানের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে।

কৃষিতে অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট সার হিসেবে দানা আকারে ব্যবহার করা হয় এবং আদ্রতায় এটি দ্রুত গলে মাটিতে মিশে নাইট্রোজেন উৎপাদন করে, এটি মাটির উর্বরতার চাবিকাঠি।

লেবাননের প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াব বলেছেন, বৈরুত বন্দরের পাশে একটি গুদামে দুই হাজার ৭৫০ মেট্রিক টন অ্যামেনিয়াম নাইট্রেট দীর্ঘকাল ধরে মজুদ ছিল, সেটিই এই বিস্ফোরণের কারণ। এতে অনেক মানুষের মৃত্যু হয়েছে এবং লেবাননের রাজধানীর অভূতপুর্ব ক্ষতি হয়েছে।

ইউনিভার্সিটি অব রুডি আইল্যান্ডের রসায়ন শাস্ত্রের অধ্যাপক জিমমি অক্সলে বলেন, ওয়ারহাউসের স্বাভাবিক পরিস্থিতিতে উচ্চ তাপমাত্রার সংস্পর্শ ছাড়া অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট বিস্ফোরকে পরিণত হওয়া কঠিন।

“যদি আপনারা বৈরুত বিষ্ফোরণের ভিডিও দেখেন,আপনারা কালো ধোঁয়া দেখবেন, লাল ধোঁয়া দেখবেন, এর কারণ রাসায়নিক বিক্রিয়া অসম্পূর্ণ।”

তিনি বলেন, “আমি ধারণা করছি সেখানে ছোট একটি বিস্ফোরণ অ্যামোনিয়াম নাইট্রেটে বিক্রিয়া ঘটায়, এই ছোট বিস্ফোরণে দুর্ঘটনা হতে পারে অথবা উদ্দেশ্যমূলকও হতে পারে। আমি এ বিষয়ে এখনো কিছূ শুনিনি।”

অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট একটি অক্সিডাইজার, এটি দহনকে আরো তীব্র করে এবং অন্যান্য পদার্থকে জ্বলতে সাহায্য করে, এটি নিজে খুব জ্বলন যোগ্য নয়।

এ কারণে অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট মজুদ রাখার ক্ষেত্রে কড়া নিয়ম মানতে হয়, অবশ্যই এই মজুদ জ্বালানি ও তাপের উৎস থেকে দূরে রাখতে হবে।

এ জন্য ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেটের সাথে ক্যালসিয়াম কার্বনেট মিশিয়ে রাখার পরামর্শ দেয়, এতে ক্যালসিয়াম অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট তৈরি হয়, এটি সংরক্ষণ নিরাপদ।

ওকলাহোমা বোমা বিষ্ফোরণের পরে যুক্তরাষ্ট্র অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট সংরক্ষণ ও ব্যবহার বিধি আরো কড়াকড়ি করেছে। ২০০০ পাউন্ডের (৯০০ কেজি) বেশি অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট মজুদ হলে এন্টি ট্যারোরিজম এ্যক্ট অনুযায়ী সেটি তদারকি করা হয়।


আরো সংবাদ