১৩ জুলাই ২০২০

বাংলাদেশের ব্যাটিং পাকিস্তানের চেয়েও পরিণত : আকিব জাভেদ

আকিব জাভেদ - ছবি : সংগৃহীত

বর্তমান সময়ে পাকিস্তানের চেয়ে বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং অনেক বেশি পরিনত বলে মন্তব্য করেছেন পাকিস্তানের সাবেক ফাস্ট বোলার আকিব জাবেদ। ১৯৯২ সালে পাকিস্তানের ক্রিকেট বিশ^কাপ শিরোপা জয়ে গুরুত্বপুর্ন ভুমিকা পালন করেছিলেন আকিব জাভেদ। ৯০ এর দশকে পাকিস্তানের বোলিং ইউনিট ছিল আগ্রাসী। ওয়াসিম আকরাম ও ওয়াকার ইউনুস কে নিয়ে গঠিত পাকিস্তান দলের বোলিং আগ্রাসনের কারনেই এশিয়ার এই জায়ান্ট দলটিকে সমীহ করতো বিশ্বের যে কোন প্রতিপক্ষ। দলটির বোলিং আক্রমনে মেরুদন্ড হিসেবে অপর যে বোলারটি ছিলেন তিনি হচ্ছেন আকিব জাভেদ।

১৯৯২ সালে পাকিস্তান দলের বিশ^কাপ ক্রিকেটের শিরোপা জয়ে ডানহাতি এই পেসারের ভুমিকা ছিল দুর্দান্ত। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে তিনি বাংলাদেশ ও পাকিস্তান ক্রিকেট দলের মধ্যে কিছু তুলনামুলক মন্তব্য করেছেন। সাবেক এই পাক পেসারের মতে বাংলাদেশের ব্যাটিং পাকিস্তানের চেয়েও পরিণত।

তিনি ক্রিকেট পাকিস্তানকে বলেন,‘ এই মুহুর্তে আপনি যদি পাকিস্তানের ব্যাটিংকে বাংলাদেশের সঙ্গে তুলনা করেন, তাহলে আপনি দেখবেন তারা পিছিয়ে নেই। ক্ষেত্র বিশেষে মনে হয়ে বাংলাদেশ অপেক্ষাকৃত পরিণত ব্যাটিং করছে এবং তাদের ব্যাটিং লাইনআপ পাকিস্তানের চেয়ে বেশী সমৃদ্ধ ও বৈচিত্র্যময়।

আকিব বলেন, সিমিত ওভারের ক্রিকেটে বাংলাদেশের দক্ষতা পাকিস্তানের চেয়ে বেশী। ৯০এর দশক ও ২০০০ সালের প্রথম দিকের কথা স্মরন করে জাবেদ বলেন, ওই সময় বাংলাদেশ খুব একটা ভাল দল ছিলনা। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) একাডেমিতে বিনিয়োগ দারুন কাজে এসেছে বলে মনে করেন তিনি। যার ফলে তারা সেরা ক্রিকেটারদের বের করে এনেছে বলে মন্তব্য করেছেন জাভেদ। সম্প্রতি জেলাভিত্তিক বাংলাদেশের ক্রিকেটের উন্নয়নে বোর্ডের উন্নয়ন কার্যক্রম সহায়তা কররছে বলেও মনে করেন এই পাক পেসার।

জাবেদ বলেন, ‘আমার এখনো মনে আছে বাংলাদেশের সঙ্গে পাকিস্তানের খেলার দৃশ্য। ওই সময় খেলা হতো একপেশে। কিন্তু এখন, বাংলাদেশ দলে যুক্ত হয়েছে সত্যিকারের মেধাবী ক্রিকেটার। যারা দলটিকে সর্বোচ্চ পর্যায়ে ধরে রেখেছে। এর প্রধান কারণ হচ্ছে বাংলাদেশ তাদের ক্রিকেটের উন্নয়নে খুবই মনোযোগী। জাতীয় একাডেমীর অধীনে তাদের রয়েছে খুব ভাল এবং ধারাবাহিক উন্নয়ন পরিকল্পনা। আমি যদি পাকিস্তানের সঙ্গে বাংলাদেশের তুলনা করি, তাহলে বলতে হয় সিমিত ওভারের ক্রিকেটে বাংলাদেশ পাকিস্তানের চেয়ে অনেক বেশী সমৃদ্ধ।’

জাভেদ বলেন, কয়েক বছর আগের তুলনায় বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সামর্থ্য ক্রমেই বেড়েছে। অন্তত একটি ফর্মেটে তারা বিশে^র সব টেস্ট প্লেয়িং দেশকে হারিয়েছে। তারা চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমি-ফাইনালে খেলারও যোগ্যতা অর্জন করেছে। সাম্প্রতিক সময়ে পাকিস্তানের চেয়ে বাংলাদেশ বেশী এশিয়ান কাপের ফাইনাল খেলেছে উল্লেখ করে জাভেদ বলেন, দেশটির জুনিয়র দলও নতুন ইতিহাস রচনা করেছে। এই বছরের শুরুতে জিতে নিয়েছে যুব বিশ^কাপের শিরোপা।

উল্লেখ্য পাকিস্তানের ডানহাতি পেসার আকিব জাবেদ তরুণ বয়সেই, মাত্র ২৮ বছর বয়সেই অবসর গ্রহন করেছেন ক্রিকেট থেকে। অবসরের আগে পাকিস্তান জাতীয় দলের হয়ে ১৬৩টি ওয়ানডে ম্যাচে অংশ নিয়ে দখল করেছেন ১৮২টি উইকেট। তিনি ২২টি টেস্টে অংশ নিয়ে সংগ্রহ করেছেন ৫৪টি উইকেট।

সূত্র : বাসস


আরো সংবাদ