ঢাকা, শনিবার,২০ এপ্রিল ২০১৯

প্রযুক্তি দিগন্ত

অনলাইনে কোরবানির হাট!

আহমেদ ইফতেখার

১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৫,শনিবার, ০০:০০


প্রিন্ট

ব্যাংকার রুহুল আমিন বৃষ্টি, ধুলাবালি পেরিয়ে হাটে গিয়ে গরু কেনা, তারপর তাকে বাড়িতে আনার ভোগান্তি পোহাতে রাজি নন। তাই এবার অনলাইনেই গরু কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। অনলাইনে পছন্দের গরু দেখে পছন্দ হলে সেটা দেখতে প্রয়োজনে বিক্রেতার কাছে চলে যাবেন, তা-ও হাটে যেতে নারাজ রুহুল। ২০১৩ সাল থেকে বিচ্ছিন্নভাবে দেশে অনলাইনে কোরবানির পশু ক্রয়-বিক্রয় শুরু হলেও এবার বেশ আগেভাবেই জমজমাট অনলাইনে পশুর হাট।
এখানেই ডটকম
দেশের অনলাইনভিত্তিক শ্রেণিবদ্ধ বিজ্ঞাপনের ওয়েবসাইট এখানেই ডটকমে (www.ekhanei.com) বিভিন্ন রকম কোরবানির পশুর বিজ্ঞাপন স্থান পেয়েছে। ঈদুল আজহার সময় যত এগিয়ে আসছে, ততই বাড়ছে বিজ্ঞাপনের পরিমাণ। ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে কোরবানির পশুর বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে ক্রেতারা সহজেই জেনে নিতে পারছেন দরদাম এবং অন্যান্য দরকারি তথ্য।
বিক্রেতারা জানিয়েছেন, এখানেই ডটকমে খুব সহজেই কোরবানির পশুর বিজ্ঞাপন দিতে পারছেন। পশুর বিক্রেতারা দরদাম নির্ধারণ করে বিজ্ঞাপন দিচ্ছেন। অনেক বিক্রেতা দরদাম আর ছবির সাথে পশুর ওজনও দিয়ে দিচ্ছেন। এতে করে মূল্যায়নের ক্ষেত্রে ক্রেতারা ঘরে বসেই সিদ্ধান্ত নিতে পারছেন। আর এতে খুব সহজে যে কেউ কোরবানির পশু পছন্দ করে, মোবাইলে যোগাযোগ করে দরদাম নির্ধারণ করতে পারছেন। দরদাম মিলে গেলে ক্রেতা নিজেই পশু সংগ্রহ করে নিতে পারবেন অথবা অনেক ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে বিক্রেতাই ক্রেতার বাসায় পৌঁছে দিচ্ছেন বিক্রি হয়ে যাওয়া পশু। এতে সময় যেমন বাঁচে, তেমনি হাটে ঘুরে কান্ত হওয়ার ঝক্কি থেকে বাঁচা যায়।
সাতীরার জাবেদ তালুকদার বাড়িতে পালন করা দু’টি গরু বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়েছেন এখানেই ডটকমে। প্রতিটি গরুর চার অ্যাঙ্গেল থেকে ছবি পোস্ট করেছেন। ছবি দেখে বাড়ি থেকে একটি কিনেও নিয়ে গেছেন একজন। বিক্রির বাকি থাকা একটি গরু কিনতে কয়েকজন ফোনে দামাদামিও করেছেন বলে জানিয়েছেন জাবেদ।
এখানেই ডটকম কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কোরবানির পশু কেনার ক্ষেত্রে ক্রেতাদের কষ্ট দূর করতে এখানেই ডটকম এ উদ্যোগ নিয়েছে। এতে বিক্রেতারাও লাভবান হচ্ছেন। কেননা আগে তাদের পশু এবং এর দাম কেবল হাটেই সীমাবদ্ধ থাকত। এখন তা হাটের বাইরেও চলে যাচ্ছে। যে কেউ যেকোনো এলাকা থেকেই ছবি আর দামসংক্রান্ত বিজ্ঞাপন দেখে ফোনে দরদাম করে সংগ্রহ করে নিতে পারছেন অথবা বিক্রেতা ক্রেতার বাসায় পৌঁছে দিচ্ছেন।
এখনই ডটকম
দেশের শীর্ষস্থানীয় ই-কমার্স ওয়েবসাইট এখনই ডটকম (www.akhoni.com) এবারের ঈদে অনলাইনে কোরবানির গরু কেনার সুযোগ দিচ্ছে। ঘরে কিংবা অফিসে বসে মাউসের কিকেই যে কেউ তার পছন্দের কোরবানির গরু কিনতে পারছেন। যানজটের এই ব্যস্ত নগরী ও মূল্যবান সময় নষ্ট করে কোরবানির হাটে গিয়ে পছন্দের পশু কেনা ভোগান্তির ব্যাপার। এ ছাড়া দালালদের খপ্পরে পড়া ও বিক্রেতাদের পশুর উচ্চমূল্যসহ নানা ভোগান্তি থেকে রেহাই দিতে এখনই ডটকম তাদের গ্রাহকদের জন্য অনলাইনে কোরবানির গরু কেনার এ সুবিধা নিয়ে এসেছে।
গ্রাহকদের যাতে ভোগান্তি না হয় সে জন্য যথাযথ দাম ও কোরবানির উপযোগী পশু বাছাই করে ভালোমানের ছবি তুলে সাজানো হয়েছে সাইটটিতে। ফলে একজন ক্রেতা সহজেই সাইটটি ভিজিট করে তার পছন্দের পশুটি কিনতে পারছেন। এখনই ডটকমের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শামীম আহসান জানিয়েছেন, এখনই ডটকম সব সময় তার ক্রেতাদের চাহিদানুযায়ী প্রয়োজনীয় নতুন পণ্য নিয়ে হাজির হয়। এরই ধারাবাহিকতায় এবারের ঈদে অনলাইনে কোরবানির পশু কেনার সুযোগ দিচ্ছে।
বিক্রয় ডটকম
বিক্রয় ডটকমে (www.bikroy.com) কাসিফাইড বা শ্রেণিবদ্ধ বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে ক্রেতারা গরু-ছাগল কিনতে পারছেন। ক্রেতাদের সুবিধার জন্য পশুর বয়স, দাঁতের সংখ্যা, ওজন, চামড়ার রঙ, জাত, জন্মস্থান ও প্রাপ্তিস্থানও দেয়া থাকে পোস্টে। ক্রেতারা চাইলে স্বচে পশু দেখতে যেতে পারেন। আর ছবি দেখে ক্রয় করতে চাইলে বিক্রেতা সেই পশু পৌঁছে দিচ্ছেন ক্রেতার ঘরে। বিক্রয় ডটকম কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ঈদুল আজহা উপলে পশু বিক্রেতাদের বিজ্ঞাপনের ব্যবস্থা করে দিয়েছে বিক্রয় ডটকম। এ ছাড়া পশু কেনার পর ক্রেতার বাড়িতে সেই পশু পৌঁছে দেয়ার দায়িত্ব নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। এ জন্য অবশ্য তিন হাজার টাকা ডেলিভারি চার্জ দিতে হবে ক্রেতাকে। অনলাইনে গরু বিক্রির ধারণা বাংলাদেশের জন্য কিছুটা নতুন হলেও এখানে ক্রয়ে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করছেন ক্রেতারা।
রাজশাহীর খামারি মাসুদ মোল্লা তার কালো রঙের গরুটি বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়েছেন বিক্রয় ডটকমে। তিন মণ ওজনের গরুটির দাম হেঁকেছেন ৫৭ হাজার টাকা।
মোবাইল ফোনে কথা হয় তার সাথে। মাসুদ জানান, খামারের ১৭টি গরু বিক্রির জন্য ছবি বিক্রয় ডটকমে পোস্ট করেছি। সেখান থেকে ছয়টি গরু ইতোমধ্যে বিক্রি হয়েছে। খামার থেকেও সরাসরি কয়েকটি বিক্রি হয়েছে।
আমারদেশ ই-শপ
কোরবানির পশুর হাট চলছে আমারদেশ ই-শপে। (amardesheshop.com) এর ভার্চুয়াল হাটে দেখা গেছে গোপালগঞ্জ, রংপুর, গাইবান্ধা, রাজশাহী ও বরিশাল অঞ্চলের দুই শতাধিক দেশী প্রজাতির গরু-ছাগল। এসব পশুর ছবির কোজ ভিউ ছাড়াও ওজন উল্লেখ করা হয়েছে আমারদেশ ই-শপে।
এসব সাইট ছাড়াও আরো কয়েকটি ই-কমার্স সাইটে পশু বিক্রি হচ্ছে।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫