০৪ ডিসেম্বর ২০২০

দম ফেলার ফুরসত নেই আকবরদের

দম ফেলার ফুরসত নেই আকবরদের - ছবি : সংগৃহীত

সবে শেষ হয়েছে প্রেসিডেন্টস কাপ। বিসিবির চোখ এখন নভেম্বরে টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের দিকে। জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা পেয়েছেন দুই সপ্তাহের ছুটি। তবে বিশ্রাম মিলছে না যুব ক্রিকেটার আকবর-সুমনদের।
প্রেসিডেন্টস কাপে খেলা হাই পারফরম্যান্স দলের (এইচপি) ১৫ জন ক্রিকেটারকে এখন নেমে পড়তে হবে এইচপির ক্যাম্পে। কারণ মঙ্গলবার থেকে শুরু হচ্ছে এই ক্যাম্প। এদিন থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব নিচ্ছেন এইচপির প্রধান কোচ টবি র‌্যাডফোর্ড।

ক্যাম্প শুরুর আগে ২৬ ক্রিকেটারের করোনা পরীক্ষা হয়েছে। সবাই নেগেটিভ। আজ থেকে মিরপুরের একাডেমি মাঠে শুরু হতে যাওয়া এইচপির এই ক্যাম্প চলবে আগামী ১২ নভেম্বর পর্যন্ত। শুরুতে ক্রিকেটারদের ফিটনেস পরীক্ষা নেবেন র‌্যাডফোর্ড। এরপর শুরু হবে স্কিল ট্রেনিং।

সর্বশেষ দুটি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে খেলা ক্রিকেটারদের নেয়া হয়েছে এই ক্যাম্পে। জাতীয় দলের হয়ে কয়েকটি ম্যাচ খেলা আফিফ হোসেন ধ্রুব, নাঈম শেখ ও আমিনুল ইসলাম বিপ্লবকেও রাখা হয়েছে ক্যাম্পে।

এইচপি দল :

ব্যাটসম্যান : তানজিদ হাসান তামিম, পারভেজ হোসেন ইমন, নাঈম শেখ, শাহাদাত হোসেন, মাহমুদুল হাসান, আফিফ হোসেন ও তৌহিদ হৃদয়।
স্পিনার : মিনহাজুল আবেদীন আফ্রিদি, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, রাকিবুল হাসান, হাসান মুরাদ, তানভীর হাসান, রিশাদ হোসেন, শেখ মেহেদী হাসান।

পেসার : শরিফুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম, মুকিদুল ইসলাম, মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী, শাহিন আলম, সুমন খান, নোমান চৌধুরী সাগর, অভিষেক দাস ও রেজাউর রহমান রাজা।
উইকেটরক্ষক : মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন ও আকবর আলী।


আরো সংবাদ

সৌদি আরবে ইমাম হোসাইন মসজিদটি ভেঙে ফেলার নির্দেশ (৯৯৮৫)অপশক্তি মোকাবেলা করে ইসলামের বিজয় নিশ্চিত করতে হবে : মামুনুল হক (৮৯০১)ভাস্কর্যের নামে মূর্তি স্থাপন কোনোক্রমে মেনে নেয়া যায় না : সম্মিলিত ইসলামী দলসমূহ (৫৮৫৮)স্টেডিয়ামগুলোকে জেলে রূপান্তরের অনুমতি না দেয়ায় কেজরিওয়ালের ওপর ক্ষুব্ধ মোদি (৫৩৭৯)দেশের প্রয়োজনে সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকারের নির্দেশ সেনাপ্রধানের (৪৪৮২)বাবার ডাকে বাড়ি ফিরে বড় ভাইয়ের হাতে খুন (৪১১৬)পাঠ্যসূচিতে থাকলেও গুরুত্ব হারাচ্ছে ইসলাম শিক্ষা (৩৯৮৪)মীমাংসিত বিষয় নিয়ে আপোষ করার কোনো সুযোগ নেই : ভাস্কর্য ইস্যুতে কাদের (৩৫৪৬)পরমাণু সক্ষমতা বাড়াতে ও পরিদর্শন বন্ধ করতে নতুন আইন পাস ইরানে (৩৪৩৪)রাজধানীতে সমাবেশের অনুমতি পায়নি সম্মিলিত ইসলামী দলগুলো (৩৪১০)