২৫ মে ২০২০

মার্কিন সিনেটের রিপোর্টে কাশ্মির ইস্যু

-

কাশ্মিরে মানবিক সঙ্কট অবসান ও যোগাযোগ ব্যবস্থা পূণর্বহাল চেয়ে প্রথম কোন পদক্ষেপ নিলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটররা। পররাষ্ট্র বিষয়ক সিনেট কমিটি তাদের এক রিপোর্টে জম্মু ও কাশ্মির বিষয়ে এই আবেদন জানিয়েছে। ২০২০ সালের পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক আইন প্রণয়নের ঠিক আগ মুহূর্তে এই রিপোর্টটি উঠল সিনেটে।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম দ্য হিন্দুর রিপোর্টে বলা হয়েছে, কাশ্মির ইস্যুতে এটিই যুক্তরাষ্ট্রের এমপিদের প্রথম কোন পদক্ষেপ। পত্রিকাটি বলছে, দুই মাস আগে কাশ্মিরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল হওয়ার পর এই প্রথম এ বিষয়ে ভারতের বিপক্ষে কোন পদক্ষেপ নিল যুক্তরাষ্ট্র।

কংগ্রেসের প্রতিনিধি দলের সদস্য হিসেবে সম্প্রতি ভারত সফর করা সিনেটর ক্রিস ভান হোলেন এই আবেদনের প্রস্তাব করেন। প্রস্তাবটিতে কাশ্মির পরিস্থিতি ছাড়াও ভারত-যুক্তরাষ্ট্র দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক, বাণিজ্য সম্পর্ক ও প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম বিক্রির বিষয় রয়েছে।

আর সেটি সিনেটে দাখিল করেছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠজন হিসেবে পরিচিত সিনিয়র রিপাবলিকান সিনেটর লিন্ডসে গ্রাহাম। তিনি বলেন, কমিটি কাশ্মিরের চলমান মানবিক সঙ্কট নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে এবং ভারত সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে দ্রুত সেখানকার টেলিফোন ও ইন্টারনেট সুবিধা চালু করার। এছাড়া কারফিউসহ অঞ্চলটি অচল করে রাখতে যেসব ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে সেগুলোও তুলে নিতে বলা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের মুক্তির দাবিও রয়েছে সেই রিপোর্টে।

সেপ্টেম্বরের ২৬ তারিখ ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি যখন যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছিলেন, তখইন রিপোর্টটি দাখিল করা হয়। রিপোর্টে কাশ্মিরের পরিস্থিতি নিয়ে ব্যাপক উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে।

সিনেটর ভান হোলেন বলেন, আমি আমার এই উদ্বেগগুলো প্রধানমন্ত্রী মোদিকে ব্যক্তিগতভাবে বলতে চেয়েছিলা; কিন্তু আমি তার সাথে সাক্ষাৎ করতে পারিনি।


আরো সংবাদ





maltepe evden eve nakliyat knight online indir hatay web tasarım ko cuce Friv gebze evden eve nakliyat buy Instagram likes www.catunited.com buy Instagram likes cheap Adiyaman tutunu