১১ জুলাই ২০২০

মুক্তি পাচ্ছে ২ হাজার তালেবান

আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি ২ হাজার তালেবান বন্দীর মুক্তি প্রক্রিয়া শুরু করতে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন। তার মুখপাত্র বলেছেন, ‘শুভেচ্ছার নিদর্শন’ হিসেবে এই বন্দীদের মুক্তি দেয়া হবে। ঈদুল ফিতর উপলক্ষে তালেবান অনেকটা হঠাৎ করিই সরকারের বিরুদ্ধে তিন দিনের যুদ্ধবিরতি ঘোষণা দেয়ায় প্রেসিডেন্ট গনি এই বন্দী মুক্তির পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছেন।

এর ফলে দেশটিতে শান্তি প্রক্রিয়া কার্যকর করা আরো সহজ হয়ে উঠবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ২০০১ সালে মার্কিন সামরিক অভিযানের পর ক্ষমতাচ্যুত হয় তালেবান। তবে দীর্ঘ ১৯ বছর ধরে যুদ্ধ চললেও দেশটিতে এখন পর্যন্ত তালেবান যোদ্ধাদের পরাজিত করতে পারেনি যুক্তরাষ্ট্র কিংবা তাদের সমর্থিত সরকার। এখনো নিয়মিত সরকারি ও মার্কিন বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াই, হামলা চালিয়ে যাচ্ছে সশস্ত্র গোষ্ঠিটি। যার ফলে দেশটিতে আসেনি শান্তি।

এ বছরের শুরুর দিকে শেষ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র তালেবানের সাথে শান্তি চুক্তিতে রাজি হয়েছে অনেকটা বাধ্য হয়েই। ফেব্রুয়ারিতে কাতারের রাজধানী দোহায় স্বাক্ষরিত হয়েছে চুক্তি। চুক্তির শর্ত অনুযায়ী যুক্তরাষ্ট্র ধীরে ধীরে দেশটি থেকে সৈন্য সরিয়ে নেবে এবং তালেবান বন্দীদের মুক্তি দেয়া হবে ক্রমান্বয়ে। চুক্তির শর্ত মতে, তালেবান এক হাজার সরকারি বাহিনীর সদস্যকে মুক্তি দেবে, বিনিময়ে ৫ হাজার তালেবান সদস্যকে মুক্তি দেবে সরকার।

সেই প্রক্রিয়াকে এগিয়ে নিতেই এই বন্দী মুক্তি দেয়া হচ্ছে বলে প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র সাদিক সিদ্দিকী টুইটারে জানিয়েছেন। প্রেসিডেন্ট গনি বলেছেন, সরকারের একটি প্রতিনিধি দল প্রস্তুত রয়েছে এ বিষয়ে তালেবানের সাথে আলোচনা শুরু করতে।

এদিকে তালেবানের যুদ্ধবিরতি ঘোষণা হওয়ার রোববার সকাল থেকে দুই পক্ষের মধ্যে কোন সংঘর্ষের খবর পাওয়া যায়নি। আলজাজিরা

 


আরো সংবাদ