১৩ মে ২০২১
`

করোনায় পেছাতে পারে বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছপদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষা

করোনায় পেছাতে পারে বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছপদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষা - ছবি : নয়া দিগন্ত

করোনার অব্যাহত নাজুক পরিস্থিতিতে পেছাতে পারে বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছপদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা। শিক্ষার্থী অভিভাবক ও পরীক্ষাসংক্রান্ত কাজে নিয়োজিত ব্যক্তিদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা বিবেচনায় নিয়ে শিগগিরই এমন একটি ঘোষণা আসতে পারে। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন ইউজিসি এবং বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদের সংশ্লিষ্ট সূত্রে এমন আভাস পাওয়া গেছে।

সূত্র জানায়, আসন্ন ঈদুল ফিতরের পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের সব স্বায়ত্তশাসিত ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে চলতি বছরের স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা পুরোদমে শুরু হওয়ার কথা ছিল। সেই হিসাবে ২১ মে থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়াও ৩১ মে থেকে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) এবং ৬ জুন থেকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা শুরুর সম্ভাব্য তারিখ ঠিক করেছিল উপাচার্যদের সংগঠন বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদ। পরিকল্পনায় ছিল জুলাইয়ের মধ্যে সব স্বায়ত্তশাসিত ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে এ কার্যক্রম শেষ করা।

কিন্তু গত কয়েক সপ্তাহে দেশে করোনা পরিস্থিতির যে ভয়াবহ রূপ নিয়েছে তাতে এই পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থী এবং পরীক্ষা সংক্রান্ত কাজে নিয়োজিত ব্যক্তিদের করোনার ঝুঁকির বিষয় চিন্তা করে এই পরীক্ষা এখন নেয়াটা সঙ্গত মনে করছেন না সংশ্লিষ্টরা। অপর দিকে বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদ মনে করছে, শিক্ষার্থীসহ এর সাথে জড়িত সংশ্লিষ্ট সবার নিরাপত্তার বিষয়টি সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে এবারের স্নাতক ভর্তি পরীক্ষা নেয়া হবে। করোনা সংক্রমণ যদি নিয়ন্ত্রণে থাকে, তবেই যথাসময়ে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। আর পরিস্থিতি যদি স্বাভাবিক না হয়, তবে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সমন্বয়ে যথাযথ সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।
অন্যদিকে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) বলছে, করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় যদি পরীক্ষার তারিখ পেছানোর কোনো সিদ্ধান্ত নিতে হয়, তবে সেটা সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন নেবে। এ ক্ষেত্রে তাদের যেকোনো সিদ্ধান্তকে ইউজিসি সাধুবাদ জানাবে। বিশ্ববিদ্যালয়গুলো যদি সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষেত্রে কোনো পরামর্শ বা সহযোগিতার প্রয়োজন মনে করে, তবে সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে ইউজিসি।

পরীক্ষাসংক্রান্ত এর আগে দেয়া তথ্য মতে, আগামী ২১ মে থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা। তবে করোনা পরিস্থিতি যদি নিয়ন্ত্রণে না থাকে, তবে পরীক্ষা পেছাতে হতে পারে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। এ ব্যাপারে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো: আখতারুজ্জামান গণমাধ্যমকে বলেন, পরীক্ষা পেছাবে কি পেছাবে না সে বিষয়ে আগাম কিছু বলা ঠিক হবে না। আমরা সবকিছুই বিজ্ঞানসম্মত উপায়ে করে থাকি। ফলে পরিস্থিতি কোন দিকে যায় সেটি দেখে একটি বিজ্ঞানসম্মত সমাধান করা যাবে।

প্রসঙ্গত দেশে ৪৬টি স্বায়ত্তশাসিত ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে একাডেমিক কার্যক্রম চালু রয়েছে। এরমধ্যে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়া ৩৯টিতে সরাসরি ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তি হয়ে থাকে। অন্যদিকে সরকারি ও বেসরকারি মেডিক্যালে এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা ২ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হয়েছে আর ডেন্টালের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ৩০ এপ্রিল নির্ধারিত সময়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে না। দুয়েক দিনের মধ্যে নতুন তারিখ জানানোর কথা।

জানা গেছে, এবার তিন গুচ্ছে ২৯টি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। আর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় বাদে বাকিগুলোতে সরাসরি ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। গত ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি সময়ে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এবং মেডিক্যালে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষার সম্ভাব্য তারিখ ঠিক করে কর্তৃপক্ষ। ১৭ ফেব্রুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদের সভায় এসব তারিখ ঠিক করা হয়।

পূর্বনির্ধারিত সময় অনুযায়ী, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ভর্তি পরীক্ষা হবে আগামী ১০ জুন। এর আগে ৩১ মে বাছাই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রথমবারের মতো গুচ্ছ ভিত্তিতে অনুষ্ঠেয় তিনটি প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট, চুয়েট ও কুয়েট) পরীক্ষা হবে ১২ জুন। গুচ্ছ ভিত্তিতে সাত কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা হবে ৩১ জুলাই। আর প্রথমবারের মতো ২০টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা হবে তিন দিনে। এর মধ্যে বিজ্ঞান বিভাগের ১৯ জুন, মানবিক ২৬ জুন এবং বাণিজ্যের ৩ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে।



আরো সংবাদ