০৮ আগস্ট ২০২০

ধর্ষকদের পিটিয়ে মারো : জয়া বচ্চনের বক্তব্যের তীব্র সমালোচনা

-
24tkt

ধর্ষণকারীদের ‘জনসমক্ষে পিটিয়ে মারা উচিত’ বলে মনে করেন ভারতের সমাজবাদী পার্টির (এসপি) এমপি জয়া বচ্চন। তেলঙ্গানায় পশু চিকিৎসককে গণধর্ষণ ও খুনের ঘটনা নিয়ে আলোচনার সময় রাজ্যসভায় দাঁড়িয়ে সোমবার অকপটে গণপিটুনির পক্ষে যুক্তি দেন তিনি। ফলে প্রশ্ন উঠেছে, আইনসভার একজন সদস্য কী ভাবে আমজনতাকে আইন হাতে তুলে নেয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন? সমালোচকদের মতে, গণপিটুনি নিয়ে জয়ার বক্তব্য সেকেলে এবং হাস্যকর।

তেলঙ্গানায় গণধর্ষণ করে পুড়িয়ে মারার ঘটনায় উত্তাল গোটা ভারত।সোমবার তার আঁচ পড়েছে পার্লামেন্টেও। কেউ চেয়েছেন মৃত্যুদণ্ড, কেউ বলেছেন লিঙ্গচ্ছেদ করা হোক অপরাধীদের। আর জয়ার দাবি, ‘‘আপনারা যদি নিরাপত্তা দিতে না-পারেন, তা হলে মানুষের হাতে বিচারের ভার ছেড়ে দিন। এই ধরনের লোকজনকে প্রকাশ্যে পিটিয়ে মারা উচিত।’’

জয়াকে অবশ্য এ দিন সমর্থন করেছেন লোকসভার তৃণমূল এমপি মিমি চক্রবর্তী। সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘‘তার সঙ্গে আমি একমত। আমি মনে করি না, ধর্ষকদের নিরাপত্তা দিয়ে আদালতে নিয়ে যাওয়া এবং বিচারের জন্য অপেক্ষা করা উচিত। অবিলম্বে সাজা দিতে হবে।’’ মিমির বক্তব্যে ক্ষুব্ধ তৃণমূল নেতৃত্বের বক্তব্য, মিমি যা বলেছেন, তা তার ব্যক্তিগত মত। তৃণমূল চায় ধর্ষকদের দ্রুত শাস্তি হোক, কিন্তু তা বিচারব্যবস্থার মাধ্যমে।

গত কয়েক বছরে কখনো গোমাংস খাওয়া, কখনও চোর বা শিশুচোর সন্দেহে, কখনও বা ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান না-দেয়ায় গণপিটুনির ঘটনা নিয়ে তোলপাড় হয়েছে ভারত। অধিকাংশ সময় অভিযোগের আঙুল উঠেছে গৈরিক শিবিরের বিরুদ্ধে। এ নিয়ে উদ্বেগ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে খোলা চিঠিও দিয়েছেন বিশিষ্টজনেদের একাংশ। সমালোচকদের মতে, এই রকম আবহে ‘পিটিয়ে মারা’র মতো মন্তব্য করা জয়ার উচিত হয়নি। তার মনে রাখা উচিত, সভ্য সমাজে রাস্তায় বিচারসভা বসানোর অবকাশ নেই।

সমালোচকদের বক্তব্য, জয়া সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষের মত নিয়ে কঠোর আইন প্রণয়নে সরকারকে পরামর্শ দিতে পারতেন। মহিলাদের নিরাপত্তা বাড়াতে কী ব্যবস্থা নেয়া উচিত, পুলিশের কী করা উচিত তা-ও বলতে পারতেন। কিন্তু তা না-করে তিনি প্রতিহিংসার পথই দেখালেন, তা-ও আবার পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে।
সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা


আরো সংবাদ

কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর কারিকুলাম যুগোপযোগী ও প্রায়োগিক করতে হবে : ড. রাজ্জাক সাটুরিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় শিশুসহ নিহত ২ গরীব দেশগুলোর জন্যে ১০ কোটি টিকা উৎপাদিত হতে পারে আরো জটিল হলো সুশান্তের মৃত্যু রহস্য, কী সম্পর্ক তার বন্ধু ও রিয়ার মধ্যে মায়ের কারণেই বাবা সম্পূর্ণভাবে দেশের জন্য কাজের সুযোগ পেয়েছেন : শেখ হাসিনা শরণখোলায় শিক্ষক দম্পতির অত্যাচারে অবরুদ্ধ এক জেলে পরিবার অধ্যাপক আবদুল কাফী মন্ডলের ইন্তেকালে জামায়াতের শোক কাশ্মির ইস্যুতে ওআইসির নীরবতার সমালোচনা করল পাকিস্তান বগুড়ায় বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকী পালিত বিয়েতে রাজি না হওয়ায় বোনকে গলা টিপে হত্যা দেশে কতটা জনপ্রিয় টিকটক?

সকল

প্রদীপের অপকর্ম জেনে যাওয়ায় জীবন দিতে হয়েছে সিনহাকে? (৩০৪৮৩)মেজর সিনহা হত্যা : ওসি প্রদীপ, ইন্সপেক্টর লিয়াকত আলীসহ ৭ পুলিশ বরখাস্ত (৯৩৩৬)পাকিস্তানের বোলিং তোপে লন্ডভন্ড ইংল্যান্ড (৬৬৮২)আয়া সোফিয়ায় জুমার নমাজ শেষে যা বললেন এরদোগান (৬৬৫৮)জাহাজ ভর্তি ভয়াবহ বিস্ফোরক বৈরুতে পৌঁছল যেভাবে (৬৬৩৮)নতুন রাজনৈতিক দলের ঘোষণা দিলেন মাহাথির (৬৩৮৪)অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণ নিয়ে কড়া বিবৃতি পাকিস্তানের, যা বলছে ভারত (৬১৫৩)সাগরের ইলিশে সয়লাব খুলনার বাজার (৫৩৬৯)এসএসসির স্কোরের ভিত্তিতে কলেজে ভর্তি হবে শিক্ষার্থীরা (৫২২৮)কানাডায়ও ঘাতক বাহিনী পাঠিয়েছিলেন মোহাম্মাদ বিন সালমান! (৫২০৮)