০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৯ মাঘ ১৪২৯, ১০ রজব ১৪৪৪
ads
`

ইউক্রেনে যুদ্ধ শেষ করার বিষয়ে পুতিনের সাথে কথা বলতে ইচ্ছুক বাইডেন

হোয়াইট হাউজে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ - ছবি : ভয়েস অফ আমেরিকা

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সাথে ইউক্রেনের বিরুদ্ধে মস্কোর যুদ্ধের অবসান ঘটানোর জন্য আলোচনার সম্ভাবনার কথা উত্থাপন করেছেন।

বৃহস্পতিবার তিনি এও জানান যে এখনো ১০ মাসের এই আক্রমণ বন্ধ করার জন্য পুতিনের পক্ষ থেকে কোনো সদিচ্ছা দেখতে পাননি।

বাইডেন বলেন, ‘আমি পুতিনের সাথে কথা বলতে প্রস্তুত কিন্তু শুধুমাত্র ন্যাটো মিত্রদের সাথে পরামর্শ করে।’ বাইডেন ইউক্রেন এবং অন্যান্য বিষয় নিয়ে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর সাথে কয়েক ঘণ্টা ব্যক্তিগত আলোচনার পর হোয়াইট হাউজের একটি সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, ‘পুতিনের সাথে যোগাযোগ করার কোনো তাৎক্ষণিক পরিকল্পনা আমার নেই। আমি নিজে থেকে এটা করতে যাচ্ছি না।’

বাইডেন বলেন, ‘এই যুদ্ধ শেষ করার একটি উপায় আছে, পুতিনকে ইউক্রেন থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। তিনি যা করছেন তা অসুস্থ কাজ। তিনি যদি যুদ্ধ শেষ করার উপায় খুঁজছেন, তবে তিনি তা করেননি।’

ম্যাক্রোঁ বলেন, তিনি আস্থাশীল যে যুক্তরাষ্ট্র আরো সামরিক ও মানবিক সহায়তা দিয়ে ইউক্রেনের প্রতি সমর্থন অব্যাহত রাখবে।

তাদের এই ব্যক্তিগত আলোচনার আগে, ফরাসী নেতা ম্যাক্রোঁকে বাইডেন উষ্ণ অভ্যর্থনা জানিয়েছেন। বাইডেনের ক্ষমতায় থাকার সময়ে একজন ফরাসী নেতার এটি যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম রাষ্ট্রীয় সফর। বাইডেন বলেন, ‘ফ্রান্স এবং যুক্তরাষ্ট্র ভ্লাদিমির পুতিনের উচ্চাকাঙ্ক্ষার মুখোমুখি হচ্ছে।’

বাইডেন আরো বলেন, ‘আমাদের প্রতিরক্ষার জন্য আমাদের দু’দেশের মধ্যে জোট অপরিহার্য। যুক্তরাষ্ট্রের জন্য ফ্রান্সের চেয়ে আর ভালো অংশীদার কেউ হতে পারে না।’ তিনি ফ্রান্সকে ‘আমাদের প্রাচীনতম মিত্র এবং স্বাধীনতার লক্ষ্যে অটল অংশীদার’ হিসেবে বর্ণনা করেন।

ওয়াশিংটনে একটি রৌদ্রোজ্জ্বল কিন্তু শীতের সকালে কথা বলতে গিয়ে ম্যাক্রোঁ বলেন যে পুতিনের আক্রমণ এখন ১০ম মাসে, যুক্তরাষ্ট্র এবং ফ্রান্সকে ‘আরো একবার যুদ্ধে একসাথে হতে হবে।’ তিনি বলেন যে ওয়াশিংটন এবং প্যারিস ‘স্বাধীনতা এবং গণতান্ত্রিক মূল্যবোধে একই বিশ্বাস রাখে।’

একজন বিদেশী নেতার জন্য হোয়াইট হাউজের রাষ্ট্রীয় সফরের আড়ম্বরতা পূর্ণ প্রকাশ ঘটেছিল। প্রেসিডেন্ট বাইডেন এবং ফার্স্ট লেডি জিল বাইডেন, ম্যাক্রোঁ এবং তার স্ত্রী ব্রিজিট ম্যাক্রোঁকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন এবং তারপর একটি ব্যান্ডের সদস্যরা ঔপনিবেশিক ইউনিফর্মে দু’টি দেশের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করেছে। ম্যাক্রোঁর সম্মানে ২১ বার বন্দুকের তোপধ্বনি বেজে ওঠে।

দু’নেতা ইউক্রেনের প্রতি তাদের চলমান সমর্থন ছাড়াও বিভিন্ন বিষয়ে আলাপ করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্র ও ফরাসি কর্মকর্তারা বলেন, ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলে চীনের প্রভাব, ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি এবং আফ্রিকার সাহেল অঞ্চলের নিরাপত্তাও আলোচ্যসূচিতে থাকবে। এক বছর আগে, যুক্তরাষ্ট্র অস্ট্রেলিয়ার কাছে পরমাণু চালিত সাবমেরিন বিক্রি করতে রাজি হয়ে ফ্রান্সকে ক্ষুব্ধ করেছিল, কারণ ফ্রান্স থেকে ডিজেল-ইলেকট্রিক সাবমেরিন কেনার জন্য প্রায় এক হাজার কোটি ডলারের চুক্তি বাতিল করতে অস্ট্রেলিয়া প্ররোচিত হয়েছিল।

বাইডেন দম্পতি, ম্যাক্রোঁ এবং তার স্ত্রীকে বুধবার সন্ধ্যায় পটোম্যাক নদীর পাড়ে একটি অভিজাত ইতালীয় সামুদ্রিক খাবারের রেস্তোরাঁ ফিওলা মেরেতে আপ্যায়ন করেন।

সূত্র : ভয়েস অফ আমেরিকা


আরো সংবাদ


premium cement
ঢাবির শিক্ষক রহমত উল্লাহর একাডেমিক কার্যক্রম চালাতে বাধা নেই শর্তসাপেক্ষে ‘ফারাজ’ চলচ্চিত্র মুক্তির অনুমতি দিয়েছে দিল্লি হাইকোর্ট গাজায় ফের ইসরাইলি বিমান হামলা আশুগঞ্জে ঘরের সিঁধ কেটে মা ও ২ সন্তানকে কুপিয়ে জখম শেয়ার বাজারে শেষ ৯ দিনে একটানা দরপতন আদানি শেয়ারের ইউক্রেন পৌঁছেছেন ইইউ প্রধান এলপিজির দাম বাড়লো আরো ২৬৬ টাকা সামরিক ঘাঁটিতে আরো বেশি মার্কিন প্রবেশ দিতে সম্মত ফিলিপাইন বিভাগীয় সমাবেশ উপলক্ষে ঠাকুরগাঁওয়ে বিএনপির বর্ধিত সভা সরকার অত্যন্ত পরিকল্পিতভাবে গণতন্ত্রকে ধ্বংস করে দিয়েছে : মির্জা ফখরুল ৮৫০ দিন পর মুক্তি পেলেন সেই ভারতীয় মুসলিম সাংবাদিক

সকল