১০ ডিসেম্বর ২০২২, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

সুইডেন-ফিনল্যান্ডের ন্যাটো সদস্য পদ প্রাপ্তিতে ভেটো দেয়ার হুমকি এরদোয়ানের

সুইডেন-ফিনল্যান্ডের ন্যাটো সদস্য পদ প্রাপ্তিতে ভেটো দেয়ার হুমকি এরদোয়ানের - ফাইল ছবি

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান শনিবার সুইডেন এবং ফিনল্যান্ডের ন্যাটো সদস্যপদ প্রাপ্তির প্রচেষ্টাকে আবারো রুখে দেয়ার হুমকি দিয়েছেন। তিনি বলেন, এই দুটি নর্ডিক দেশ আঙ্কারার কাছে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, তা বাস্তবায়ন না করা পর্যন্ত তিনি তার অনুমোদন দেবেন না।

আঙ্কারায় পার্লামেন্টে দেয়া ভাষণে এরদোগান বলেন, আমাদের দেশের প্রতি দেয়া প্রতিশ্রুতি বহাল না হওয়া পর্যন্ত, আমরা আমাদের নীতিগত অবস্থান বজায় রাখব।

বিশদ বিবরণ ছাড়াই তিনি বলেন, সুইডেন এবং ফিনল্যান্ডের দেয়া প্রতিশ্রুতিগুলো বাস্তবায়ন করা হয়েছে কিনা, তা আমরা নিবিড়ভাবে অনুসরণ করছি এবং অবশ্যই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আমাদের মহান সংসদের উপর নির্ভর করবে।

আঙ্কারা প্রথমে বলেছিল, তারা পশ্চিমা জোটে দেশ দুটির সদস্যপদ প্রাপ্তিতে ভেটো দেবে। এরদোগান তুরস্কে কর্মরত কুর্দি উগ্রবাদীদের আশ্রয় দেয়ার এবং তার কথায়, ‘সন্ত্রাসবাদ’ প্রচার করার জন্য তাদের অভিযুক্ত করেছিলেন।

আলোচনার পর এরদোগান বলেন, তিনি তার আপত্তিগুলো প্রত্যাহার করবেন। তবে ইঙ্গিত দিয়েছেন, তারা প্রতিশ্রুতিগুলো বাস্তবায়ন করতে ব্যর্থ হলে, তিনি এখনো তাদের সদস্যপদ লাভে বাধা দিতে পারেন। সব প্রতিশ্রুতির কথা প্রকাশ করা হয়নি।

উল্লেখ্য, ন্যাটো সদস্যপদ লাভের জন্য সবগুলো, অর্থাৎ ৩০টি ন্যাটো সদস্য রাষ্ট্রের অনুমোদন প্রয়োজন। শুধুমাত্র হাঙ্গেরি এবং তুরস্ক এখনো তাদের সংসদে এই দু’টি দেশের সদস্যপদের প্রচেষ্টা অনুমোদনের জন্য পাঠাতে পারেনি।

গত ফেব্রুয়ারি মাসে ইউক্রেনে রাশিয়ার নৃশংস আক্রমণ এবং এই অঞ্চলে ক্রেমলিনের আক্রমণাত্মক পদক্ষেপের মুখে সুইডেন এবং ফিনল্যান্ডে ঐতিহাসিক কিছু পরিবর্তন এসেছে।

আক্রমণের পর নর্ডিক দেশগুলোর জনমত দ্রুত ন্যাটো সদস্যপদ লাভের পক্ষে চলে যায়।
সূত্র: ভয়েস অফ আমেরিকা


আরো সংবাদ


premium cement