০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ২০ অগ্রহায়ন ১৪২৮, ২৯ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি
`

সন্তান প্রসবেও ব্যথা পাননি এই নারী, হতভম্ব বিজ্ঞানীরা


প্রসব যন্ত্রণাতেও এতটুকু বিচলিত হননি মানুষটা। সেই সময়টা মনে করলে এখন বলেন, আমি বুঝতাম, আমার শরীরে কিছু একটা বদল আসছে, কিন্তু ব্যথা হতো না তো। পরে হবু মায়েদের সাহস দিয়ে বেড়াতেন, ভয় পেও না। সবাই যেমন বলে, অত কিছু না। মা হওয়ার পর চল্লিশ বছর কেটে গেছে। জো ক্যামেরন এখন জানতে পারলেন, ব্যাপারটা আসলে ‘অত কিছু’ই, একটুও বাড়িয়ে বলতেন না মায়েরা।

জো ক্যমেরন। বয়স ৭১। সদ্য গবেষকরা জানতে পেরেছেন জো এর শরীরটাই অন্যরকম। আর পাঁচজনের থেকে আলাদা। ব্যথার বোধটাই চিরকাল কম ছিল জো-এর মধ্যে।

‘ব্রিটিশ জার্নাল অব অ্যানাস্থেশিয়া’তে প্রকাশিত গবেষণা বলছে জো-এর শরীরে একধরণের পরিব্যক্তি বা মিউটেশন হয়ে গিয়েছে। এর আগে এই জিনকে চিহ্নিত করা যায়নি। শরীরে সেই জিন চলে আসার ফলে সারা জীবনে কোনও রকম ব্যথাই অনুভব করেননি জো ক্যামেরন। এবার চিকিৎসক এবং গবেষকরা মানবদেহের ব্যথা নিরাময়ের কাজে ব্যবহার করতে চাইছেন জো এর শরীরের এই জিনকে।

ইউনিভার্সিটি কলেজ অব লন্ডনের গবেষক জন উড বললেন, আমরা এ ধরণের কেস আগে কখনও দেখিনি। গত ১০০ বছর ধরে জিনগত পরিব্যক্তি নিয়ে নানা রকম কেস নথিভুক্ত হয়েছে, কিন্তু এটা হয়নি।

বছর পাঁচেক আগে প্রথম চিকিৎসকেরা বুঝতে পারেন, ক্যামেরনের শরীরে এমন কিছু আছে, যা আর কারোর নেই। স্কটল্যান্ডে লচ নেস নদীর তীরে স্বামীর সঙ্গে থাকতেন জো। হাতের একটা অপারেশনের পর জো এর চিকিৎসকেরা দেখলেন তার হাতে তেমন ব্যথা হচ্ছে না। পেইন কিলার চাইছেন না জো।

আমি বলেছিলাম, আমার কোনও পেইন কিলার লাগবে না, জানালেন ক্যামেরন। ৬৫ বছর বয়সে ক্যামেরনের হিপ রিপ্লেসমেন্ট সার্জারি হয়। শরীরে কোনও রকম ব্যথা অনুভব না করায় ক্যামেরন বুঝতেই পারেননি কোমরের হাড় ক্রমশ ক্ষয়ে যেতে শুরু করেছে। কাটা, পোড়া, ছড়ে যাওয়া, ভেঙে যাওয়া, কিছুই অনুভব করতে পারেন না ক্যামেরন। আশ্চর্য ব্যাপার, হরদম কেটে ছড়ে যায় ক্যামেরনের, কিন্তু দাগও মিলিয়ে যায় সহজেই। তিনি, নিজে এর মধ্যে কোনও অস্বাভাবিকত্ব দেখতে পাননি। চিকিৎসকেরা সম্প্রতি জানিয়েছেন, এই দাগ মিলিয়ে যাওয়ার পেছনেও রয়েছে জিনগত পরিব্যক্তি।

ক্রমশ চিকিৎসক গবেষকদের আগ্রহ দেখে বিষয়টি নিয়ে পড়াশোনা শুরু করেন ক্যামেরন। একাধিক লেখা পড়ে জানতে পারেন অনেক অভিভাবকেরা খেয়াল করেছেন, তাদের সন্তানরা ব্যথা অনুভব করতে পারেন না, তাই সম্ভাব্য বিপদ থেকে সতর্ক হতেও শেখে না তারা।

সূত্র : ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস



আরো সংবাদ


সিরিয়ায় 'সন্ত্রাসী' সংগঠনকে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র ভারতে ইন্টারনেট ব্যবসা শুরুর আবেদন এলন মাস্কের দৈনিক নয়া দিগন্ত সাংবাদিক এরশাদ আলীর শাশুড়ির ইন্তেকাল চিলিতে করোনার ‘ওমিক্রন’ ধরন শনাক্ত মালয়েশিয়ায় নতুন করে ৪ হাজার ৮৯৬ জন করোনায় আক্রান্ত চাকরির পেছনে না ছুটে উদ্যোক্তা হবার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর খালেদা জিয়াকে হত্যার ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে দেশের অস্তিত্ব বিলুপ্তির চেষ্টা হচ্ছে : ফখরুল শহীদ সোহরাওয়ার্দী গণতন্ত্রের অভিযাত্রায় অনুপ্রেরণার উৎস হয়ে থাকবেন : কাদের ১১ ডিসেম্বর থেকে সব সিটিতে হাফ ভাড়া কনডেম সেলের আসামিদের তথ্য দাখিল না করায় হাইকোর্টের অসন্তোষ ইরানের আকাশ প্রতিরক্ষা ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ

সকল

ইসরাইলকে ইরানে গোয়েন্দা অভিযান চালাতে নিষেধ করল যুক্তরাষ্ট্র (১৪২৯২)‘ওমিক্রন’ থেকে বাঁচাতে স্ত্রী ও দুই সন্তানকে হত্যা করলেন চিকিৎসক (১১০২৯)ইরান ইস্যুতে আমেরিকা একঘরে হয়ে পড়েছে : ব্লিঙ্কেনের স্বীকারোক্তি (১০২১৩)এরদোগানকে হত্যার চেষ্টা! (৮০৯০)রুশ অস্ত্র কিনলে নিষেধাজ্ঞা, ভারতকে বার্তা যুক্তরাষ্ট্রের (৭৯১৫)বাংলাদেশ ভারতের পক্ষে যাবে না (৭৮৩৪)পাকিস্তানের বিরুদ্ধে হেরেও খুশি পাপন (৭২৬৯)যুক্তরাষ্ট্রকে রাশিয়ার হুঁশিয়ারি : প্রতিবেশীর ঘরে অস্ত্র ঢোকালে যুদ্ধ বাধবে (৬৫০৭)‘বুথে নয়, নৌকার ভোট হবে টেবিলের উপরে, পুলিশ প্রশাসনকে সেভাবেই দেখবো’ (৬০০১)জ্বর নেই, স্বাদ-গন্ধও ঠিক আছে! ওমিক্রন চেনার সহজ উপায় (৫৮২৬)