২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৫ মাঘ ১৪২৯, ৬ রজব ১৪৪৪
ads
`

টেলিভিশন শিল্পীদের জন্য জাতীয় পুরস্কারের কথা ভাবা হচ্ছে : তথ্যমন্ত্রী


তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী হাছান মাহমুদ জানিয়েছেন, টেলিভিশন শিল্পীদের জন্য আলাদাভাবে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে পুরস্কার দেয়ার কথা ভাবা হচ্ছে। এছাড়া আমাদের মন্ত্রণালয়ে এ নিয়ে আলোচনাও করেছি কয়েক দফায়।

সোমবার (১৭ অক্টোবর) মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে টেলিভিশন শিল্পী, পরিচালক, প্রযোজক, কুশলীদের সাথে মতবিনিময়ের পর সাংবাদিকদের তিনি এমন তথ্য দিয়েছেন।

তিনি বলেন, যেহেতু এটি জাতীয় বিষয়, এককভাবে আমাদের মন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত নিতে পারে না। সবার সাথে আলোচনা করে এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করা হবে। এভাবেই শিল্পীদের ও শিল্পের সুরক্ষার জন্য আমরা অনেক পদক্ষেপ নিয়েছি।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, আপনারা জানেন যে আগে বাংলাদেশে টেলিভিশনগুলোর কোনো সিরিয়াল ছিল না। যার যেমন ইচ্ছা ক্যাবল অপারেটররা সেভাবে প্রদর্শন করতো। অনেক ক্ষেত্রে ভারতীয় চ্যানেলের পরে বাংলাদেশের চ্যানেল দেখানো হতো। কিন্তু সেখানে একটা শৃঙ্খলা আমরা আনতে পেরেছি। বাংলাদেশ টেলিভিশন ভারতবর্ষে দেখানোর চেষ্টা শুরু হয় আজ থেকে ৩০ বছর আগে। কিন্তু তিন দশকেও তা সফলতা লাভ করেনি। প্রধানমন্ত্রী আমাকে দায়িত্ব দেয়ার পর ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসে আমরা পুরো ভারতবর্ষে বাংলাদেশ টেলিভিশন প্রদর্শনের ব্যবস্থা করেছি। যা একটি মাইলফলক।

বিদেশী শিল্পীদের দিয়ে বিজ্ঞাপন বানানোর লাগাম টেনে ধরার কথা জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, আপনারা জানেন যে বাংলাদেশের অভিনয় শিল্পীদের কথা মাথায় রেখেই আমাদের মন্ত্রণালয় থেকে এ নিয়ে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। আমরা অচিরেই তা বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছি।

আপনারা জানেন যে বিজ্ঞাপনচিত্র বানানো হয় বিদেশী শিল্পীদের দিয়ে। অথচ আমাদের দেশে অনেক প্রতিভাবান অভিনয়শিল্পী আছে, বিজ্ঞাপন নির্মাতাও আছেন। অতীতে আমাদের দেশের নির্মাতারাই অনেক ভালো বিজ্ঞাপন বানিয়েছেন। যেগুলোকে শুধু পণ্যের বিজ্ঞাপন বলা যাবে না, এগুলো মানুষের তৃতীয় নয়ন খুলে দিতো, মানুষের মধ্যে ভাবনার জন্ম দিতো, ৩০ বা ১০ সেকেন্ডের মধ্যেই সেটিকে উপস্থাপন করা অনেক শেয়ানার, অনেক মুনশিয়ানার কাজ। সেটি আমাদের দেশের বিজ্ঞাপন নির্মার্তারা বানিয়েছেন। শিল্পীরা অভিনয় করে দেখিয়েছেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, এরপরেও ইদানীং আমরা একটি প্রবণতা দেখতে পাচ্ছি যে সব বিজ্ঞাপন চিত্রই যতটা সম্ভব বিদেশী শিল্পীদের দিয়ে বানিয়ে আনা এবং বিদেশী বিজ্ঞাপন ডাবিং করে বাংলাদেশে প্রদর্শন করা হচ্ছে। আমরা সেটির লাগাম টেনে ধরতে চাই। সেজন্যই এরইমধ্যে আমরা প্রজ্ঞাপন জারি করেছি। আরো একটি নীতিমালা চূড়ান্ত হয়েছে, তা প্রজ্ঞাপন আকারে প্রকাশ করা হবে।

তাতে বলা আছে, বিদেশী শিল্পীদের দিয়ে বিজ্ঞাপন বানাতে হলে প্রতিটি শিল্পীপ্রতি ট্যাক্স-ভ্যাটের বাইরে সরকারকে অতিরিক্ত কর দিতে হবে। পাশাপাশি যারা প্রদর্শন করবেন, তাদেরকেও টাকা দিতে হবে। আর তা ডাবিং করা বিজ্ঞাপনচিত্রের জন্যও প্রযোজ্য হবে।

কারণ বাইরে বানিয়ে এনে তা বাংলাদেশে ডাবিং করে, যেমন বহুজাতিক কোম্পানিগুলোর পণ্য-প্রদর্শন করার লাগাম টেনে ধরতে হবে।

উপমহাদেশের অনেক দেশে তা করা যায় না বলেও জানান তথ্যমন্ত্রী। প্রশ্ন রেখে তিনি বলেন, তা আমাদের দেশে কেন হবে? আমাদের দেশের শিল্পীরা অনেক মেধাবী, নির্মাতারাও মেধাবী। আমাদের দেশের শিল্প ও শিল্পী যাতে উপকৃত হয়, সেজন্য আমরা এ পদক্ষেপ নিচ্ছি।

এছাড়া বাংলাদেশে টেলিভিশনে গত কয়েক বছর ধরে বিদেশী সিরিয়াল কিনে এনে- ৫০ কিংবা ৩০ বছর আগের- ডাবিং করে সম্প্রচার করা হয়। আমরা সেটার লাগাম টেনে ধরেছি। এ কাজ প্রথমে দুয়েকটি চ্যানেল শুরু করেছিল, পরে তা অনেকগুলো চ্যানেল করেছে। একটির বেশি (বিদেশী) সিরিয়াল কোনো টেলিভিশন চালাতে পারবে না। কিন্তু আমরা একেবারে বন্ধ করছি না, পৃথিবী এখন মুক্তবাজার অর্থনীতিতে চলছে। এখন আকাশ উন্মুক্ত। কাজেই এমন পরিস্থিতিতে একটির বেশি বিদেশী সিরিয়াল কোনো টেলিভিশন চালাতে পারবে না। ইতোমধ্যেই তা আমরা কার্যকর করেছি।

তিনি আরো জানান, আমি যখন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নিই, তখন শিল্পীরাই এসে আমার কাছে এমন দাবি করেছিল। দ্রুততার সাথে আমরা সেটি বাস্তবায়ন করেছি। এটা এজন্যই করেছি, যাতে আমাদের দেশে সিরিয়াল তৈরি হয়। অতীতে আমাদের দেশে অনেক ভালো ভালো টিভি সিরিয়াল তৈরি হয়েছে, যা মানুষ উন্মুখ হয়ে দেখতো। আমাদের ছোটবেলায় বা আমাদের কলেজ জীবনে আমরা সিরিয়াল উন্মুখ হয়ে দেখতাম। আমাদের সেই মানের শিল্পী আছে। যারা বানিয়েছিলেন, তারা এখনো বেঁচে আছেন। কাজেই বিদেশী সিরিয়াল কেন দেখানো হবে?

সূত্র : ইউএনবি


আরো সংবাদ


premium cement
স্বল্প সময়ে বিচারকাজ সম্পন্ন করা বিচারক ও আইনজীবীদের দায়িত্ব : প্রধান বিচারপতি বাংলাদেশ পুলিশ দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় নিরলসভাবে কাজ করছে : প্রধানমন্ত্রী সিলেটের পরীক্ষা নিতে পারেনি চট্টগ্রাম শিপার্স কাউন্সিলের বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত খুলনা বিভাগীয় সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি নজরুল সম্পাদক রিজভী ঢাকায় আন্তর্জাতিক হিসাববিজ্ঞান সম্মেলন শুরু দক্ষিণখানে মটরসাইকেল নিয়ন্ত্রন হারিয়ে যুবক নিহত ডেনমার্কে কুরআন পোড়ানোর ঘটনায় ঢাকার নিন্দা যুগপৎ আন্দোলনের লক্ষ্যমাত্রা একটাই স্বৈরাচারী সরকারের পতন : আমীর খসরু মাশরাফীর অনন্য মাইলফলক চট্টগ্রামে চা উৎপাদনে নতুন রেকর্ড

সকল