১২ জুলাই ২০২০

ফ্লয়েড হত্যার প্রতিবাদ লিভারপুলের খেলোয়াড়দের

ফ্লয়েড হত্যার প্রতিবাদ লিভারপুলের খেলোয়াড়দের
ফ্লয়েড হত্যার প্রতিবাদ লিভারপুলের খেলোয়াড়দের - সংগৃহীত

পুলিশি হেফাজতে কৃষ্ণাঙ্গ মার্কিনি জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুতে উত্তাল আমেরিকা। জর্জকে শ্বাসরোধ করে মৃত্যুর প্রতিবাদ এবং ন্যায়বিচারের দাবিতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র জুড়ে ব্যাপক মাত্রায় বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে। শুধু মার্কিন মুলুকেই নয়, প্রতিবাদের ঝড় আছড়ে পড়েছে ব্রিটেনেও৷

লকডাউন পরবর্তী পর্যায়ে লিভারপুলের ফুটবলাররা সোমবার যুক্তরাষ্ট্রে নিরস্ত্র কৃষ্ণাঙ্গ ব্যক্তির মৃত্যুর পরে যে প্রতিবাদকারী রাস্তায় নেমেছিলেন তাদের প্রতি সংহতি প্রকাশ করেছেন। প্লেয়াররা ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার আন্দোলনে যোগ দিতে অ্যানফিল্ড সেন্টার-সার্কেলের আশেপাশে হাঁটু গেড়েছিল বসেছিলেন৷ যা আমেরিকা এবং অন্যান্য বিভিন্ন দেশে বর্ণবাদের অবসানের দাবিতে ছড়িয়ে পড়েছে।

ভার্জিল ভ্যান ডিজক, জেমস মিলনার, জো গোমেজ, অ্যান্ড্রু রবার্টসন, ট্রেন্ট আলেকজান্ডার-আর্নল্ড প্রমুখ খেলোয়াড়রা টুইটারে গিয়ে প্রশিক্ষণের অধিবেশন থেকে একটি দল শিরোনামের একটি ছবি শেয়ার করেছেন যার শিরোনাম ‘ইউনিটি ইস স্ট্রেনথ’। খেলোয়াড়দের টুইট করা ছবিগুলি লিভারপুলের অফিশিয়াল পৃষ্ঠায়ও একই শব্দ এবং হ্যাশট্যাগ # ব্ল্যাকলাইভস ম্যাটারের মাধ্যমে শেয়ার করা হয়৷

মিনিয়াপলিসের এক পুলিশ অফিসার আট মিনিটেরও বেশি সময় ধরে তার ঘাড়ে হাঁটু গেড়ে রাখার পরে জর্জ ফ্লয়েড নামে একজন নিরস্ত্র কৃষ্ণাঙ্গ ব্যক্তির মৃত্যু হয়৷ যা শহর এবং দেশের অন্যান্য অঞ্চলে বিক্ষোভের জন্ম দেয়। দিনের শুরুতে, বাস্কেটবল কিংবদন্তি মাইকেল জর্ডান অন্যান্য ক্রীড়াবিদদের সাথে যোগ দেন জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর প্রতিবাদ মিছিলে৷

ফ্লয়েডের মৃত্যুর পরে, নিউ ইয়র্ক এবং ওয়াশিংটন ডিসিসহ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি সহিংসতা ক্ষতিগ্রস্ত শহরজুড়ে ব্যাপক পরিমাণে অগ্নিসংযোগ, লুটপাট ও ভাঙচুরের খবর পাওয়া গেছে। বিক্ষোভকারীরা হোয়াইট হাউজের নিকটবর্তী সড়কের লক্ষণগুলিতে আগুন দিয়েছে এবং কার্ফিউ স্থির থাকা সত্ত্বেও বাইরের পরিস্থিতি উত্তেজনা বজায় রয়েছে।

মিনেয়াপোলিস পুলিশ কর্মকর্তা ডেরেক চাউভিনকে ফ্লয়েডের মৃত্যুর জন্য অভিযুক্ত করা হয়েছে। শিকাগো থেকে মিয়ামি, লস অ্যাঞ্জেলস থেকে হোয়াইট হাউস। বিক্ষোভের আগুন সর্বত্র। ফ্লয়েডের মৃত্যুর ন্যায়বিচারের দাবি তুলে প্রতিবাদ ওঠে বুন্দেশলিগার মঞ্চে। জ্যাডন স্যাঞ্চো থেকে আশরাফ হাকিমি, রোববার ‘জাস্টিস ফর জর্জ ফ্লয়েড’ দাবিতে সোচ্চার হলেন বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের দুই গোলস্কোরার। ‘জাস্টিস ফর জর্জ ফ্লয়েড’ লেখা টি-শার্ট পরেই এদিন মাঠে নামেন ইংরেজ স্ট্রাইকার স্যাঞ্চো।

স্যাঞ্চো ছাড়াও এদিন গোলের পর ফ্লয়েডের ন্যায়বিচারের দাবি করলেন স্প্যানিশজাত মরক্কোন ফুটবলার আশরাফ হাকিমি। রোববার অন্য আরেকটি ম্যাচে বরুসিয়া মনচেনগ্লাডবাচের মার্কাস থুরাম গোলের পর হাঁটু গেড়ে বসে শ্রদ্ধা জানান ফ্লয়েডকে। শনিবার অন্য একটি ম্যাচে মার্কিন ডিফেন্ডার ওয়েস্টন ম্যাকেনিকেও ‘জাস্টিস ফর জর্জ’ লেখা আর্মব্যান্ড পরে মাঠে দেখা যায়।


আরো সংবাদ