২০ এপ্রিল ২০২১
`

সৌদি যুবরাজের অনুগত বিশেষ বাহিনী বিলুপ্তিতে যুক্তরাষ্ট্রের আহ্বান

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দফতর - ছবি : সংগৃহীত

নির্বাসনে থাকা সৌদি সাংবাদিক ও যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদপত্র ওয়াশিংটন পোস্টের নিবন্ধক জামাল খাশোগিকে হত্যায় সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের অনুগত সৌদি রয়্যাল গার্ডের বিশেষ এক বাহিনীকে বিলুপ্ত করার আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র এই আহ্বান করেন।

এর আগে শুক্রবার জামাল খাশোগির হত্যায় যুক্তরাষ্ট্রের ডাইরেক্টর অব ন্যাশনাল ইনটেলিজেন্সের দফতর মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর সহায়তা নিয়ে প্রস্তুত এক প্রতিবেদন প্রকাশ করে। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৮ সালে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের অনুমোদনেই তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটে জামাল খাশোগিকে বন্দী বা হত্যার অভিযান চালানো হয়।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইস বলেন, ‘সৌদি রয়্যাল গার্ডের ইউনিট র‌্যাপিড ইন্টারভেনশন ফোর্সের বিষয়ে আমরা অবগত আছি, যারা ভিন্নমতাবলম্বীদের দমনের সাথে যুক্ত, যার ফলে জামাল খাশোগির নিষ্ঠুর হত্যাকাণ্ড ঘটেছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা সৌদি আরবের কাছে আহ্বান করছি এই বাহিনীকে বিলুপ্ত করার এবং প্রাতিষ্ঠানিক, নিয়মতান্ত্রিক সংস্কার গ্রহণ করার। পাশাপাশি ভিন্নমতাবলম্বীদের দমন অভিযান সম্পূর্ণ বন্ধ নিশ্চিত করার আহ্বান জানাচ্ছি।’

ভিন্নমতাবলম্বীদের দমন ছাড়াও, বিশেষ এই বাহিনী মোহাম্মদ বিন সালমানের ব্যক্তিগত নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিল।

সৌদি রাজপরিবারের ঘনিষ্ঠ থাকা জামাল খাশোগি সৌদি আরবের ডি ফ্যাক্টো শাসক যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ও তার নীতির কড়া সমালোচক ছিলেন। যুবরাজের সমালোচনার জেরে তিনি দেশ ছেড়ে নির্বাসনে ছিলেন।

তুর্কি নাগরিক ও গবেষক খাদিজা চেঙ্গিসকে বিয়ের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র তৈরি করতে গেলে ওয়াশিংটন পোস্টের এই নিবন্ধককে ২০১৮ সালের ২ অক্টোবর ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে হত্যা করে লাশ টুকরা টুকরা করা হয়।

সৌদি কর্তৃপক্ষ প্রথমে হত্যাকাণ্ডের বিষয় অস্বীকার করলেও পরে তারা জানায়, কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদের সময় দুর্ঘটনাক্রমে এই হত্যাকাণ্ড সংগঠিত হয়।

সূত্র : আনাদোলু এজেন্সি



আরো সংবাদ