১৮ জানুয়ারি ২০২২
`

এখনই উপযুক্ত সময় করোনার আরেক ঢেউ ঠেকানোর

-

দেশের মানুষ এখন করোনা ভাইরাল ঢেউয়ের ‘ইন্টারমেডিয়েট এন্ডেমিক ফেজে’ দাঁড়িয়ে আছে, যেটি আমাদের পুরো জাতির জন্য আরেকটি করোনা ঢেউ ঠেকানোর উপযুক্ত সময়। করোনা পরিস্থিতির ওপর নিবিড়ভাবে নজর রাখা চিকিৎসক ও ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব কিডনি ডিজিজেস অ্যান্ড ইউরোলজির সহযোগী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান ডা: তৌহিদ হোসাইন এ কথা বলেছেন।
নয়া দিগন্তের সাথে আলাপকালে তিনি বলেন, আমরা পুরো জাতি সামগ্রিকভাবে একটি মহামারী ঢেউয়ের মোকাবেলা করছি। কোভিড-১৯ সম্পর্কে এ পর্যন্ত আমরা যা জানতে পেরেছি, তাতে এ রোগ সংক্রমণ ও প্রতিরোধের একটা মোটামুটি ধারণা পরিষ্কার হয়ে গেছে। ভাইরাল ওয়েভের পিক এবং বেজ বিশ্লেষণ করতে গিয়ে দেখা যায় ভাইরাল ঢেউ বা ওয়েভের দুই পিকের মাঝের বেজটি হলো ইন্টার ওয়েভ স্ট্রলিং পিরিয়ড বা ইন্টারমেডিয়েট এন্ডেমিক ফেজ এবং ওয়েভের পিকটা হলো এপিডেমিক ফেজ। এপিডেমিক ফেজ সত্বর শনাক্ত করে দ্রুত চিকিৎসা করা, আইসোলেশন ও কোয়ারেন্টিনের উপযুক্ত সময়। কিন্তু করোনা ভাইরাল ঢেউয়ের যেখানে এখন আমাদের পুরো জাতি দাঁড়িয়ে সেই ইন্টারমেডিয়েট এন্ডেমিক ফেজ আরেকটি করোনা ঢেউ ঠেকানোর উপযুক্ত।
ডা: তৌহিদ হোসাইন বলেন, ভাইরাল ঢেউয়ের চরিত্র বিশ্লেষণ করে বলা যায়, এই সময়টাতে বেশির ভাগ মানুষ অস্থায়ী সেরোপ্রটেকশনে আছে, ফলে করোনাভাইরাস নতুন হোস্টের অভাবে পরিবেশে একটা নির্দিষ্ট সময়ের বেশি বাঁচতে পারে না। এ অবস্থায় এদের ট্রান্সমিশন চ্যানেল ব্লক করার জন্য স্বাস্থ্যবিধি যত বেশি মেনে চলব তত হোস্টের অভাবে করোনাভাইরাস নিঃশেষ হতে থাকবে।
ডা: তৌহিদ উল্লেখ করেন, করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট সাধারণত এই সময়ে হয় না। নতুন ভ্যারিয়েন্টের উপযুক্ত পরিবেশ হলো ভাইরাল ওয়েভ যখন উঠতে থাকে। কাজেই এই সময়টা হলো সময়ের এক ফোঁড়, অসময়ের দশ ফোঁড়ের মতো। সুতরাং আরেকটি নতুন ভাইরাল ওয়েভ এবং নতুন ভ্যারিয়েন্টের উৎপাত থেকে বাঁচতে হলে টিকা গ্রহণ করা, মাস্ক পরা ও স্বাস্থ্যবিধিসহ সব ধরনের জনসমাগম এড়িয়ে চলা জরুরি। এ ক্ষেত্রে মাস্ক পরাটাকে আইনি প্রক্রিয়ায় নিয়ে আসা দরকার। মাস্ক পরিধান না করলে শাস্তির বিধান চালু করা যেতে পারে। ১৯১৮ সালের ইনফ্লুয়েঞ্জা মহামারীর সময়ে মাস্ক পরাটাকে আইনসিদ্ধ করে দিয়ে ভালো ফলাফল পেয়েছিল।
ডা: তৌহিদ হোসাইন মনে করেন, এই সময়ে স্বাস্থ্যবিধি মানাটাও সহজ। আর টিকা কার্যক্রম জোরেশোরে চালু করার উপযুক্ত সময় এখনই। কারণ আজকে যিনি টিকা নিচ্ছেন ১৫ দিন পরেই তিনি অনেকটা সুরক্ষিত। একই সাথে লকডাউন বা শাটডাউনের উপযুক্ত সময় এখনই। কারণ এখন লকডাউন দিয়ে করোনাভাইরাসের চ্যানেল ভাঙা যত সহজ, ভাইরাল ওয়েভের এপিডেমিক ফেজে লকডাউন দিয়ে করোনার চ্যানেল ব্লক করা তত কঠিন।

 


আরো সংবাদ


premium cement
বিএনপি থেকে বহিষ্কার তৈমূরের নির্বাচনের প্রধান সমন্বয়ক এ টি এম কামাল ৩০ মিনিট সময় দিয়ে মেলা বন্ধ করলেন ইউএনও ডাস্টবিনে বসে বই পড়ে বিশ্বকে নাড়িয়ে দিল সিরিয়ান শিশু হুসাইন ৫ বছরে পৃথক ৩ কেন্দ্রে ভোট দেন শামীম ওসমান ওমিক্রন গুণিতক হারে বৃদ্ধির আশঙ্কা রয়েছে : বিএসএমএমইউ একটি প্লাস্টিকের সুতা ধরে যেভাবে উদঘাটন হলো নায়িকা শিমু হত্যার রহস্য সেন্টমার্টিন থেকে ১২ লাখ ইয়াবাসহ এসএমজি উদ্ধার রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে প্রচেষ্টার আশ্বাস দিয়েছে কম্বোডিয়া দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য বাড়াতে ভারত এফবিসিসিআই-এর সহযোগিতা চায় দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে তীব্র যানজট ঢাবির অধ্যাপক সাইদা হত্যা : আনারুলের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

সকল