৩১ মে ২০২০
দশম সংসদ না ভেঙে একাদশ সংসদ নির্বাচন

এমপিদের শপথের বৈধতা চ্যালেঞ্জে আপিল দায়ের

এমপিদের শপথের বৈধতা চ্যালেঞ্জে আপিল দায়ের - ছবি : নয়া দিগন্ত

দশম জাতীয় সংসদ ভেঙে না দিয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী সংসদ সদস্যদের শপথের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে দায়ের করা রিটের ওপর গত ১৮ ফেব্রুয়ারি আদেশ ঘোষণা করেন হাইকোর্ট উক্ত আদেশের বিরুদ্ধে আপিল আবেদন দায়ের করা হয়েছে। সুপ্রিমকোর্ট এর আপীল বিভাগে ২২শে আগস্ট লিভ টু আপীল দায়ের করেন রিটকারীর পক্ষে ব্যার্রিস্টার মাহবুব উদ্দীন খোকন। তিনি ২৪ আগষ্ট শনিবার বিষয়টি নয়া দিগন্তকে নিশ্চিত করেছেন।

আপীল এর গ্রাউন্ডস এ ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, ‘সংবিধানের ১২৩ (৩) অনুচ্ছেদে সংসদ ভেঙে দিয়ে পুনরায় সংসদ সদস্যদের শপথ অনুষ্ঠিত হওয়ার বিধান রয়েছে। কিন্তু সেই অনুচ্ছেদ প্রতিপালন না করে পুনরায় সংসদ সদস্যরা শপথ নেয়ায় বর্তমানে দুটি সংসদ বহাল রয়েছে, যা সংবিধানের পরিপন্থী। বর্তমানে এসব সংসদ সদস্যদের দ্বারাই মন্ত্রী পরিষদ গঠন করা হয়েছে। পূর্বের একটি সংসদ বহাল থাকা অবস্থায় পুনরায় সংসদ ও মন্ত্রী হিসেবে শপথ নেয়া সম্পূর্ণ অবৈধ।

সংবিধান অনুসারে দশম জাতীয় সংসদ ভেঙে না দিয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী সংসদ সদস্যদের নেয়া শপথের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে এর আগে গত ৮ জানুয়ারি জাতীয় সংসদের স্পিকার, প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে আইনি নোটিশ দেয়া হয়।

সুপ্রিম কোর্টের এক আইনজীবী পক্ষে নোটিশটি পাঠান সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ও বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন।

নোটিশে বলা হয়, সংবিধানের ১২৩ (৩) অনুচ্ছেদে সংসদ ভেঙে দিয়ে পুনরায় সংসদ সদস্যদের শপথ অনুষ্ঠিত হওয়ার বিধান রয়েছে। কিন্তু সেই অনুচ্ছেদ প্রতিপালন না করে পুনরায় সংসদ সদস্যরা শপথ নেয়ায় বর্তমানে দুটি সংসদ বহাল রয়েছে, যা সংবিধানের পরিপন্থী। কিন্তু ওই নোটিশের কোনো জবাব না পাওয়ায় গত ১৫ জানুয়ারি হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ও বিএনপিনেতা ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন এ রিট দায়ের করেন।


আরো সংবাদ