০২ জুন ২০২০

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হাসপাতালে, ঐক্যের ডাক রাণীর

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। করোনা নিয়ে আরো পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্যে রোববার তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদিকে ব্রিটেন ও কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর উদ্দেশ্যে দেয়া এক ব্যতিক্রমী ভাষণে রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথ ঐক্যের ডাক দিয়ে বলছেন, সম্মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে এই মহামারিকে ঠেকানো সম্ভব।

এদিকে করোনায় আক্রান্তের খবর দেয়ার এক সপ্তাহ পর আইসোলেশন থেকে বেরিয়ে জনসন (৫৫) শুক্রবার এক ভিডিও বার্তায় বলেন, শরীরে উচ্চতাপমাত্রার কারণে তিনি তার বাড়িতে থাকা অব্যাহত রাখবেন। তবে, ডাক্তারের পরামর্শে তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে বলে ডাউনিং স্ট্রিট থেকে বলা হয়েছে।

জনসন তার দায়িত্বপালনে ব্যর্থ হলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোমেনিক রাব প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করবেন। তবে, সরকারি সূত্রে বলা হয়েছে, জনসন এখনও দায়িত্ব পালন করছেন।

চিকিৎসা বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ডাক্তাররা জনসনের ফুসফুস ও হার্ট পরীক্ষা করবেন। এছাড়া তার লিভার ও কিডনিও পরীক্ষা করা হবে।
এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, জনসন সুস্থ হয়ে উঠবেন বলে তিনি আশা করেন। তিনি ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে তার বন্ধু হিসেবে উল্লেখ করে তাকে মহান নেতা হিসেবে বর্ণনা করেন।

এদিকে ব্রিটেনের রাণী তার ৬৮ বছরের শাসনকালে মাত্র চতুর্থবার এ ধরণের ভাষণ দেন। ভাষণে তিনি বলেন, সকলের সম্মিলিত প্রচষ্টায় করোনা ভাইরাস মোকাবেলা করা সম্ভব হবে। তিনি বলেন, ‘আমরা যৌথভাবে এই রোগ মোকাবেলা করছি। এবং আমি আপনাদের আশ্বস্ত করছি আমরা যদি ঐক্যবদ্ধ থাকি তাহলে বিজয়ী হব।’

রাণীর এ ভাষণ পশ্চিম লন্ডনের উইন্ডসর ক্যাসলে রেকর্ড করা হয়। করোনা ভাইরাসের কারণে পূর্ব সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে তাকে সেখানে স্থানান্তর করা হয়।

ব্রিটেনে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪৭,৮০৬ জন। মৃতের সংখ্যা ৪,৯৩৪ জন। এছাড়া বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১২ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। মারা গেছে ৬৮ হাজারেরও বেশি লোক। সূত্র : বাসস


আরো সংবাদ