৩০ মার্চ ২০২০

ফিটনেসহীন গাড়ি বন্ধে প্রতি জেলায় টাস্কফোর্সের নির্দেশ হাইকোর্টের

-

দেশের সড়ক-মহাসড়কগুলোতে চলাচলের অনুপযোগী, ফিটনেসহীন ও অনিবন্ধিত যানবাহন চলাচল বন্ধে প্রতিটি জেলায় টাস্কফোর্স গঠনের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিবকে এই টাস্কফোর্স গঠনের নির্দেশ দেন আদালত।
হাইকোর্ট বলেছেন, জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে পুলিশ, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও বিআরটিএর সমন্বয়ে এ টাস্কফোর্স গঠন করতে হবে। এই টাস্কফোর্স চলাচলের অনুপযোগী, ফিটনেসহীন ও অনিবন্ধিত যান দেখে আইন অনুযায়ী সেগুলো আটক, জব্দ ও ডাম্পিং করতে পারবে। আগামী ১ জুন সংশ্লিষ্ট বিবাদিদের এ নির্দেশনা বাস্তবায়ন বিষয়ে প্রতিবেদন দিতে বলেছেন আদালত।
বিচারপতি মো: নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ গতকাল রোববার এ আদেশ দেন। আদালতে বিআরটিএর পে শুনানিতে অংশ নেন আইনজীবী মঈন ফিরোজী ও মো: রাফিউল ইসলাম। রাষ্ট্রপে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক।
আইনজীবী মঈন ফিরোজী পরে সাংবাদিকদের বলেন, সড়কে, বিশেষ করে মহাসড়কগুলোতে চলাচলের অনুপযোগী, ফিটনেসহীন ও অনিবন্ধিত যেসব যান চলছে, সড়ক পরিবহন আইন বাস্তবায়ন করে সড়কের নিরাপত্তা যাতে নিশ্চিত করা যায় সে জন্য পুলিশ, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবং বিআরটিএর সমন্বয়ে প্রতিটি জেলায় টাস্কফোর্স গঠন করতে বলা হয়েছে। এ ছাড়া ফিটনেস নবায়ন না করা পর্যন্ত ফিটনেস ছাড়া গাড়িতে তেল-গ্যাস-পেট্রলসহ কোনো ধরনের জ্বালানি না দিতে হাইকোর্ট যে নির্দেশ দিয়েছিলেন, রুল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত তা বহাল থাকবে।
অপরাধগুলো বিচার করার জন্য সড়ক পরিবহন আইন, ২০১৮ এর ১১৪, ১১৫তে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের মাধ্যমে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করার মতা দেয়া হয়েছে। সেই আইন অনুযায়ী পুলিশ, বিআরটিএ ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের যে মতা দেয়া আছে, সেগুলো বিচ্ছিন্নভাবে বাস্তবায়ন না করে সমন্বিতভাবে বাস্তবায়ন করতেই এই টাস্কফোর্স গঠনের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
ঢাকাসহ সারা দেশে ফিটনেস ছাড়া গাড়ির চলাচল বন্ধে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপরে (বিআরটিএ) ভ্রাম্যমাণ আদালত ও আইনশৃঙ্খলা রাকারী বাহিনী কী পদপে নিয়েছে, তা জানতে চেয়েছিলেন হাইকোর্ট। গাড়ির নিবন্ধন ও ফিটনেস সংক্রান্ত বিআরটিএ ও পুলিশ প্রধানের দেয়া প্রতিবেদন দেখে গত বুধবার বিআরটিএ চেয়ারম্যান ও পুলিশ প্রধানকে গতকাল রোববার তা জানাতে বলা হয়েছিল।
পুলিশ প্রধানের প্রতিবেদনে বলা হয়, গত বছর ২৩ অক্টোবর হাইকোর্টের নির্দেশের পর বিভিন্ন তেলের পাম্প কর্তৃপকে চিঠি দেয়া হয়েছে, যাতে ফিটনেসবিহীন যানবাহনে তেল দেয়া না হয়। আদালতের আদেশ অনুযায়ী পদপে নেয়া হয়েছে। এ অনুযায়ী কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।
আর বিআরটিএর প্রতিবেদনে বলা হয়, গত বছর ২৩ অক্টোবর হাইকোর্টের আদেশের পর থেকে ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত সারা দেশে নিবন্ধিত চার লাখ গাড়ির মধ্যে থেকে এক লাখ ৬৫ হাজার ৭৬৪ গাড়ির ফিটনেস নবায়নসনদ ছিল। আর নতুন নিবন্ধিত ১৯ হাজার তিনটি গাড়ির ফিটনেস সার্টিফিকেট দেয়া হয়েছে।
গত বছর ২৩ অক্টোবর আদালত ফিটনেসবিহীন গাড়িতে তেল-গ্যাস-পেট্রলসহ সব ধরনের জ্বালানি সরবরাহ বন্ধ করতে নির্দেশ দিয়েছিলেন। এর আগে গত বছর ২৩ জুলাই নিবন্ধন নিয়ে ফিটনেস নবায়ন করেনি এমন চার লাখ ৭৯ হাজার ৩২০টি গাড়িকে ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ফিটনেস নবায়ন করতে নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত।
প্রসঙ্গত, গত বছর ২৩ মার্চ ‘নো ফিটনেস ডকস, ইয়েট রানিং’ শিরোনামে ইংরেজি দৈনিকে প্রকাশিত প্রতিবেদন নজরে আসার পর ২৭ মার্চ আদালত স্বতঃপ্রণোদিত রুলসহ অন্তর্বর্তীকালীন আদেশ দেন। আদালত ঢাকাসহ সারা দেশে ফিটনেস-নিবন্ধনহীন যানবাহন ও লাইসেন্সবিহীন চালকের প্রতিবেদন চেয়ে বিআরটিএর সড়ক নিরাপত্তা বিভাগের পরিচালক মাহবুব-ই-রাব্বানীকে ২৪ জুন আদালতে হাজির হয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলেন।
একই সাথে ফিটনেসÑ নিবন্ধনবিহীন ও লাইসেন্স ছাড়া যান চলাচল বন্ধে বিবাদিদের নিষ্ক্রিয়তা ও ব্যর্থতা কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না এবং সংবিধানের ৩২ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী জীবন ও ব্যক্তির বাঁচার অধিকার রায় মোটরযান অধ্যাদেশ ১৯৮৩-এর বিধান বাস্তবায়নের নির্দেশ কেন দেয়া হবে না মর্মে রুল জারি করেন আদালত।


আরো সংবাদ

রংপুরে ট্রেনের ধাক্কায় নিহত ৪ করোনা আতঙ্কে আত্মহত্যা করলেন ইতালির নার্স অক্সিজেনের অভাবে শ্বাসকষ্টে প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ ফমেক হাসপাতালে নাগরপুরে করোনা প্রতিরোধে এসিল্যান্ডের নেতৃত্বে জীবাণুনাশক স্প্রে জ্বর থাকায় বের করে দিলেন স্বজনরা, আশ্রয় দিলেন ইউএনও করোনা মোকাবিলায় ৯৯.৯ ভাগ কার্যকরী অস্ত্র প্রস্তুত চীনের! মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বিনামূল্যে পিপিই সরবরাহ করবে ইউএস-বাংলা সৈয়দপুরে মাস্ক বিক্রি করে সংসার চালাচ্ছে শিশু শিক্ষার্থী করোনা উপসর্গে শ্বাসতন্ত্রের চিকিৎসায় ঝুঁকি কমাবে ফিজিওথেরাপি লাখো মানুষ পথেঘাটে, লকডাউন করে চরম বিপাকে মোদি বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে হেল্প লাইন চালু

সকল