১৫ ডিসেম্বর ২০১৯
ভাড়াটে দিয়ে পরীক্ষা

ফেঁসে গেলেন এমপি বুবলী

-

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে বিএ পাস পরীক্ষায় ভাড়াটে ছাত্রী দিয়ে পরীক্ষা দিতে গিয়ে ধরা পড়ে গেছেন নরসিংদীর সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি তামান্না নুসরাত বুবলী। তিনি ঢাকায় থেকে নরসিংদীতে আটজন ছাত্রী দিয়ে পরীক্ষা দেয়ার পর একটি বেসরকারি টেলিভিশনের সাংবাদিকদের হাতে ধরা পড়ে যান। সাংবাদিকরা ভাড়াটে ছাত্রীকে তার নাম জিজ্ঞাসা করলে সে প্রথমে নিজের নাম তামান্না নুসরাত বুবলী বলে দাবি করেন। পরে সাংবাদিকরা চ্যালেঞ্জ করলে সে তার আইডি কার্ড দেখাতে ব্যর্থ হন। এ সময় ঘটনা ফাঁস হয়ে যাওয়ায় প্রক্সি পরীক্ষা দিতে আসা ভাড়াটে ছাত্রীটি পরীক্ষার হল থেকে দ্রুত পালিয়ে যান। এ ঘটনা টিভি চ্যানেলসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হলে কলেজ কর্তৃপক্ষ এমপি তামান্না নুসরাত বুবলীকে বহিষ্কার করতে বাধ্য হন। এর আগে ঘটনা জানার পরও কলেজ কর্তৃপক্ষ এমপি বুবলী ও তার লোকজনের ভয়ে কোনো পদক্ষেপ নিতে পারেননি। কলেজ কর্তৃপক্ষ বলেছেন, ভাড়াটে ছাত্রীরা তাদের আইডি কার্ড হারিয়ে গেছে মর্মে জিডির কপি নিয়ে আসার কারণে তারা বুবলীর বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিতে পারেননি। বুবলী নিহত নরসিংদীর সাবেক পৌর মেয়র লোকমান হোসেনের স্ত্রী। বেসরকারি টেলিভিশনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে জমা দেয়া হলফনামা অনুযায়ী তামান্না নুসরাত বুবলী তার হলফনামায় উল্লেখ করেছেন যে তিনি এইচএসসি পাস। পরে উচ্চশিক্ষা অর্জনে তিনি উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে বিএ কোর্সে ভর্তি হন। জাতীয় সংসদের একজন এমপি হয়েও তিনি বিএ পাস করার জন্য অনিয়মের আশ্রয় নিয়েছেন। বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএ কোর্সে এ পর্যন্ত চারটি সেমিস্টার ও তেরোটি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হলেও তিনি একটিতেও অংশগ্রহণ করেননি। কিন্তু তারপক্ষে এখন পর্যন্ত আটজন নারী পরীক্ষা দিয়েছেন। সবাই সবকিছু জানলেও ভয়ে কেউ কিছু বলেননি।
পরীক্ষার হলে সংসদ সদস্যের রোল নাম্বারের সিটে বসা পরীক্ষার্থীকে প্রশ্ন করা হলে তিনি দাবি করেন তার নাম তামান্না নুসরাত বুবলী। পরে তার আইডি কার্ড আছে কি না জানতে চাইলে ওই পরীক্ষার্থী বলেন, তার সাথে আইডি নেই। পরে ওই প্রতিবেদক পরীক্ষার্থীকে জিজ্ঞেস করেন, তামান্না নুসরাত বুবলী একজন সংসদ সদস্য। তিনি এই সিটে পরীক্ষা দিচ্ছেন। তখন ওই পরীক্ষার্থী নিজেকে সংসদ সদস্য বলে দাবি করেন।
তবে কক্ষ পরিদর্শক জানিয়েছেন, ওই পরীক্ষার্থী দাবি করেছেন তার আইডি কার্ড হারিয়ে গেছে। সে জিডির কপি নিয়ে এসেছে। তাই তাকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে দেয়া হয়েছে। এ দিকে বিএ পরীক্ষায় অনিয়মের ঘটনা টেলিভিশন চ্যানেল ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার পর কলেজ কর্তৃপক্ষ এমপি বুবলীকে পরীক্ষা থেকে বহিষ্কার করেছেন এবং ঘটনা তদন্তে নরসিংদী সরকারি কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রধান প্রফেসর মোহাম্মদ উল্লাহ কাজলকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্যবিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন। এই কমিটিকে সাত দিনের ভেতরে তদন্ত রিপোর্ট পেশ করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
একটি সূত্র থেকে জানা গেছে, এমপি বুবলীর এপিএস পরীক্ষার দিন বহিরাগতদের নিয়ে কলেজ চত্বরে এসে বসে থাকত। তাকে সহযোগিতা করত স্থানীয় চিনিশপুর ইউনিয়ন পরিষদের একজন সচিব। স্থানীয় লোকজন এসব ঘটনা জানলেও মুখ খুলতে সাহস পেত না। এমপি বুবলীর নাম্বারে যোগাযোগ করে তাকে পাওয়া যায়নি।


আরো সংবাদ

দৃশ্যমান হচ্ছে বিশ্বের সর্ববৃহৎ ক্রিকেট স্টেডিয়ামের (২২০৭১)মাংস রান্নার গন্ধ পেয়ে বাঘের হানা, জঙ্গলে নিয়ে গিয়ে জ্যান্ত খেল নারীকে (২০৯৩০)ব্রিটেনের প্রথম হিজাব পরিহিতা এমপি বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত আপসানা (১৫৪৬৮)ব্রিটেনে বাংলাদেশ-ভারত-পাকিস্তানের যারা নির্বাচিত হলেন (১৪৪৪৫)ইসরাইলি জাহাজকে ধাওয়া তুর্কি নৌবাহিনীর (১৩৯২৭)চিকিৎসার নামে নারীর গোপনাঙ্গে হাত দিতেন ভারতীয় এই চিকিৎসক (১২৫২৯)৪ বোনের জন্ম-বিয়ে একই দিনে! (১০৯৩৯)বিক্ষোভের আগুন আসামে এতটা স্বতঃস্ফূর্তভাবে ছড়াবে, ভাবেননি অমিত শাহেরা (১০৮৩৪)কোন রীতিতে বিয়ে করলেন সৃজিত-মিথিলা? (১০১৬৬)নির্দেশনার অপেক্ষায় বিএনপির তৃণমূল (৯৮৩৯)



hacklink Paykwik Paykasa
Paykwik