১৫ জুলাই ২০২০

কমছে মৃত্যু, জুন থেকে ব্রিটেনে খুলছে স্কুল ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান

কমছে মৃত্যু, জুন থেকে ব্রিটেনে খুলছে স্কুল ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান -

কোভিড -১৯-এ আক্রান্ত হয়ে ব্রিটেনে ৩৭ হাজার মানুষ মারা গেলেও ধীরে ধীরে এই রোগে মৃতের সংখ্যা কমতে শুরু করেছে। একইসাথে কমেছে আক্রান্তের সংখ্যাও। ফলে স্বস্তি ফিরছে দেশটিতে।

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব দেখা দিলে ব্রিটেনে গত ২৩ মার্চ লকডাউনের ঘোষণা দেয় সরকার। ফার্মেসি ও নিত্য প্রয়োজনীয় পন্যের দোকান ছাড়া সব অফিস আদালত বন্ধ ঘোষণা করা হয়। মৃতের সংখ্যা কমার প্রেক্ষাপটে এখন লকডাউন শিথিল করার পরিকল্পনা করছে সরকার। সরকারের পরিকল্পনামতে আগামী ১ জুন থেকে ব্রিটেনের স্কুলগুলো চালু করা হবে। আর নিত্য প্রয়োজনীয় দোকানের পাশাপাশি অপ্রয়োজনীয় খুচরা দোকানগুলোও আগামী ১৫ জুন আবারও চালু করা যাবে।

ব্রিটেনে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা গত ছয় সপ্তাহের মধ্যে সর্বোচ্চ কমেছে। একই সাথে কমেছে আক্রান্তের সংখ্যাও। এই সংখ্যা ব্রিটেনে গত মার্চ মাস থেকে লকডাউন শুরু হওয়ার পর থেকে দ্বিতীয় সর্বনিম্ন। গত ২৪ ঘন্টায় (মঙ্গলবার ) ১৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর আগে গত সোমবার মারা গেছে ১২১ জন, রোববার ছিলো ১১৮ জন, শনিবার ছিলো ২৮২ , শুক্রবার ছিলো ৩৫১ জন। বৃহস্পতিবার ছিলো ৩৪৫, আর বুধবার ৩৬৩ জন। ১৬ থেকে ২৪ মে পর্যন্ত এক সপ্তাহে ব্রিটেনে করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা ৯৪২ জন। এপ্রিলের ৩ থেকে ৯ পর্যন্ত ওই সপ্তাহে করোনায় মৃতের সংখ্যা ছিলো ৩ হাজার ৮০১জন। ডিপার্টমেন্ট অব হেলথ এন্ড স্যোশাল কেয়ার জানিয়েছে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ২০০৪জন ,সোমবার হয়েছে ১৬২৫জন। গত রোববার ছিলো ২৪০৯ জন, শনিবার ছিলো ২৯৫৯ জন, শুক্রবার ছিলো ৩২৮৭ জন, । মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২লাখ ৬১ হাজার ১৮৪ জন।

১ জুন থেকে স্কুল খোলার পরিকল্পনা
এদিকে সরকারের পরিকল্পনা অনুযায়ী, আগামী ১ জুন ব্রিটেনের স্কুলগুলো চালু করা হবে। এজন্য স্কুলের শিক্ষক ও অভিভাবকদের প্রস্তুতি নিতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। যদিও তিনি নিজেও স্বীকার করেছেন সব স্কুল এক সাথে চালু করা সম্ভব নাও হতে পারে। সোমবার করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত প্রেসকনফারেন্সে তিনি স্কুল চালুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

বরিস জনসন বলেন, প্রথমে রিসিভশন, ইয়ার ওয়ান, ইয়ার টু ও ইয়ার সিক্সের ছাত্র-ছাত্রীরা স্কুলে যাবে। তিনি স্কুলের শিক্ষক ও অভিভাবকদের একত্রে আন্তরিকতার সাথে স্কুল চালু করার পরিকল্পনা নেয়ার আহবান জানান। তিনি জানান, আগামী বৃহস্পতিবারের মধ্যে সরকারের পূর্ণাঙ্গ গাইডলাইন প্রকাশ করে হবে। করোনাভাইরাসের মহামারি শুরু হলে গত ২০ মার্চ থেকে স্কুলগুলি বন্ধ করে দেয়া হয়।

প্রধানমন্ত্রী তার শীর্ষ উপদেষ্টা ডমিনিক কামিংসের উপর লকডাইন আইন ভঙ্গ করা নিয়ে সংবাদমাধ্যম ও রাজনীতিকদের মধ্যে ব্যাপক আলোচনার মধ্যেই তিনি স্কুল চালু করার উপর বেশ দৃঢ়ভাবে ঘোষণা দেন। তবে স্কুল চালু করা নিয়ে শিক্ষক ইউনিয়নসহ অভিভাবকদের মধ্যে বেশ মতভেদ রয়েছে।

১৫ জুন থেকে চালু হবে ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান
করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারনে প্রায় ১০ সপ্তাহ যাবত লকডাউনে রয়েছে ব্রিটেনে। সরকারের নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংয়ে আগামী মাস থেকে লকডাউন আরো শিথিলের ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী গতকাল। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণায় রয়েছে সকল নিত্য প্রয়োজনীয় দোকানের পাশাপাশি অপ্রয়োজনীয় খুচরা দোকানগুলোও আগামী ১৫ জুন থেকে ব্রিটেনে আবারও চালু করা যাবে। তবে এই পদক্ষেপটি করোনাভাইরাস বিরুদ্ধে চলমান অগ্রগতির উপর নির্ভরশীল এবং খুচরা বিক্রেতাদের দোকানদার ও শ্রমিকদের রক্ষার জন্য নতুন নির্দেশিকাগুলি মেনে চলতে হবে।
এদিকে আউটডোর মার্কেট এবং গাড়ির শোরুমগুলো ১ জুন থেকে আবার খোলার অনুমতি দেয়া হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী জনসন বলেন, খুচরা খাতের জন্য প্রয়োজনীয় সামাজিক দূরত্ব এবং স্বাস্থ্যবিধি মান পূরণের জন্য তাদের কী ব্যবস্থা নেয়া উচিত সে সম্পর্কে বিস্তারিত দিকনির্দেশনা প্রকাশ করা হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, আমি চাই মানুষ আত্মবিশ্বাসের সাথে নিরাপদে কেনাকাটা করুক। তবে তারা যেন সামাজিক দূরত্ব বিধি অনুসরণ করে।”

ব্রিটিশ রিটেইল কনসোর্টিয়াম সরকারের এই ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়ে বলে, দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে সরকারের আরো সুস্পষ্ট ঘোষণা প্রয়োজন। আর বিজনেস সেক্রেটারী অলোক শর্মা বলেছেন, ব্যবসা বানিজ্য শুরু হলে অর্থনীতি পূণর্গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। লক্ষ লক্ষ মানুষ কাজে ফিরে যেতে পারবে।

স্কটল্যান্ডে লকডাউন শিথিলের সিদ্ধান্ত বৃহস্পতিবার
গ্রেট ব্রিটেনের অন্যতম অংশ স্কটল্যান্ডের প্রধানন্ত্রী নিকোলা স্টারজন জানিয়েছেন কিছু কিছু ক্ষেত্রে লকডাউন শিথিল করতে যাচ্ছে তার সরকার। এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানানো হবে আগামী বৃহস্পতিবার।

এটি স্কটল্যান্ডের লকডাউন থেকে বের হয়ে আসার ৪ ধাপের প্রথম ধাপ হবে। নিকোলা স্টারজন জানিয়েছেন এই ঘোষণায় লোকজন বাইরে কাজ কর্মের অনুমতি থাকবে। একইসাথে কিভাবে নিরাপদে গণপরিবহন চলাচল করা যায় তারও একটি রূপরেখা প্রকাশিত হবে মঙ্গলবার। তবে তিনি এটিও বলেছেন আপাতত লোকজনকে ঘরেই থাকতে হবে। এদিকে স্কটল্যান্ডে গত ২৪ ঘন্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে।


আরো সংবাদ

ইতালিতে ফিরে যাওয়া ১৫০ বাংলাদেশী করোনায় আক্রান্ত ঈদের আগে-পরে নয় দিন গণপরিবহন বন্ধের খবরটি সঠিক নয় কয়েকটি গণমাধ্যমে ছাত্রশিবিরকে জড়িয়ে বানোয়াট খবর প্রকাশের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ সিংড়ায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, সড়ক ভেঙে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন সারিয়াকান্দিতে বন্যায় ফসলের ব্যাপক ক্ষতি খুমেক হাসপাতালে বিক্রি হচ্ছে করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট! ২১০০ সালে বিশ্বের জনসংখ্যা হবে ৮ শ’ ৮০ কোটি চবি ক্যাম্পাসে লকডাউন বাড়লো আরো ৮ দিন হঠাৎ কক্সবাজার সৈকতে ভেসে এলো বিপুল পরিমান বর্জ্য, কারণ কী? আমেরিকার সকল নাগরিককে মাস্ক পরার আহ্বান সিডিসি’র অতিরিক্ত ঘুম ও এর ক্ষতিকর দিকগুলো জেনে রাখুন

সকল