০৭ অক্টোবর ২০২২, ২২ আশ্বিন ১৪২৯, ১০ রবিউল আওয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

২৩টা গ্র্যান্ড স্ল্যাম কম কী? কোর্টকে বিদায় জানাতে প্রস্তুত সেরেনা

২৩টা গ্র্যান্ড স্ল্যাম কম কী? কোর্টকে বিদায় জানাতে প্রস্তুত সেরেনা - ছবি : সংগৃহীত

‘যেটা ছিল না ছিল না, সেটা না পাওয়াই থাক। সব পেলে নষ্ট জীবন...।’ অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলা সেরেনা উইলিমাসের ভাবনার সাথে যেন মিলে যাচ্ছে বাঙালি গায়ক অনুপম রায়ের গানের এই লাইন। সেরেনাও আর মার্গারেট কোর্টের নজির নিয়ে ভেবে সময় নষ্ট করতে চান না।

আর একটি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতলেই কোর্টের ২৪টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের নজির স্পর্শ করতেন। তাই সেরেনার অবসরের ভাবনায় হতাশ টেনিসপ্রেমীরা। তাদের মুখে আক্ষেপ। কোর্টের নজির স্পর্শের দোরগোড়ায় এসে কেন থেমে যাবেন বিশ্বের সাবেক এক নম্বর খেলোয়াড়? কিন্তু সেরিনা নিজেই আর ২৪তম গ্র্যান্ড স্ল্যাম খেতাব নিয়ে ভাবতে চাইছেন না। টেনিস জীবনে যা পেয়েছেন, তাতেই সন্তুষ্ট তিনি।

২৩টি গ্র্যান্ড স্ল্যামের মালিক বলেছেন, ‘কিছু মানুষ হয়তো আমাকে সর্বকালের সেরা মানতে চাইবেন না। কারণ আমি কোর্টের নজির ছুঁতে পারিনি। কোর্ট এই নজির গড়েছিলেন ওপেন যুগের আগে। মানে ১৯৬৮ সালের আগে।’ ২০১৭ সালের অস্ট্রেলিয়ান ওপেন তার শেষ গ্র্যান্ড স্ল্যাম খেতাব। সেরেনা বলেছেন, ‘যদি বলি কোর্টের নজির স্পর্শ করতে চাইনি, তা হলে মিথ্যা বলা হবে। অবশ্যই চেয়েছিলাম নতুন নজির গড়তে। কিন্তু একটা সময়ের পর ওই ভাবনা থেকে বেরিয়ে এসেছি। ঠিক করি, কোো গ্র্যান্ড স্ল্যামের ফাইনালে উঠতে পারলে তবেই আবার ওই নজিরটা নিয়ে ভাবব। মনে হয় এটা নিয়ে একটু বেশি ভেবে ফেলছিলাম। সেটা আমার কোনো কাজেই লাগেনি।’

আগামী মাসে ৪১ বছর পূর্ণ করবেন সেরেনা। মাতৃত্বকালীন বিরতির পর ২০১৮ সালে কোর্টে ফিরে চারটি গ্র্যান্ড স্ল্যামের ফাইনালেই উঠেছেন। কিন্তু ২৪তম গ্র্যান্ড স্ল্যাম অধরাই থেকে গিয়েছে তার। সেরিনা বলেছেন, ‘আমার তো মনে হয়, ৩০টার বেশি গ্র্যান্ড স্ল্যাম থাকা উচিত ছিল আমার। সন্তান হওয়ার পর ফিরে এসেও সুযোগ পেয়েছিলাম। কিন্তু পারিনি। কী করা উচিত ছিল, কী হতে পারত, কী হয়নি- এ সব নিয়ে আর ভাবতে চাই না। কিন্তু আমি ২৩ বার গ্র্যান্ড স্ল্যাম চ্যাম্পিয়ন হয়েছি। ভালই তো। আসলে এটাও অসাধারণ।’

টেনিসজীবনে ছ’বার ইউএস ওপেন চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন সেরেনা। আগামী ২৯ অগস্ট শুরু হবে বছরের শেষ গ্র্যান্ড স্ল্যাম। আর এক বার কি চেষ্টা করবেন না? সেরিনা বলেছেন, ‘দুর্ভাগ্যজনক হলেও এটা সত্যি উইম্বলডন জেতার মতো প্রস্ততি নিতে পারিনি এ বছর। জানি না নিউইয়র্কের জন্য প্রস্তুত হতে পারব কী না। পারলে এক বার চেষ্টা করব।’

অনুরাগীদের প্রত্যাশা নিয়ে বলেছেন, ‘জানি অনেকেই ভেবেছিলেন, লন্ডনে কোর্টকে ছুঁয়ে ফেলব আর নিউইয়র্কে তাকে টপকে যাব। তার পর তারা দারুণ একটা উৎসব করবেন। আশা হিসেবে এটা দুর্দান্ত। কিন্তু কোর্টের শেষ মুহূর্তে আমি কোনো উৎসব চাইনি।’
সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা


আরো সংবাদ


premium cement