২৮ অক্টোবর ২০২১
`

ইংল্যান্ডে বাংলাদেশী স্কুলশিক্ষিকা ও একই পরিবারের ৪ জনের রহস্যজনক মৃত্যু

ইংল্যান্ডে বাংলাদেশী স্কুলশিক্ষিকা ও একই পরিবারের ৪ জনের রহস্যজনক মৃত্যু - ছবি সংগৃহীত

নিজের দুই সন্তান ও স্ত্রীসহ চারজন নিহতের ঘটনায় ভেঙে পড়েছেন যুক্তরাজ্যের ডার্বিশায়ার এলাকার কিলামার্শের বাসিন্দা জেসন বেনেট। স্থানীয় পুলিশ রহস্যজনক এ মৃত্যুর ঘটনার তদন্ত করছে। এদিকে বাংলাদেশী বংশদ্ভোত সাবিনা নেছা নামে এক স্কুল শিক্ষিকার রহস্যজনক মৃত্যুতে কমিউনিটিতে উদ্বেগের সৃষ্টি হয়েছে।

সাউথ ইষ্ট লন্ডনের কিডব্রুক এলাকার ক্যাটর পার্কে একটি কমিউনিটি সেন্টারের পাশে শনিবার বিকালে সাবিনার লাশ পাওয়া যায়।

জেসন বেনেটকে তার দুই শিশু ১১ বছর বয়সী জন পল এবং ১৩ বছর বয়সী লেসি বেনেটের কবরের পাশে স্মৃতিফলকে কান্নায় ভেঙে পড়তে দেখা যায়। এতে এক হৃদয়বিদারক দৃশ্যের সৃষ্টি হয়। তিনি বলেন, আমি মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছি, আমি শুধু আমার বাচ্চাদের একবার চুমু খেতে চাই, তাদেরকে বুকে ধরে রাখতে চাই।

নিজের ফেসবুকে পোস্টে বেনেট লিখেন, আমার সুন্দর ছেলে জন ও মিষ্টি মেয়ে লেসিকে আমার কাছ থেকে কেড়ে নেয়া হয়েছে। আমার প্রিয়তমা স্ত্রী টেরি তার জীবন হারিয়েছেন এবং লেসির সেরা বন্ধুকেও খুন করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, ডার্বিশায়ার কনস্টেবুলারিকে সেফিল্ডের কাছে কিল্লামার্শের চান্দোস ক্রিসেন্টের বাড়িতে রোববার সকালে বেনেটের স্ত্রী ৩৫ বছর বয়সী টেরি হ্যারিসকে তার দুই সন্তান এবং তাদের এক বন্ধুকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এসময় জেসন বেনেট বাড়িতে ছিলেন না।

পুলিশ এ ঘটনায় কিল্লামর্শের ৩১ বছর বয়সী এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে, হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িতদের খুঁজছে। সোমবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে ডার্বিশায়ার পুলিশের প্রধান র‍্যাচেল সোয়ান বলেন, গোয়েন্দাদের একটি দল মৃত্যু কী কারণে ঘটেছিল তা বোঝার জন্য দিন-রাত কাজ করছে। তিনি আরো জানান, এ ঘটনায় পূর্বের কোনো ঘটনার সংশ্লিষ্টতা খুঁজে পায়নি পুলিশ।

বাঙালি স্কুল শিক্ষক সাবিনা নেছার রহস্যজনক মৃত্যু
বাংলাদেশী বংশদ্ভোত স্কুলশিক্ষিকা সাবিনা নেছার (২৮) রহস্যজনক মৃত্যুতে কমিউনিটিতে উদ্বেগের সৃষ্টি হয়েছে। মেট পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত শনিবার বিকেলে সাবিনার লাশ পাওয়া যায় সাউথ ইষ্ট লন্ডনের কিডব্রুক এলাকার ক্যাটর পার্কে একটি কমিউনিটি সেন্টারের পাশে। সাবিনা লুইশাম রাশিগ্রিন প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষিকা ছিলেন ।

আরেকটি সূত্র জানায়, একজন স্কুলশিক্ষক হিসেবে তিনি অত্যন্ত দক্ষতার সাথে কর্মরত ছিলেন। স্কুলের প্রধান শিক্ষক সাবিনা সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে বলেন, তিনি অমায়িক ব্যবহারের অধিকারী ও একজন ভাল শিক্ষক ছিলেন। সাবিনা নেছার গ্রামের বাড়ি সিলেটের জগন্নাথপুর উপজেলার দাওরাইয়ে।

পুলিশ ঘটনার তদন্ত চালাচ্ছে, সাবিনার খুনি সন্দেহে ৪১ বছর বয়সী এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে ।



আরো সংবাদ


সাইফউদ্দিনের বিশ্বকাপ শেষ, দলে ফিরলেন রুবেল (২৪১৭৬)প্রয়োজনে সেনাবাহিনীকে সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর (১৭৪০৭)কাঁচপুরের বিশাল কারখানা বন্ধের পেছনে কারণ কী? (১৪৪৮৪)কেন ওভারটোন সেতুতে আত্মহত্যা করে কুকুররা (১৩৬২১)স্ত্রীকে বিক্রি করে স্মার্টফোন কিনল নাবালক স্বামী! (১২৫৩৮)পাকিস্তান জেতায় লাভ ভারতীয়দের! (১১৩৩৩)ওয়াকার ইউনিসের মন্তব্যে ক্ষুব্ধ ভারতীয় সাবেক ক্রিকেটার (৭৯৫৪)নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে পাকিস্তানের জয়ে ভারত আরো চাপে! (৭৬৭৪)ভারতে ফের ডুবোজাহাজের তথ্যপাচার, ৩ নৌ-কর্মকর্তা গ্রেফতার (৬৭৩৯)নির্বাচনের বিষয়ে বাংলাদেশের মানুষ সিদ্ধান্ত নেবেন : ডিকসন (৬৬৬৪)