০৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯, ৬ জিলহজ ১৪৪৩
`
ইসলামী অনুষ্ঠানের প্রতি আগ্রহ বাড়ছে স্পন্সরদের

রমজানে মাসব্যাপী ‘বেক্সিমকো ইসলামিক আইকন’ টিভি শো’র সম্প্রচার শুরু

ইসলামিক আইকন টিভি রিয়েলিটি শো - ছবি : নয়া দিগন্ত

কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক ট্যালেন্ট ও আলেমদের নিয়ে ব্যতিক্রমধর্মী ইসলামিক মেগা রিয়েলিটি শো “বেক্সিমকো ইসলামিক আইকন সিজন-২” পাওয়ার্ড বাই বিএম এলপি গ্যাস-এর পবিত্র রমজান মাসব্যাপী সম্প্রচার শুরু হয়েছে।

এবার মাহে রমজানে প্রতিদিন রাত ১০টা ৫০ মিনিটে এটিএন বাংলায় প্রচারিত হবে অনুষ্ঠানটি। বিশিষ্ট মিডিয়াব্যক্তিত্ব খালিদ সাইফুল্লাহ বকসীর উপস্থাপনায় এ অনুষ্ঠানটিতে বিচারক হিসেবে আছেন দেশের জনপ্রিয় ও আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ইসলামিক স্কলারগণ। সারাদেশের হাজার হাজার অংশগ্রহণকারীদের মধ্য থেকে ৪৮ জন ট্যালেন্ট প্রতিযোগী টিভি শো পর্বের অনুষ্ঠানে সুযোগ পেয়েছেন।

কুরআন-সুন্নাহর জ্ঞানে পারদর্শিতা প্রদর্শনের এই মহাযুদ্ধ শেষে নির্বাচিত হবেন সেরা ৩ জন ইসলামিক আইকন। ১ম, ২য়, ৩য় ও ৪র্থ স্থান অর্জনকারী পবিত্র ওমরাহ পালনের সুযোগ, মালয়েশিয়া ভ্রমণ, নগদ অর্থসহ পাবেন ২৬ লাখ টাকা। এছাড়াও সেরা ১০ জন ও অংশগ্রহণকারী ৪৮ জনের জন্য বিশেষ পুরস্কারসহ সর্বমোট ৩০ লাখ টাকার পুরস্কার বিতরণ করা হবে।

অনুষ্ঠানটি নিয়ে ইসলামিক আইকনের পরিচালক খালিদ সাইফুল্লাহ বকসী বলেন, আধুনিক চিন্তা ও প্রযুক্তিমনস্ক স্মার্ট ইসলামিক স্কলার তৈরির উদ্দেশ্যেই ইসলামিক আইকনের পথচলা শুরু হয়। সত্যি বলতে কি দিন দিন ইসলামিক অনুষ্ঠানের জনপ্রিয়তা বাড়ার পাশাপাশি এই খাতে স্পন্সরদেরও ব্যাপক আগ্রহ তৈরি হয়েছে। তারা তাদের পণ্যের প্রচার ও প্রসারের জন্য ইসলামিক অনুষ্ঠানের প্রতি আস্থা রাখতে সক্ষম হয়েছেন। এজন্য তাদেরকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই।

তিনি আরো জানান, ইসলামিক আইকন থেকে যিনি বা যারা সেরা হিসেবে নির্বাচিত হবেন, তারাই হবেন আগামী পৃথিবীর ইসলামিক স্কলার। অনুষ্ঠানে ট্যালেন্টদের যে কোনো বিষয় বললে ওই বিষয়ের ওপর আয়াত, আয়াতের লোকেশন বলে তিলাওয়াত ও অনুবাদ করা। আয়াত নাজিলের ঐতিহাসিক পটভূমি, ব্যাখ্যা, শিক্ষা, বিধান বলতে পারা। বিষয় সংশ্লিষ্ট হাদিসের লোকেশন ও অনুবাদসহ হাদিস বলা। ইসলামিক কারেন্ট নলেজ, গণমানুষের ফিকহী প্রশ্নের উত্তর দেয়া। ইসলামের গৌরবগাঁথা নানা বিষয়ের ওপর জ্ঞানগত সক্ষমতা প্রদর্শন করা এবং বাংলাদেশ সংক্রান্ত তথ্যসহ নানা বিষয়ের উপর পারদর্শিতামূলক এ আয়োজন টেলিভিশনের পর্দায় দেখে দর্শক মুগ্ধ হচ্ছে। এটি নিছক একটি অনুষ্ঠান নয় বরং সুস্থ বিনোদনের পরিবেশে ইসলামকে জানার একটি অনন্য আয়োজন।

উল্লেখ্য, গতবছর সিজন-১ প্রচারের পর থেকেই বাংলাদেশের ইসলামিক রিয়েলিটি শোগুলোর মধ্যে ইসলামিক আইকন বেশ আলোচিত হয় এবং দর্শক ও বোদ্ধাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হয়। আয়োজকদের প্রত্যাশা, এবারও মাহে রমজানে টিভি পর্দায় ইসলামপ্রিয় মানুষের সেরা আয়োজন হবে ‘বেক্সিমকো ইসলামিক আইকন’। প্রেস বিজ্ঞপ্তি


আরো সংবাদ


premium cement