ঢাকা, মঙ্গলবার,২১ জানুয়ারি ২০২০

শেষের পাতা

রাজধানীতে তিন শিশু পাশবিক নির্যাতনের শিকার

তিন ধর্ষক গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৩ মে ২০১৭,শনিবার, ০০:০০


প্রিন্ট

রাজধানীর তিন শিশুকে পাশবিক নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। পৃথক এ ঘটনায় তিনজনকে গ্রেফতার করেছে সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলোÑ বাবু (২২), ইউসুফ (২৪) ও আইনুল হক (৬৫)। নির্যাতনের শিকার ওই শিশুদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, গত বৃহস্পতিবার দণিখান থানা এলাকায় একটি মোমের কারখানায় কাজ করার সময় ১৩ বছরের এক শিশুকে পাশবিক নির্যাতন চালায় মালিকের ছেলে ইউসুফ। এ ঘটনায় শিশুটির মা বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে শিশুটিকে মেডিক্যাল পরীার জন্য গতকাল দুপুরে পুলিশ ও স্বজনরা ঢাকা মেডিক্যালে ভর্তি করেন।
দণিখান থানার ওসি তপন চন্দ্র সাহা বলেন, শিশুটি মোম কারখানায় চাকরি করত। গত বৃহস্পতিবার কারখানায় ডিউটি করার সময় মালিকের ছেলে ইউসুফ (২৪) মেয়েটিকে ধর্ষণ করে। এই মামলায় ইউসুফকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
এ দিকে গত বৃহস্পতিবার ভাটারায় সাত বছরের এক শিশু পাশবিক নির্যাতনের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় স্থানীয়রা বাবু (২২) নামে এক যুবককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। শিশুটিকে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যালে ভর্তি করা হয়েছে। শিশুটির পরিবারের অভিযোগÑ ওই দিন সন্ধ্যা ৭টার দিকে বাবু শিশুটিকে তার ঘরে ডেকে নিয়ে পাশবিক নির্যাতন চালায়। এ সময় শিশুটির চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এসে বাবুকে আটক করে পুলিশে দেন। রাত ৩টার দিকে শিশুটির বাবা-মাসহ ভাটারা থানার এসআই নজরুল ইসলাম শিশুটিকে চিকিৎসার জন্য মেডিক্যালে ভর্তি করে। শিশুটি বাবা-মায়ের সঙ্গে জোয়ার সাহারায় একটি বাড়িতে বাস করে।
ভাটারা থানার এসআই নজরুল ইসলাম বলেন, অভিযুক্ত বাবুকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পরীা-নিরীক্ষার জন্য শিশুটিকে ঢাকা মেডিক্যালে ভর্তি করা হয়েছে।
অন্য দিকে উত্তরখানে সৎ বাবার বিরুদ্ধে ৯ বছরের শিশুকে পাশবিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। এই অভিযোগ করেছেন স্বয়ং শিশুটির মা। তিনি মামলা করার পর আসামি ৬৫ বছর বয়স্ক আইনুল হককে গতকাল গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বিকেলে শিশুটিকে ফরেনসিক পরীার জন্য ঢাকা মেডিক্যালে ভর্তি করা হয়েছে। শিশুটি উত্তরখানে একটি মাদরাসায় পড়াশুনা করে।
শিশুটির মা বলেন, গত বৃহস্পতিবার আমি মেয়েকে রেখে বাইরে গেলে তার সৎ বাবা আইনুল হক মেয়েটিকে একা পেয়ে নির্যাতন চালায়। পরে আমি রাতে ঘরে এলে আমাকে ঘটনা খুলে বলে আমার মেয়ে। তখন আমি নিজেই উত্তরখান থানায় যাই। পরে উত্তরখান থানা পুলিশ তদন্ত করে শুক্রবার দুপুরে একটি ধর্ষণ মামলা রেকর্ড করে এবং অভিযুক্ত আইনুল হককে গ্রেফতার করে। ওই নারী জানান, তার আগের স্বামীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ির পর ২০১৬ সালের শুরুতে ৬৫ বছরের আইনুল হককে বিয়ে করেন তিনি। তখন থেকেই তারা উত্তরখান মাজার চৌধুরী বাজার এলাকায় বসবাস করছেন।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫