০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ৪ জিলহজ ১৪৪৩
`

ভারতে ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার অভিনেত্রীর ঝুলন্ত লাশ

ভারতে ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার অভিনেত্রীর ঝুলন্ত লাশ - ছবি : সংগৃহীত

ভারতে ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার বাংলা টেলিভিশনের অভিনেত্রীর ঝুলন্ত লাশ। মৃত অভিনেত্রীর নাম পল্লবী দে। কালার্স বাংলা চ্যানেলের ‘মন মানে না’ ধারাবাহিকে গৌরীর ভূমিকায় অভিনয় করতেন তিনি। রোববার সকালেই পল্লবীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার হয়।

গড়ফার গাঙ্গুলিপুকুর এলাকার বহুতলে থাকতেন পল্লবী। এদিন সকালে তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার হয় বলে খবর।

শোনা গেছে, পল্লবীর বাড়ির লোকজনই প্রথম বিষয়টি টের পান। পল্লবীর লাশ উদ্ধার করে এম আর বাঙুরে পাঠানো হয়। সেখানেই তাকে মৃত বলে ঘোষণা হয়।

জানা গেছে, ২০১৭ সাল থেকে বাংলা টেলিভিশনে কাজ করছেন পল্লবী। ‘আমি সিরাজের বেগম’ সিরিয়ালে শন বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিপরীতে ছিলেন তিনি। ২০১৮ সালের ডিসেম্বর মাসে স্টার জলসা চ্যানেলে শুরু হয়েছিল ধারাবাহিকটি। ২০১৯ সালে মে মাসে শেষ হয়ে যায়। এরপর ‘রেশম ঝাঁপি’, ‘কুঞ্জছায়া’, ‘সরস্বতীর প্রেমে’র মতো সিরিয়ালে দেখা যায় পল্লবীকে।

শোনা গেছে, গড়ফার ওই বহুতলের ফ্ল্যাটে প্রেমিকের সাথে থাকতেন পল্লবী। লিভ-ইন রিলেশনশিপে ছিলেন তারা। ঘটনায় অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা নথিভূক্ত হয়েছে। ইতোমধ্যেই তদন্ত শুরু করেছে গড়ফা থানার পুলিশ। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। বেশ কিছু দিন ধরেই বাংলা টেলিভিশনে কাজ করছিলেন পল্লবী। তার জনপ্রিয়তাও ছিল। তারপরও কীভাবে এই অস্বাভাবিক মৃত্যু? তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

সকাল থেকেই শুটিং করছিলেন। আচমকা পল্লবীর মৃত্যুর খবর পেয়েই ফ্ল্যাটের সামনে চলে আসেন সায়ক, ভাবনার মতো অভিনেতারা। পল্লবীর মতো একজন প্রাণবন্ত মেয়ের এভাবে মৃত্যু কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না তারা। সম্পর্কের টানাপোড়েনের জেরেই কি বাংলা টেলিভিশনের অভিনেত্রীর আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন? আপাতত এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজছে পুলিশ।
সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন


আরো সংবাদ


premium cement