১৮ অক্টোবর ২০২১
`

ইনজুরির কারণে ইউএস ওপেন থেকে নাম প্রত্যাহার নাদালের


বাম পায়ের ইনজুরির কারণে ইউএস ওপেন থেকে নাম প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছেন রাফায়েল নাদাল। একইসাথে চলতি বছর আর মাঠে নামতে পারছেন না বলেও নিশ্চিত করেছেন ফ্রেঞ্চ ওপেনের সেমিফাইনালিস্ট।

ফ্রেঞ্চ ওপেনে খেলার সময় থেকেই পায়ের সমস্যা দেখা দিয়েছিল নাদালের। এ সম্পর্কে টুইটারে এই স্প্যানিয়ার্ড লিখেছেন, ‘আমি সবাইকে বলতে চাই যে, দুর্ভাগ্যবশত ২০২১ সালটি আমার জন্য শেষ হয়ে গেছে। সত্যি কথা বলতি কি এই ইনজুরি নিয়ে আমি সারা বছর অনেক কষ্ট করেছি। এই সমস্যা সমাধানে আমার কিছুটা সময় লাগবে। হতে পারে সময়টা দীর্ঘদিনের।’

রোলা গাঁরোতে বিশ্বের শীর্ষ তারকা নোভাক জকোভিচের কাছে পরাজিত হয়ে শেষ চার থেকে বিদায় নিতে হয়েছিল এই ক্লে কোর্ট বিশেষজ্ঞকে। এরপর উইম্বলডন ও অলিম্পিক থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিলেও চলতি মাসের শুরুতে ওয়াশিংটন ওপেনের মাধ্যমে তিনি কোর্টে ফিরে আসেন। সেখানে তিনি জ্যাক সককে প্রথম ম্যাচে পরাজিত করলেও দক্ষিণ আফ্রিকার লয়েড হ্যারিসের কাছে তিন সেটের লড়াইয়ে চতুর্থ রাউন্ডে হেরে বিদায় নেন। ৩৫ বছর বয়সী নাদাল ওই সময় বলেছিলেন তিনি সুস্থ অনুভব করছেন এবং তার পায়ের ইনজুরি আগের থেকে অনেক ভাল অবস্থায় আছে। কিন্তু তারপরেই টরন্টো মাস্টার্স থেকে নাম প্রত্যাহারের পর ইউএস ওপেনের ঐতিহ্যবাহী প্রস্তুতিমূলক টুর্নামেন্ট সিনসিনাতি থেকেও না খেলার সিদ্ধান্ত নেন।

নাদাল জানিয়েছেন ২০২২ সালে পুরোপুরি ভাবে প্রতিদ্বন্দ্বীতামূলক টেনিসে ফিরে আসার আগে তিনি যতটা সম্ভব তার পা’কে বিশ্রাম দিতে চান। এ সম্পর্কে নাদাল বলেছেন, ‘সম্ভাব্য সেরা ফর্মে ফিরে আসতে হলে যা কিছু করা প্রয়োজন তার সব চেস্টাই আমি করে যাচ্ছি। এই মুহূর্তে যত দ্রুত সম্ভব কোর্টে ফিরে আসাই আমার মূল লক্ষ্য। যেভাবে আমি সুস্থ হয়ে উঠছি তাতে আমি সন্তুষ্ট। অবশ্যই এজন্য প্রতিদিনই কষ্ট করতে হচ্ছে।’

নিউ ইয়র্কে চারটি শিরোপাসহ এ পর্যন্ত বিশ্বের চার নম্বর এই খেলোয়াড় ২০টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয় করেছেন। আরেক সাবেক চ্যাম্পিয়ন রজার ফেদেরারও গত রোববার হাঁটুর অস্ত্রোপচারের কারনে ফ্লাশিং মিডোতে না খেলার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন। কব্জির ইনজুরির কারনে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ডোমিনিক থিয়েমও নাম প্রত্যাহারের ঘোষনা দিয়েছেন।

টোকিও অলিম্পিকে পদকশুন্য জকোভিচের অবশ্য নিউ ইয়র্কে খেলার বথা রয়েছে। এবারের মৌসুমে এ পর্যন্ত তিনটি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয় করা জকোভিচের সামনে বছরের শেষ স্ল্যামটিও জয়ের সুযোগ রয়েছে। বিশ্বের তৃতীয় খেলোয়াড় হিসেবে এক বছরে চারটি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের হাতছানি এখন জকোভিচের সামনে। এখানে জয়ী হতে পারলেও নাদাল ও ফেদেরারের সাথে রেকর্ড ২০তম স্ল্যাম শিরোপা জয়ের কৃতিত্ব দেখাবেন এই সার্বিয়ান তারকা। এ নিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো নাদাল ও ফেদেরার ইউএস ওপেন থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিলেন।

সূত্র : বাসস



আরো সংবাদ


মেয়ের চিকিৎসায় ১০ দিন ধরে ঢাকার হাসপাতালে থেকেও মন্দির ভাঙার আসামি (১২২৬৩)‘বাতিল হলো ঢাকা-চট্টগ্রাম এক্সপ্রেসওয়ে প্রকল্প’ (১১৮৪৮)প্রধানমন্ত্রী মোদি কি আগামী নির্বাচনে হেরে যাচ্ছেন বলে এখনই টের পেয়েছেন (৯৪৪৭)কাশ্মিরে নতুন করে উত্তেজনা ভারতের তালেবানভীতি থেকে? কেন সেই ভীতি? (৯৩৫৭)কাশ্মিরে এক অভিযানে সর্বোচ্চ সংখ্যক ভারতীয় সেনা নিহত (৮০০৬)৭২-এর সংবিধানে ফিরে যেতেই হবে : তথ্য প্রতিমন্ত্রী (৬১৯৩)সঙ্কটের পথে রাজনীতি (৫৯৭৪)গ্রাহকদের উদ্দেশে কারাগার থেকে যা বললেন ইভ্যালির রাসেল (৪৮৫৯)কিছু ‘বিভ্রান্তিকর খবরের’ পর বাংলাদেশের পদক্ষেপের প্রশংসা করেছে ভারত (৪৮২৫)পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবীর সরকারি ছুটি পুনর্নির্ধারণ (৪৭৮৬)