০৪ মার্চ ২০২১
`

পাথরঘাটায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর ওপর হামলা ও বাড়ি ভাঙচুর : আহত অর্ধ শতাধিক

-

বরগুনা পাথরঘাটা পৌরসভা নির্বাচনে স্বতন্ত্রপ্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান সোহেলের গণসংযোগে ছাত্রলীগের অতর্কিত হামলায় এক ঘণ্টার মাথায় এমপি রিমনের নেতৃত্বে একদল ছাত্রলীগ কর্মী ফের তার বসতবাড়ি ও কয়েকটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে। ঘটনার ছবি তোলার সময় দু’জন সাংবাদিকের ক্যামেরা ও মোবাইল ছিনতাই করে নিয়ে যায় ছাত্রলীগ সদস্যরা। গতকাল মঙ্গলবার বিকেল ৩টা ৪৫ মিনিটের সময় কলেজ সড়ক এলাকায় এ হামলা চালায় তারা। এ সময় স্বতন্ত্রপ্রার্থী (নারিকেল গাছ মার্কা) মোস্তাফিজুর রহমান সোহেলসহ অর্ধশতাধিক লোক গুরুতর আহত হন। এর এক ঘণ্টা পরই মোস্তাফিজুর রহমান সোহেলের ঘরবাড়ি ও কয়েকটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করেছে নৌকা সমর্থকরা।
এ বিষয়ে পাথরঘাটা উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান সোহাগ বলেন, আমার ভাই স্বতন্ত্রপ্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল গণসংযোগ করতে গেছেন সেখানেই তার ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়েছে কালমেঘা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শহীদ আকনের লোকজন ও ছাত্রলীগের সদস্যরা। তারপর সেখান থেকে পুলিশ এসে আমাদের লোকজনকে চিকিৎসার জন্য স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেছে। আমার ভাইয়ের জীবনের নিরাপত্তার জন্য তাকে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। এ হামলার এক ঘণ্টার মাথায় বরগুনা দুই আসনের সংসদ সদস্য শওকত হাসানুর রহমান রিমন এমপি নিজে দাঁড়িয়ে থেকে ছাত্রলীগ যুবলীগ কর্মীদের দিয়ে আমার ঘরবাড়ি, সিসিটিভি ক্যামেরা, মাইক ও কয়েকটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করেছেন।
এ বিষয়ে বরগুনা পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর মল্লিক বলেন, হামলার ঘটনায় পুলিশ তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।
এ বিষয়ে পাথরঘাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও পৌর রিটার্নিং কর্মকর্তা সাবরিনা সুলতানা বলেন, আমি হামলার কথা শোনার পরে পুলিশকে অবহিত করলেও তারা আমাকে প্রটেকশন না দেয়ায় আমি তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিতে পারিনি।



আরো সংবাদ