২১ অক্টোবর ২০২০

স্ত্রীর মৃত্যুতে অক্সিজেন মাস্ক খুলে মারা গেলেন স্বামীও

স্ত্রী মেরিকে ছাড়া বাঁচতে চাননি ডার্টনাল। - ছবি : বিবিসি

করোনাভাইরাসে প্রতিদিন চলছে মৃত্যুর মিছিল। মানুষ হারাচ্ছে তার আপনজনকে। পিপিই সংকট, নতুন আক্রান্ত, লাশ দাফনে জটিলতা, ভ্যাকসিন এমন নানা জটিলতায় ভুগছে বিশ্ব। কিন্তু শত জটিলতার মাঝেও মানুষ ভালোবাসার পরিচয় দিতে ভোলেনি। এবার করোনাভাইরাস ৬০ বছরের এক দম্পতির ভালোবাসার সাক্ষী হয়েছে। স্ত্রীর করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর পর স্বামীও একই দিনে মারা গেলেন।

স্ত্রী মেরির মৃত্যুর সংবাদ জানার পর স্বামী বিল ডার্টনাল করোনার বিরুদ্ধে লড়াই না করেই স্বেচ্ছামৃত্যুর সিদ্ধান্ত নেন। অর্থাৎ তিনি তার অক্সিজেন মাস্কটি খুলে ফেলেন। তিনি সন্তানদের বলেন, তাদের মাকে ছাড়া তিনি বেঁচে থাকতে চান না।

যুক্তরাজ্যে সাউথাম্পটন জেনারেল হাসপাতালে ৮১ বছর বয়সী স্ত্রীর মৃত্যুর পর ৯০ বছরের তার বৃদ্ধ স্বামী স্বেচ্ছায় মৃত্যু বরণ করে ভালোবাসার এক অনন্য দৃষ্টান্ত তৈরি করেছেন। তারা দুইজনই ওই হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

মিসেস ডার্টনালকে মার্চে যখন হাসপাতালে নেয়া হয় তখন সাউথাম্পটনের হলিডে ইন হোটেলে একটি অস্থায়ী কেয়ার হোমে ছিলেন ৬৩ বছর আগে বিয়ে করা এ দম্পতি।

তাদের মেয়ে রোজমেরি জানায়, মায়ের মৃত্যুর পর বাবা আর বেঁচে থাকতে চাননি। তারা এক সাথে একটি টিমের মতো ছিলেন। জীবনে সব দুঃখ-কষ্ট একসাথে পাড়ি দিয়েছেন। এখন মারাও গেলেন এক সাথে।

তিনি আরো বলেন, বাবা মাকে একসাথে হারানো আমাদের জন্য অত্যন্ত দুঃখজনক। কিন্তু জীবনের শেষ মুহূর্তে তারা একসাথে থাকতে পেরেছেন এটি ও অনেক কঠিন সময় তাদের পাড় করতে হয়েছে।

রোজমেরি আরো বলেন, বাবা-মা বিশেষ মানুষ ছিলেন। তারা সারাজীবন অত্যন্ত কঠোর পরিশ্রম করেছে।

ব্রিটিশ ওই দম্পতি মৌমাছি পালনের কাজ করতেন।

সূত্র : বিবিসি


আরো সংবাদ

সকল