২১ সেপ্টেম্বর ২০২০

চট্টগ্রামে কয়েকটি সংবাদপত্রের মালিক ও সাংবাদিক ইউনিয়নের মধ্যে সৃষ্ট অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতে বিএফইউজে ও সিএমইউজের উদ্বেগ

চট্টগ্রামে কয়েকটি সংবাদপত্রের মালিক ও সাংবাদিক ইউনিয়নের মধ্যে সৃষ্ট অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতে বিএফইউজে ও সিএমইউজের উদ্বেগ - ছবি : সংগৃহীত

বন্দরনগরী চট্টগ্রামে কয়েকটি সংবাদপত্রের প্রকাশনা বন্ধসহ সৃষ্ট অচলাবস্থায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন-বিএফইউজে ও চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন সাংবাদিক ইউনিয়নের (সিএমইউজে) নেতৃবৃন্দ। সংবাদকর্মীদের বেতন-বোনাসসহ ন্যায্য পাওনা আদায়ে সাংবাদিক ইউনিয়নের আন্দোলন কর্মসূচি এবং তার প্রেক্ষিতে কয়েকটি সংবাদপত্রের প্রকাশনা বন্ধ করে দিয়ে সাংবদিকদের কর্মহীন করার ঘটনা নজীরবিহীন ও অনভিপ্রেত হিসেবে বর্ণনা করেছেন সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ। আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের পথ রুদ্ধ হলে অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতির উদ্ভব ঘটে এবং চট্টগ্রামে তাই ঘটেছে বলেও মনে করেন বিএফইউজে ও সিএমইউজে নেতৃবৃন্দ।

বিএফইউজের সভাপতি রুহুল আমিন গাজী ও মহাসচিব এম আবদুল্লাহ এবং সিএমইউজের সভাপতি শামসুল হক হায়দরী ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহনওয়াজ এক যুক্ত বিবৃতিতে সকল পক্ষকে বিদ্বেষ ও বিভাজনের পথ পরিহার করে ফলপ্রসূ আলোচনার মাধ্যমে অনতিবিলম্বে অচলাবস্থা নিরসনের আহবান জানান। নেতৃবৃন্দ বলেন, সংবাদমাধ্যমের মালিক ও সংবাদকর্মী এক অপরের পরিপূরক শক্তি। সাংবাদিক ইউনিয়ন শুধুমাত্র সংবাদ কর্মীদের স্বার্থরক্ষায় সোচ্চার ভূমিকা পালন করে তাই নয়, সংবাদমাধ্যম প্রতিষ্ঠান কারো রোষানলে পড়লে বা বিপদগ্রস্ত হলে সেই প্রতিষ্ঠানের পক্ষে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখার ঐতিহ্য ও নজীর রয়েছে। এক অপরকে প্রতিপক্ষ ভাবলে সুষ্ঠুভাবে সংবাদমাধ্যম প্রতিষ্ঠান পরিচালনা দূরূহ হয়ে পড়ে। সঙ্কট পরিস্থিতি উত্তরণে স্বাভাবিক ও গ্রহণযোগ্য পথ পরিহার করে সংবাদকর্মীদের কাছ থেকে ট্রেড ইউনিয়ন ত্যাগের দাসখত আদায় বা সংবাদকর্মীদের মধ্যে বিভাজন ও ভুলবুঝাবুঝি সৃষ্টি করে সাময়িক সুবিধা নেয়া গেলেও তা শেষ পর্যন্ত সুখকর হয় না, অনেক ক্ষেত্রে বুমেরাং হয়। আবার কোনো সংবাদকর্মী মালিকের চাপ, প্রলোভনের কাছে নতিস্বীকার করে সাংবাদিক ইউনিয়ন ও সহকর্মীদের মধ্যকার ঐক্যবিনাশী তৎপরতায় যুক্ত হলে তাদেরকেও সময়ের ব্যবধানে করুন পরিনতি ভোগ করতে দেখা গেছে।

বিবৃতিতে বিএফইউজে ও সিএমইউজে নেতৃবৃন্দ উদার ও সৌহার্দের মানসিকতা নিয়ে যুক্তি ও ন্যায্যতাকে প্রাধান্য দিয়ে সঙ্কট নিরসনে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছেন। একই সঙ্গে সংবাদকর্মীদের ন্যায়সংগত অধিকার আদায়ের যেকোনো নিয়মতান্ত্রিক সংগ্রামের প্রতি পূর্ণ সমর্থন ও সংহতি ব্যক্ত করেছেন।
প্রেস বিজ্ঞপ্তি


আরো সংবাদ