মিয়ানমার সামরিক বাহিনীর প্রধানকে আন্তর্জাতিক আদালতে নিন : শতাধিক ব্রিটিশ এমপির চিঠি

কূটনৈতিক প্রতিবেদক
রাখাইনে সঙ্ঘটিত মানবতাবিরোধী অপরাধের জন্য মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর প্রধান মিন অংয়ের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে (আইসিসি) ব্যবস্থা নেয়ার জন্য ব্রিটেনের শতাধিক এমপি একটি চিঠিতে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসনের প্রতি আহŸান জানিয়েছেন। এতে ইউরোপীয় ইউনিয়ন মিয়ানমারের বিরুদ্ধে যাতে সর্বোচ্চ ব্যবস্থা নেয় তা নিশ্চিত করার জন্য ব্রিটিশ সরকারের প্রতি আহŸান জানানো হয়েছে। বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ এমপি রুশনারা আলীর উদ্যোগে শতাধিক এমপির স্বাক্ষরসহ চিঠিটি বরিস জনসনের কাছে পাঠানো হয়েছে।
প্রসঙ্গত, বিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সম্প্রতি বাংলাদেশ ও মিয়ানমার সফর করে দুই দেশের নেতাদের সাথে রোহিঙ্গা ইস্যুতে আলোচনা করেছেন। তিনি রোহিঙ্গাদের অবস্থা সরেজমিন দেখতে কক্সবাজার গেছেন। এ ছাড়া রাখাইনে চালানো ধ্বংসযজ্ঞও তিনি প্রত্যক্ষ করেছেন।
এমপিদের চিঠিতে রোহিঙ্গাদের ওপর সঙ্ঘটিত মানবতাবিরোধী অপরাধের জন্য আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে জেনারেল মিন অংয়ের বিচার করার জন্য ব্রিটিশ সরকারকে জাতিসঙ্ঘ নিরাপত্তা পরিষদে প্রয়োজনীয় পদপে নেয়ার আহŸান জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়, রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতন শুরু হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত ছয় লাখ ৮৮ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে। মেডিসিন স্যানস ফ্রন্টিয়ারের মতে, গত বছর এক মাসে সাত হাজার রোহিঙ্গাকে হত্যা করা হয়েছে। এর মধ্যে ৭৩০ জন শিশু রয়েছে। 
চিঠিতে আরো বলা হয়েছে, অসংখ্য প্রমাণ থাকার পরও মিয়ানমার সরকার ও সামরিক বাহিনী মানবতাবিরোধী অপরাধের কথা অস্বীকার করে আসছে। এ ছাড়া রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে যেসব আইন আছে তার কোনোটিই পরিবর্তন করা হয়নি। দুই বছর আগে (অং সান সু চির নেতৃত্বে) মতায় আসা বর্তমান মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গাদের অবস্থা উন্নয়নের জন্য কোনো পদপে নেয়নি। মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর প্রধান মিন অংয়ের বিরুদ্ধে কোনো পদপে না নেয়ার ঘটনা তাকে আরো বেশি সাহসী করে তুলছে।
ব্রিটিশ এমপিরা বলেছেন, নিরাপত্তা পরিষদে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে কোনো ধরনের প্রস্তাব দিলে চীন ও রাশিয়া তার বিরোধিতা করবে। এমন পরিস্থিতিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের উচিত হবে এই দু’টি দেশকে বোঝানো, যেন তারা (রোহিঙ্গা ইস্যুতে) নিজেদের অবস্থান পরিবর্তন করে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.