০৬ এপ্রিল ২০২০

হামলাকারীকে ক্ষমা করে দিলেন লন্ডনের মুয়াজ্জিন

ছুরি হামলায় আহত লন্ডন কেন্দ্রীয় মসজিদের মুয়াজ্জিন হামলাকারী যুবককে ক্ষমার ঘোষণা দিয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার ২৯ বছর বয়সী যুবক ডানিয়েল হর্টোন (২৯) মসজিদের ধর্মীয় নেতা রাফাত মাগলাদকে (৭০) ছুরিকাঘাত করে। এতে তার কাঁধে মারাত্মক ক্ষত হয়। তবে চিকিৎসা নেয়ার পরদিনই তাকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। এতে তিনি শুক্রবার জুমার নামাজ আদায় করতে মসজিদে উপস্থিত হন। এ দিন তিনি ওই হামলাকারীকে ক্ষমা করে দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন।

একটি সচিত্র প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাফাত মাগলাদ ব্রিটেনের সবচেয়ে বড় অন্যতম ওই মসজিদের ধর্মীয় নেতা। তাকে ছুরিকাঘাত করায় মুসল্লিরা হামলাকারীকে ধরে ফেলেন। ডাকা হয় পুলিশকে। পুলিশ গিয়ে তাকে গ্রেফতার করে। তার বিরুদ্ধে ছুরিকাঘাতের অভিযোগ আনা হয়েছে। সাথে ব্লেড জাতীয় বস্তু বহনের অভিযোগও আনা হয়েছে। গতকাল শনিবার তাকে ওয়েস্টমিনস্টার ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে তোলা হয়।

শুক্রবার মসজিদে ফিরে রাফাত মাগলাদ বলেন, তিনি ওই হামলাকারীকে ক্ষমা করে দিয়েছেন। পেছন দিক থেকে রান্না ঘরে ব্যবহৃত ছুরি নিয়ে তার ওপর হামলা চালিয়েছিল হার্টোন। এতে তার গলা বা কাঁধে বেশ বড় অংশ কেটে যায়। তিনি এতে অচেতন হয়ে পড়েন। সাথে সাথে হামলাকারীকে ধরে ফেলেন উপস্থিত মুসল্লিরা। অন্যরা মাগলাদকে মসজিদের ভেতরেই প্রাথমিক চিকিৎসা দিতে থাকেন। ঘটনা জানানো হয় পুলিশকে। বিকেল ৩টার পরে মেট্রোপলিটন পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে এবং সন্দেহভাজন হিসেবে গ্রেফতার করে হামলাকারীকে। এ দিকে শুক্রবার সকালেই মসজিদে গিয়ে যোগ দিলে তাকে ঘিরে ধরেছিলেন নিরাপত্তা কর্মীরা। এমন অবস্থায় মাগলাদ বলেছেন, আমি তাকে ক্ষমা করে দিয়েছি। তার বিরুদ্ধে আমার কোনো ক্ষোভ বা ঘৃণা নেই। হামলাকারীও তো একজন মানবসন্তান। আমার ক্ষেত্রে যেটা ঘটেছে তা আমার ভাগ্য।

হামলাকারীর বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন
এ দিকে মুয়াজ্জিনের ওপর ছুরি দিয়ে হামলার ঘটনায় আটক ডেনিয়্যাল হর্টোন নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়েছে। শুক্রবার ২৯ বছর বয়সী ডেনিয়্যাল হর্টোনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়েছে বলে ব্রিটেন পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। ডেনিয়্যাল হর্টোনকে গতকাল শনিবার ওয়েস্টমিনিস্টার ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয় বলেও ব্রিটেন পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে। সূত্র : ডেইলি মেইল।


আরো সংবাদ