২৩ এপ্রিল ২০২১
`

ভূমিকম্পের পরও নিরাপদে তামিমরা

মুশফিকের ছবি নিয়ে ধু¤্রজাল
ক্রাইস্টচার্চে নূর মসজিদের সামনে মুশফিক রহীমের সেলফি : সৌজন্য -

দুই বছর আগের ১৫ মার্চ দিনটি ছিল শুক্রবার। বাংলাদেশে তখনো সকালের আলো ফোটেনি। কিন্তু নিউজিল্যান্ডে সকাল পেরিয়ে তখন দুপুর। পূর্ণাঙ্গ সফরে থাকা জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা বেরিয়েছিলেন জুমার নামাজ পড়তে। কিন্তু সেদিন আর নামাজ পড়া হয়নি মুশফিকুর রহীম, তামিম ইকবালদের। মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার কারণে ফিরতে হয়েছিল আতঙ্ক নিয়ে। প্রায় দুই বছর পর গতকাল সেই একই মসজিদের কাছে গেলেন মুশফিকরা। তবে এখনো ভুলতে পারেননি সেদিনের সেই ভয়াবহতা। সেই মসজিদের সামনে তোলা ছবি আপলোড করেছেন দলের অভিজ্ঞ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহীম। ছবির সাথে জুড়ে দেয়া ক্যাপশনে কান্নার ইমোজি দিয়ে মুশফিক লিখেছেন, ‘আসসালামু আলাইকুম। এটাই সেই মসজিদ এবং আজকেও শুক্রবার।’
তবে এই ছবি নিয়ে শুরু হয়েছে বিভ্রান্তি ও ধু¤্রজাল। বিসিবির সিইও নিজাম উদ্দিন সুজন জানান, কোয়ারেন্টিন এখনো শেষ হয়নি। যেখানে ২২ ঘণ্টা থাকতে হয় ঘরবন্দী। কোয়ারেন্টিন বিধিতে মসজিদে গিয়ে নামাজের সুযোগ নেই দলের। অনুশীলন আর জিম ছাড়া ১৪ দিনের আগে এখান থেকে বের হওয়া সম্ভব নয়।’ তাহলে মুশফিকের ছবি এলো কিভাবে? দলের একজন সদস্যের ব্যাখ্যা, ‘সেটা হতে পারে পুরনো ছবি। আমরা তো এখানে একটি প্রক্রিয়ার মধ্যে আছি। অনুশীলনে গেলেও মসজিদের সামনে দাঁড়িয়ে ছবি তোলার মতো সময় পাবে না। রানিংয়ে থাকতে হয়।’
ক্রাইস্টচার্চে সেই নূর মসজিদে আবার হামলার হুমকি দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। এ বিষয়ে নিউজিল্যান্ডে থাকা পরিচালক ও মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, ‘গত বৃহস্পতিবার হামলার হুমকিদাতা দুই সন্ত্রাসীকে নিউজিল্যান্ড পুলিশ গ্রেফতার করেছে। বাংলাদেশ দলকে কড়া নিরাপত্তায় রাখা হয়েছে। এ ছাড়া নিউজিল্যান্ড সরকার এবং কিউই ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকেও বাংলাদেশ দলকে নিরাপত্তার ব্যাপারে আশ্বস্ত করা হয়েছে।’
এ দিকে তিন ম্যাচের ওয়ানডে ও টি-২০ সিরিজ খেলতে নিউজিল্যান্ডে অবস্থান করছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। বৃহস্পতিবার রাত ২:২৭ মিনিটে শক্তিশালী তিনটি ভূমিকম্প হয় সেখানে। জারি হয়েছে সুনামি সতর্কতাও। ক্রাইস্টচার্চ থেকে ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ৯০০ কিলোমিটার দূর হওয়ায় তেমন একটা টের পাননি জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা।
এক ভিডিও বার্তায় জালাল ইউনুস বলেন, ‘নিউজিল্যান্ডে শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হানলেও, টাইগার ক্রিকেটার ও দলের সাথে থাকা সবাই নিরাপদে আছে। মূলত ভূমিকম্পের কেন্দ্র থেকে অনেক দূরে বাংলাদেশ দলের বর্তমান অবস্থান। বাংলাদেশ দলের সবাই ভালো আছে। দিনের সব কার্যক্রম স্বাভাবিক রুটিনেই এগিয়েছে। খেলোয়াড়রা নিজেদের গ্রুপে ভাগ হয়ে লিংকন গ্রিন পার্কে অনুশীলন করেছে।



আরো সংবাদ