০৫ জুলাই ২০২২, ২১ আষাঢ় ১৪২৯, ৫ জিলহজ ১৪৪৩
`

২০ লাখ ডলারে নাইটহুড, প্রিন্স চালর্স চ্যারিটিতে প্রতারণার অভিযোগ

২০ লাখ ডলারে নাইটহুড, প্রিন্স চালর্স চ্যারিটিতে প্রতারণার অভিযোগ - ছবি : সংগৃহীত

ব্রিটিশ যুবরাজ চার্লসের দীর্ঘবছরের সঙ্গী। একইসঙ্গে চার্লস চ্যারিটির সঙ্গেও ঘনিষ্ঠভাবে যুক্ত। এমনই এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে উঠল প্রতারণার অভিযোগ। তাও আবার জনসেবামূলক ওই তহবিলের টাকা নিয়েই। স্কটল্যান্ড ইয়ার্ড ইতিমধ্যেই ওই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

জানা গেছে, সৌদি আরবের এক ধনকুবেরকে নাইটহুড সম্মান, ব্রিটিশ নাগরিকত্বসহ আরো সুযোগ-সুবিধা পাইয়ে দেয়া হয়েছিল। বেআইনিভাবে চুক্তি হয়েছিল যে, ব্রিটিশ নাগরিকত্ব পেতে হলে চার্লস চ্যারিটিতে ২০ লাখ ডলার দান করতে হবে। রাজিও হয়েছিলেন সেই সৌদি ধনকুবের। লন্ডনের এক সংবাদপত্রে সম্প্রতি ওই খবর প্রকাশিত হয়েছে। আর তাতেই টনক নড়ে লন্ডন পুলিশের। সূত্রের খবর, অভিযুক্ত ব্যক্তি দীর্ঘদিন যুবরাজের সহযোগী হিসেবে কাজ করছেন। তিনিই ওই সৌদি নাগরিককে নাইটহুড এবং ব্রিটিশ নাগরিকত্ব পাইয়ে দিয়েছিলেন। বদলে চ্যারিটিতে জমা পড়েছিল ২০ লাখ ডলার।

মেট্রোপলিটন পুলিস সার্ভিসের তরফে বুধবার জানানো হয়, সংবাদমাধ্যমের রিপোর্টের প্রেক্ষাপটে এবার সরকারিভাবে ওই মামলায় তদন্ত শুরু হবে। এক্ষেত্রে যুবরাজের ওই তহবিলে টাকার হিসাব খতিয়ে দেখা হবে। তবে এখনই কাউকে গ্রেপতার করা হয়নি বলে পুলিস জানিয়েছে।

অন্যদিকে চার্লসের দফতর জানিয়েছে, যে প্রতারণা নিয়ে তদন্ত চলছে তা প্রমাণ করার মতো কিছুই পুলিশ পায়নি। চার্লসের দফতর ক্ল্যারেন্স হাউস এও জানিয়েছে, তহবিলের সাহায্য নিয়ে যে অভিযোগ উঠেছে, সে ব্যাপারে যুবরাজ কিছুই জানেন না। যদিও তদন্তকারীরা বলছেন, চার্লস ঘনিষ্ঠ ওই অভিযুক্তের সাথে যে মধ্যস্থতাকারীদের কথা হয়েছিল সেই প্রমাণ হাতে এসেছে। তদন্তও সেই মতো এগনো হচ্ছে।
সূত্র : বর্তমান


আরো সংবাদ


premium cement