২৪ জানুয়ারি ২০২১
`

ব্রেক্সিট গণভোটের পর থেকে ইইউ দেশগুলোতে ব্রিটিশ অভিবাসন বেড়েছে ৩০ শতাংশ


অর্গানাইজেশন ফর ইকোনমিক কো-অপারেশন অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট (ওইসিডি) এবং ইউরোস্ট্যাট-এর তথ্য মতে ২০০৮ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত ব্রিটেন থেকে ইইউ-তে প্রতিবছর অভিবাসনের গড় হার ছিল ৫৬ হাজার ৮৩২ জন। কিন্তু ২০১৬ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত এই গড় হার বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ৭৩ হাজার ৬৪২ জন।

সমীক্ষায় আরো দেখা গেছে যে- ২০০৮ সাল থেকে ২০১৫ সালে যে হারে ব্রিটিশরা নাগরিকরা ইইউ নাগরিকত্ব নিয়েছিল, ব্রেক্সিট গণভোটের পর থেকে সেই হার প্রায় ৫০০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। এর মধ্যে শুধু জার্মানিতে বেড়েছে প্রায় ২০০০ শতাংশ। গণভোটের পর থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত ৩১ হাজার ৬০০ জন ব্রিটিশ নাগরিক জার্মানির নাগরিকত্ব নিয়েছেন। ২০১৯ সালে ১৪ হাজার ৬০০ জন অর্থ্যাৎ ধারণা করা হচ্ছে এই বছরের শেষে জার্মানির নাগরিকত্ব নেয়া ব্রিটিশদের সংখ্যা প্রায় এক লাখ বিশ হাজার হতে পারে।

বার্লিনের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এবং বার্লিন সোশ্যাল সায়েন্স সেন্টারের গবেষণার সহ-লেখক ড্যানিয়েল আওয়ার বলেন, যখন কোনো দেশ কোনো বড় ধরনের অর্থনৈতিক বা রাজনৈতিক সঙ্কটে পড়বে, তখনই কেবল এই ধরনের চিত্র দেখতে পাওয়া যায়।

ইউরোপের আরেক দেশ স্পেনেও বেড়েছে ব্রিটিশদের নাগরিকত্ব নেয়ার হিড়িক। প্রায় তিন লাখ আশি হাজার ব্রিটিশ বসবাস করছেন স্পেনে। ২০০৮ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত প্রতিবছর মাত্র ২৩০০ জন ব্রিটিশ নাগরিক সরকারি ভাবে বা আনুষ্ঠিানিক ভাবে অভিবাসনের জন্য রেজিস্ট্রেশন করত। যদিও ব্রিটিশদের কাছে স্পেনে বসবাস, চাকরি কিংবা ব্যবসার জন্য রেজিস্ট্রেশন বাধ্যবাধকতা ছিল না। কিন্তু ২০১৬ সালের ব্রেক্সিট গণভোটের পর সেটা বেড়েছে উল্লেখযোগ্য হারে। ২০১৬ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত প্রতিবছর গড়ে রেজিস্ট্রেশন করেছে ২১ হাজার ২৫০ জন।

গবেষণা প্রতিষ্ঠানের সহযোগী গবেষক ডেনিয়েল টেটলো বলেন, যে সকল ব্রিটিশরা আগে থেকেই ইইউ দেশে বসবাস করছেন তারা তাদের নিরাপত্তা বা সুরক্ষার জন্য সেই দেশের নাগরিকত্ব নিচ্ছেন। আগামী ১লা জানুয়ারী ২০২১ সালের পর থেকে কি হতে যাচ্ছে ব্রিটিশদের সাথে ইইউর সম্পর্ক তা এখনো পুরোপুরি অস্পস্ট। তাই ব্রিটিশরা ব্রেক্সিট পরবর্তী যে কোন ধরনের ঝুঁকি এড়ানোর জন্য ইইউ নাগরিকত্ব কিংবা দ্বৈত নাগরিকত্বের দিকে ঝুঁকছেন।



আরো সংবাদ