২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

সাতক্ষীরায় নিখোঁজের ১০ দিন পর ৮ম শ্রেণীর ছাত্রের লাশ উদ্ধার

সাতক্ষীরায় নিখোঁজের ১০ দিন পর ৮ম শ্রেণীর ছাত্রের লাশ উদ্ধার -

সাতক্ষীরায় নিখোঁজ হওয়ার ১০ দিন পর ইজিবাইক চালক অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র ময়নুরের লাশ উদ্ধার করেছে সদর থানা পুলিশ। সোমবার বিকেল সোয়া ৪টার দিকে সদর উপজেলার আলীপুর ফিলিং স্টেশনের পিছনে অবস্থিত জয়েন্ট ব্রিক্সের একটি টয়লেটের সেফটিক ট্যাংকির মধ্য থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। রোববার গ্রেফতারকৃত ইজিবাইক ছিনতাইকারী কবির হোসেনের দেয়া স্বীকারোক্তি মোতাবেক পুলিশ ওই লাশ উদ্ধার করে।

নিহত ইজিবাইক চালক ময়নুর (১৪) সাতক্ষীরা সদর উপজেলার পাঁচরখী গ্রামের সুরত আলী গাজীর ছেলে। সে সদর উপজেলার রেউই মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের আষ্টম শ্রেণীর ছাত্র।

গ্রেফতারকৃত কবির হোসেন (৩৫) সাতক্ষীরা সদর উপজেলার আলীপুর গ্রামের অহাদ আলীর ছেলে। তার কাছ থেকে ময়নুরের ইজিবাইকসহ দু’টি ইজিবাইক উদ্ধার করা হয়।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত ৩০ জুলাই শুক্রবার বিকেল ৪টার দিকে ইজিবাইক চালানোর জন্য ময়নুর বাড়ি থেকে বের হয়। রাত ৮টায় ময়নুর তার বড় ভাইকে ফোন করে ঈদের জন্য সিমাই, চিনি আনবো কি না জিজ্ঞাসা করে। বড় ভাই তাকে বলেন আমি সিমাই চিনি কেনেছি, তুমি বাড়ি চলে আসো। কিন্তু দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হলেও ময়নুর ইজিবাইক নিয়ে বাড়ি ফেরেনি। এমনকি তার কাছে থাকা মোবাইলের দু’টি নম্বরও বন্ধ পাওয়া যায়। এসময় ময়নুরের পরিবার তাকে খুঁজতে বের হয়। রাতভর সম্ভব্য স্থানে খুঁজে না পেয়ে ময়নুরের ছোট চাচা আফসার আলী ১ আগস্ট শনিবার সাতক্ষীরা সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

এদিকে এঘটনায় সদর থানা পুলিশ রোববার সাতক্ষীরা সদর উপজেলার আলীপুর গ্রামের অহাদ আলীর ছেলে ইজিবাইক ছিনতাইকারী কবির হোসেনকে গ্রেফতার করে। তার দেয়া তথ্যমতে পুলিশ সোমবার বেলা আড়াইটার দিকে সদর উপজেলার ভোমরা সিলিমপুর গ্রামে কাবিরের শশুর বাড়ি থেকে ময়নুরের ইজিবাইকসহ ছিনতাইকৃত দু’টি ইজিবাইক উদ্ধার করে। পরে তার দেয়া স্বীকারোক্তি মোতাবেক আলীপুর গ্রামের মো: আব্দুস সবুর সরদারের মালিকানাধীন আলীপুর ফিলিং স্টেশনের পিছনে অবস্থিত জয়েন্ট ব্রিক্স নামের ইট ভাটার টয়লেটের সেফটিক ট্যাংকির মধ্য থেকে ময়নুরের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

সাতক্ষীরা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: আসাদুজ্জামান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ৩০ জুলাই সন্ধ্যায় ভোমরায় যাওয়ার কথা বলে সাতক্ষীরা শহরের খুলনা রোড মোড় থেকে ময়নুরের ইজিবাইক ভাড়া করে কবিরসহ তার আরো দুই সহযোগী। আলীপুর ফিলিং স্টেশনের সামনে পৌছানোর পর তারা ময়নুরকে জোরপূর্বক জয়েন্ট ব্রিক্স নামের ইটভাটায় নিয়ে যায়। সেখানে তারা তিনজন মিলে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর লাশ ইট ভাটার একটি টয়লেটের সেফটিক ট্যাংকির মধ্যে লুকিয়ে রাখে। এ ঘটনায় থানায় একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা।


আরো সংবাদ

নতুন বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র সামনে আনলো ইরান (১৮৬৭০)ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ : সেই রাতের ঘটনা আদালতকে জানালেন ভুক্তভোগী গৃহবধূ (১১২২১)ক্রিকেট ছেড়ে সাকিব এখন পাইকারি আড়তদার! (১০৩৭২)নর্দমা পরিষ্কার করতে গিয়ে ধরা পড়ল দৈত্যাকার ইঁদুর! (ভিডিও) (৮০৯৮)করোনার দ্বিতীয় ঢেউ : বাড়বে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি (৭৮৮১)আজারবাইজানের পাশে দাঁড়ালেন এরদোগান, আর্মেনিয়াকে হুমকি (৭০৭০)যে কারণে আবারো ভয়াবহ যুদ্ধে জড়ালো আর্মেনিয়া-আজারবাইজান (৬১১৬)ড. কামাল ও আসিফ নজরুল ঢাবি এলাকায় অবা‌ঞ্ছিত : সন‌জিত (৫৫৪১)সিসিবিরোধী অব্যাহত বিক্ষোভে উত্তাল মিসর (৫৪৫৪)এবার মথুরা! ঈদগাহ মসজিদ সরিয়ে জমি ফেরানোর দাবিতে আদালতে ‘‌ভগবান শ্রীকৃষ্ণ’‌ (৫২৭২)