১৩ মে ২০২১
`

‘না বুঝেই তোলপাড় ফিফা উয়েফার ’

-

উইরোপিয়ান সুপার লিগের ঘোষণা আসার পরপরই ফিফা ও উয়েফা যে কাণ্ড ঘটিয়েছে, সব না বুঝেই করেছে বলে দাবি করেছেন ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ। একের পর এক ক্লাব বেরিয়ে যাওয়ায় সুপার লিগ শেষ হয়ে গেছে বলে যে ধারণা, তা উড়িয়ে দিয়েছেন তিনি। সুপার লিগের প্রথম চেয়ারম্যান ও রিয়াল মাদ্রিদ প্রেসিডেন্ট বললেন, সুপার লিগ নিয়ে ভুল বোঝাবুঝি চলছে। রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনাসহ চার ক্লাব এখনো সমাধানের পথ খুঁজছে বলেও জানালেন তিনি। পেরেজ বলেন, ‘গত রাতটি (মঙ্গলবার) ছিল দীর্ঘ এক রাত। রাত ১টা পর্যন্ত আমরা একসাথেই ছিলাম। আমি দুঃখিত ও হতাশ। প্রিমিয়ার লিগের ছয় ক্লাবের একটি পুরোপুরি নিশ্চিত হতে পারছিল না এই প্রকল্প নিয়ে। এটিই বাকিদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে।’
তিনি আরো বলেন, ‘ম্যানচেষ্টারের মালিকপক্ষ একটি প্রচারণা শুরু করে যে সুপার লিগ হলে ঘরোয়া লিগগুলো শেষ হয়ে যাবে। আমি বলব ঘরোয়া লিগগুলোর কোনো ঝুঁকি ছিল না এখানে। আমরা স্রেফ বর্তমান চ্যাম্পিয়ন্স লিগের বদলে সুপার লিগ চালু করতে চেয়েছি। এখনকার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ পুরনো ও অকার্যকর।’
ফিফা ও উয়েফা কিছু না বুঝেই ও বোঝানোর সুযোগ না দিয়েই তোলপাড় তুলেছে বলে মনে করেন সুপার লিগের চেয়ারম্যান। বলেন, ‘ফিফা ও উয়েফা আমাদেরকে কিছু বোঝানোর সুযোগই দেয়নি। সঠিক লোকদের দিয়ে সংগঠনগুলো পরিচালিত হচ্ছে না। এমন ভাব করা হচ্ছে যেন আমরা অ্যাটম বোম ফেলেছি।’ তিনি আরো বলেন, ‘অনেক মিথ্যা প্রচারণা চালানো হয়েছে। যারা এসব ছড়াচ্ছে, তাদের বিশেষ কিছু আধিপত্য আছে, যা তারা হারাতে চায় না।’ আগের মতোই আর্থিক সঙ্কটের দাবি করে পেরেজ বলেন, ‘আমরা ফুটবলকে রক্ষা করতে চাই। গত মৌসুমে এই ১২ ক্লাব মিলে মোট ৬৫ কোটি ইউরো লোকসান দিয়েছে। যে আর্থিক অবস্থার ভেতর দিয়ে আমরা যাচ্ছি, সেটি মোকাবেলা করার জন্যই তিন বছর ধরে সুপার লিগ নিয়ে কাজ চলছে। বড়-ছোট সব ক্লাবের জন্যই অনেক অর্থের জোগান আসবে। এখনকার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ আর চলে না। কোয়ার্টার ফাইনাল থেকেই কেবল আগ্রহ জন্মায় এখানে।’



আরো সংবাদ


সকল