০২ মার্চ ২০২১
`

‘এরদোগানের পরাজয়ের জন্য জীবন দিতে পারি’

আইতুগ আতিচি - ছবি : সংগৃহীত

তুরস্কের বর্তমান প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগানকে নির্বাচনে পরাজিত দেখতে নিজের জীবনও উৎসর্গ করতে পারেন বলে জানিয়েছেন দেশটির বিরোধী দল রিপাবলিকান পিপলস পার্টির (সিএইচপি) সাবেক ডেপুটি আইতুগ আতিচি। তিনি রোববার তুরস্কের এক টিভি অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন।

ওই অনুষ্ঠানে তিনি আরো বলেন, ‘আমরা এরদোগানকে যত দ্রুত সম্ভব সরে যেতে দেখতে চাই। এটা পরিষ্কার। কিন্তু কিভাবে? গণতান্ত্রিক পন্থায়, চলুন একটি ভোটের আয়োজন করি এবং আমরা চাইব উনি সরে যান। আমি নিসংকোচে বলছি, তার পরাজয়ের জন্য আমি জীবন দিতে প্রস্তুত। এ ব্যাপারে আমি এতটাই সংকল্পবদ্ধ।’

তবে অনুষ্ঠানে অন্য বক্তাদের সমালোচনার মুখে আতিচি তার বক্তব্যটি সংশোধন করে বলেন, এরদোগানকে অপসারণের জন্য তিনি শুধুমাত্র গণতান্ত্রিক পদ্ধতিই অবলম্বন করতে চান।

তিনি আরো বলেন, ‘আমি হাজারো বার লাইভ ব্রডকাস্টে অংশ নিয়েছি। যারা আমার শ্রোতা তারা জানেন আমি আসলে কী বাঝাতে চেয়েছি। তবে আমি আবারো বলছি, এরদোগানকে ক্ষমতাচ্যুত করতে গণতান্ত্রিকভাবে আমি যেকোনো কিছু করব।’

এ বছর জানুয়ারির শুরুতে বিরোধী দলের সমর্থিত সাংবাদিক ক্যান আতাকলির একটি বক্তব্য বেশ বির্তকের সৃষ্টি করেছিল। তিনি বলেছিলেন, তুরস্কে একটি বড় ধরনের বিপর্যয় প্রয়োজন, যাতে জনগণের তাণ্ডবে এরদোগান প্রেসিডেন্ট পদ থেকে সরে যায়। পরে তার ওই বক্তব্যের প্রেক্ষিতে তদন্ত শুরু হলে আতাকলি বলেন, তিনি তার বক্তব্য থেকে সরে এসেছেন।

২০০১ সালে জাস্টিস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট পার্টি (একে পার্টি) প্রতিষ্ঠার পর থেকে এরদোগান তুরস্কের রাজনীতিতে প্রভাব বিস্তার করে চলেছেন। তার দায়িত্বে দলটি খুব দ্রুত গতি সঞ্চার করে। ২০০২ সালে ৩ নভেম্বর সাধারণ নির্বাচনে তার দল ৩৪ দশমিক ২৮ শতাংশ ভোট পায়।

প্রতিষ্ঠার পর থেকে একে পার্টি একাধারে ২০০২, ২০০৭, ২০১১ ও ২০১৫ সালে ছয়বার সাধারণ নির্বাচনে অংশ নেন। একে পার্টি ২০১৫ ও ২০১৮ সালের নভেম্বরের মধ্যবর্তী নির্বাচনে জয়লাভ করে। যার ফলে তুরস্কের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে গত ১৯ বছরে একে পার্টি থেকে দু’জন প্রেসিডেন্ট ও চারজন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন। পরে ২০১৮ সালে তুরস্কের নতুন পদ্ধতির প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এরদোগান প্রথমবারের মতো গণতান্ত্রিকভাবে প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচিত হন। তিনি একই সাথে এখনো একে পার্টির প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

সূত্র : ডেইলি সাবাহ



আরো সংবাদ


Boss is always right যুবদল থেকে যুবলীগে : বেতাগীর ওই নেতার মনোনয়ন বাণিজ্য জমজমাট মুক্তি পেলো অপহৃত ২৭৯ শিক্ষার্থী খালেদা জিয়ার পক্ষে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি আবেদনের শুনানি শুরু অর্থবহ স্বাধীনতার জন্য নৈতিক মূল্যবোধের ভিত্তিতে দেশ গড়তে হবে : ডা. শফিকুর হাজেরা বেগমের ইন্তেকালে জামায়াত আমীরের শোক সুইস ব্যাংকের প্রতি বিত্তশালীদের যে কারণে এতো আগ্রহ সৌদি যুবরাজের অনুগত বিশেষ বাহিনী বিলুপ্তিতে যুক্তরাষ্ট্রের আহ্বান রিমান্ডে নিয়ে ছাত্রদল নেতাদের পৈশাচিক নির্যাতন চালানো হচ্ছে : রিজভী আইএইএ’তে ইরানবিরোধী প্রস্তাব পাস হবে কূটনীতির জন্য হুমকি : আরাকচি বোয়িং স্টারলাইনার পরীক্ষা মিশন স্থগিত

সকল