০৫ ডিসেম্বর ২০২০

ওয়ানএমডিবি কেলেঙ্কারি, ৩০০ কোটি ডলার দেবে গোল্ডম্যান স্যাকস

ওয়ানএমডিবি কেলেঙ্কারি, ৩০০ কোটি ডলার দেবে গোল্ডম্যান স্যাকস - ছবি : সংগৃহীত

মালয়েশিয়ার বহুল আলোচিত ওয়ানএমডিবি দুর্নীতি কেলেঙ্কারিতে নিজেদের ভূমিকা স্বীকার করে চলমান তদন্ত বন্ধে প্রায় ৩০০ কোটি মার্কিন ডলার দিতে রাজি হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বহুজাতিক ব্যাংক গোল্ডম্যান স্যাকস। এই দুর্নীতির সাথে জড়িত মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের বিচার চলছে আদালতে।

ব্যাংকটির মালয়েশিয়ান শাখা বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের আদালতে স্বীকার করেছে, মালয়েশিয়ার রাষ্ট্রীয় তহবিল ওয়ান মালয়েশিয়া ডেভেলপমেন্ট বেরহাদের (ওয়ানএমডিবি) অর্থ সংগ্রহের কাজ পেতে একশো কোটিরও বেশি ঘুষ দিয়েছিল তারা। গোল্ডম্যান দুর্নীতি ঠেকাতে তাদের প্রাতিষ্ঠানিক ব্যর্থতার কথাও স্বীকার করে নিয়েছে।

মার্কিন কর্মকর্তারা বলছেন, রেকর্ড পরিমাণ অর্থের এই সমঝোতা প্রমাণ করে যে বড় ধরনের বিশ্বব্যাপী বহুল আলোচিত একটি দুর্নীতিতে কেন্দ্রীয় ভূমিকা পালন করেছে গোল্ডম্যান স্যাকস।

যে বহুল আলোচিত দুর্নীতি ব্যাংকটির সুনাম মারাত্মকভাবে বিপন্ন করেছে সেই দুর্নীতি থেকে আপাতত নিজেদের মুক্ত করার জন্য সব মিলিয়ে এখন মার্কিন এই বিনিয়োগ ব্যাংকটিকে এই কেলেঙ্কারির জন্য এখন ৫০০ কোটি মার্কিন ডলার পরিশোধ করতে হবে— যা ২০১৯ সালে ব্যাংকটির মোট মুনাফার দুই তৃতীয়াংশ।

গোল্ডম্যানের স্যাকসের পরিচালনা বোর্ড আরও বলেছে, অবসরপ্রাপ্ত প্রধান লয়েড ব্লাঙ্কফেইনসহ— যার নজরদারিতে এই কেলেঙ্কারিটি হয়েছে— কর্মকর্তাদের দেয়া ক্ষতিপূরণ পাওয়া যাবে ১৭৪ মিলিয়ন ডলার।

ব্যাংকটির এই পরিচালনা কর্তৃপক্ষ বিবৃতি দিয়ে বলেছে, ‘ওয়ানএমডিবি কেলেঙ্কারির ঘটনাটিকে প্রাতিষ্ঠানিক ব্যর্থতা হিসেবে বিবেচনা করছে বোর্ড। যা কোনোভাবেই প্রত্যাশিত নয়।’

গত ৮ আগস্ট মালয়েশিয়ার দুই বারের প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাককে আলোচিত ওয়ানএমডিবি দুর্নীতি মামলায় ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগে ১২ বছরের কারাদণ্ড দেন দেশটির একটি আদালত। একই সাথে তাকে প্রায় ৫ কোটি মার্কিন ডলার জরিমানা করা হয়। ২০০৯ সালে তিনি ক্ষমতায় থাকাকালীন এই তহবিল গঠিত হয়।

মালয়েশিয়ার রাষ্ট্রীয় তহবিল ওয়ানএমডিবির কোটি কোটি মার্কিন ডলারের দুর্নীতি কেলেঙ্কারি শুধু মালয়েশিয়ায় নয়, সারা বিশ্বেই আলোচিত। সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকসহ এই তহবিলের অর্থ তছরুপের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে মার্কিন ব্যাংক গোল্ডম্যান স্যাকস, নাজিবের সৎছেলেসহ অনেকে বিরুদ্ধে।

২০০৯ সালে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ার পর দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য ওয়ানএমডিবি নামে এই সার্বভৌম তহবিল গঠন করেছিলেন নাজিব নিজেই। বিদেশে অংশীদারির ব্যবসা ও বিনিয়োগের মাধ্যমে দেশের অর্থনীতি ত্বরান্বিত করতেই এটা প্রতিষ্ঠা করা হয়। কিন্তু দুর্নীতি তহবিলকে উইপোকার মতো খেয়ে ফেলে।


আরো সংবাদ

বড়শিতে ধরা পড়ল ২০ কেজির ডলফিন! বিজ্ঞানীদের মধ্যে আশা জাগাচ্ছে কোভিড-১৯ টিকা কাতারের সাথে বিরোধ নিষ্পত্তিতে ৪ আরব দেশের শীঘ্রই চুক্তি সিরাজদিখানে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে মন্দিরের প্রতিমা ভাংচুর খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তা নিশ্চিতে মাটির সজীবতা-গুণাগুণ বজায় রাখতে হবে : কৃষিমন্ত্রী আরো ৫০০ আফ্রিকান ইহুদি নিয়ে আসা হলো ইসরাইলে বাইডেনের প্রধান স্বাস্থ্য উপদেষ্টা হওয়ার প্রস্তাব গ্রহণ করলেন ফাউসি স্বৈরাচার পতন দিবস উপলক্ষে মিয়া গোলাম পরওয়ারের বিবৃতি টিকা নিলে নিজে নিরাপদ, অন্যের সুরক্ষা অনিশ্চিত! জানাল ফাইজার ভারতে তৈরি টিকা নেয়ার পরেই করোনাক্রান্ত হরিয়ানার স্বাস্থ্যমন্ত্রী মাছ চুরির মামলায় জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার জেলহাজতে

সকল

মানুষের মতো দেখলেও তাকে যে কারণে জঙ্গলে ফল-ঘাস খেয়ে থাকতে হয় (১০৬৬২)বায়তুল মোকাররমের সামনে ভাস্কর্যবিরোধীদের মিছিলে লাঠিচার্জ (৯২৬৬)ইরানি বিজ্ঞানী হত্যাকাণ্ডের পর এই প্রথম মুখ খুললেন বাইডেন (৯১৬১)রাজধানীতে সমাবেশের অনুমতি পায়নি সম্মিলিত ইসলামী দলগুলো (৭৪৬২)ভাস্কর্য, মহাকালের প্রেক্ষাপট (৭০৯১)কোনো মুসলিম হিন্দু নারীকে বিয়ে করতে পারে কিনা (৬৭৯৭)নাগর্নো-কারাবাখে জয় পেতে কত সৈন্য হারাতে হলো আজারবাইজানকে? (৬৭৯২)আমারও একটি ধর্ম আছে (৬২৮৯)নতুন পরমাণু কেন্দ্রে জ্বালানী ঢোকানোর কাজ শুরু করেছে পাকিস্তান (৫৫৪৩)ইরানের পরমাণু কর্মসূচির রিপোর্ট ফাঁসের নিন্দা রাশিয়ার (৫১৯২)