মেয়েকে নিয়ে পূর্ণিমা

বিনোদন প্রতিবেদক
আজ ১৩ এপ্রিল। গত বছরের এই দিনে রাত ১০টা ২০ মিনিটে চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা প্রথম সন্তানের মা হন। প্রথম সন্তান একমাত্র মেয়ের নাম  (আরশিয়া উমায়জা) নিজেই রাখেন পূর্ণিমা। আজ আরশিয়া উমায়জার প্রথম জন্মদিন। তাই জন্মদিনটিকে বিশেষভাবে উদযাপন করতে বেশ কয়েক দিন ধরে পূর্ণিমা পরিকল্পনা করে আসছিলেন। কিন্তু আরশিয়া ছোট্ট বিধায় অনেক বড় পরিসরে অনুষ্ঠান করতে পারছেন না। তাই পারিবারিক আত্মীয়স্বজনের উপস্থিতিতেই তার মেয়ের প্রথম জন্মদিন উদযাপন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন পূর্ণিমা। 
রাজধানীর নিকুঞ্জতে পূর্ণিমার বাসাতেই আরশিয়া উমায়জার প্রথম জন্মদিন ঘরোয়াভাবে উদযাপন করা হবে। মেয়ের জন্ম নিয়ে স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে পূর্ণিমা বলেন, আমি কিন্তু নির্ধারিত সময়ের এক মাস আগেই মা হয়েছি। আমার বাসা নিকুঞ্জ হলেও আমাদের পারিবারিক ডাক্তার ডা: মুজিবর রহমান খান বসেন পুরান ঢাকার সালাউদ্দিন হসপিটালে। তার কাছে চেকআপ করাতে গিয়েই জানতে পারি যে, জরুরি ভিত্তিতে সিজারের মাধ্যমে সন্তান ভূমিষ্ঠ করতে হবে। আমার স্বামী ফাহাদ এ কথা বিশ্বাসই করতে চাইছিলেন না। আমরা কেউই আসলে মানসিকভাবে প্রস্তুতও ছিলাম না। কারণ আমাদের সাথে আর কেউই ছিলেন না। অবশেষে আল্লাহর রহমতে গত বছরের ১৩ এপ্রিল রাত ১০টা ২০ মিনিটে আমি কন্যা সন্তানের মা হলাম। সত্যিই সেদিনই বুঝলাম মা হওয়ার অনুভূতি কেমন। আমার সন্তানের জন্য সবাই দোয়া করবেন, যেন সে ভালো থাকে, সুস্থ থাকে। পূর্ণিমা বিশেষভাবে কৃতজ্ঞ ডাক্তার মুজিবর রহমান খান ও ডাক্তার ইসমত বানুর কাছে। পূর্ণিমা বলেন, মেয়ের জন্মটা পয়লা বৈশাখে হলে আরো ভালো লাগত। কিন্তু আল্লাহর রহমতের সময়টাকেই মেনে নিয়েছি। এ দিকে পূর্ণিমা আসছে ঈদের পর থেকে কাজে ফেরার সম্ভাবনার কথাও জানালেন। পূর্ণিমা অভিনীত মুক্তিপ্রাপ্ত সর্বশেষ চলচ্চিত্র হচ্ছে সোহানুর রহমান সোহান পরিচালিত লোভে পাপ পাপে মৃত্যু। এতে তার বিপরীতে ছিলেন আমিন খান ও রিয়াজ। 
মুক্তির অপেক্ষায় আছে মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ পরিচালিত ছায়াছবি চলচ্চিত্রটি। এতে তার বিপরীতে আছেন আরিফিন শুভ।  ১৯৯৭ সালে জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত এ জীবন তোমার আমার চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে দিলারা হানিফ রীতা ওরফে পূর্ণিমার চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে। এখন পর্যন্ত তার অভিনীত ৮০টি চলচ্চিত্র মুক্তি পেয়েছে। ২০১০ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে পূর্ণিমা কাজী হায়াত পরিচালিত ওরা আমাকে ভালো হতে দিলোনা চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য প্রথমবারের মতো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন। 
ছবি : গোলাম সাব্বির

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.