২৪ নভেম্বর ২০২০

প্রধানমন্ত্রীর প্রতি ম্যাব’র কৃতজ্ঞতা

-

মিউনিসিপ্যাল অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ম্যাব) সভাপতি দেওয়ান কামাল আহমেদ গত ৪ মে প্রধানমন্ত্রীর সাথে ভিডিও কনফারেন্সে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় পৌরসভার কার্যক্রম এবং পৌর কর্মচারীদের বেতন-ভাতার সমস্যাসহ পৌরসভার বর্তমান পরিস্থিতি তুলে ধরেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অত্যন্ত মনোযোগ সহকারে শ্রবণ করেন। বিষয়টি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টিগোচর হলে তিনি মুখ্যসচিবকে অর্থ বরাদ্দের নির্দেশ দেন।

তাছাড়া বেতন-ভাতা না পেয়ে পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা মানবেতর জীবনযাপন করছেন মানবিক এ বিষয়টি ম্যাবের প্রেস রিলিজের মাধ্যমে জানতে পেরে এবং সরেজমিন জেনে সাংবাদিকবৃন্দের রিপোর্ট বিভিন্ন জাতীয় জাতীয় দৈনিক, ইলেকট্রনিক মিডিয়া ও অনলাইন গণমাধ্যমে ফলাও করে প্রচারিত হয়।

এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল ২১ মে প্রধানমন্ত্রী পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা খাতে ঈদের পূর্বে প্রথমবারের মতো তার তহবিল থেকে ২৫ কোটি টাকা অনুমোদন করেন।

এর আগে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ম্যাবের আবেদনে সাড়া দিয়ে পৌর কর্মচারীদের বেতন-ভাতা খাতে ২০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেন। সর্বমোট বরাদ্দের পরিমাণ ৪৫ কোটি। তাছাড়া স্থানীয় সরকারমন্ত্রী ম্যাবের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষরিত আবেদনের প্রেক্ষিতে পৌরসভার বর্তমান অবস্থা ও বেতন ভাতার সমস্যা নিয়ে একটি সামারি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠান।

ম্যাব এ ব্যাপারে আশাবাদী পৌরসভাগুলোকে সচল রাখতে তাদের চাহিত অবশিষ্ট অর্থ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাদ্দ দিবেন এবং বেতন-ভাতা সমস্যার স্থায়ী সমাধান করবেন।

সার্বিক বিষয়গুলো ম্যাবের ও বিএপিএস’র পক্ষ থেকে সমন্বয় ও যোগাযোগ করেন এস এম আব্দুর রউফ ও ম ই তুষার ।

অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও নীলফামারী পৌরসভার মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ এবং সাধারণ সম্পাদক ও শরীয়তপুর পৌরসভার মেয়র রফিকুল ইসলাম কোতোয়াল ম্যাবের পক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং স্থানীয় সরকার বিভাগের মাননীয় মন্ত্রী ও সিনিয়র সচিবসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান।


আরো সংবাদ