২৩ এপ্রিল ২০২১
`

বলকান যুদ্ধে মুসলমানদের ভূমিকা নিয়ে টিভি সিরিজ ‘তুর্কি লালা’

বলকান যুদ্ধে মুসলমানদের ভূমিকা নিয়ে টিভি সিরিজ ‘তুর্কি লালা’ - ছবি : সংগৃহীত

সুপারহিট সিরিজ ‘দিরিলিস আরতুগুল’ বিশ্বব্যাপী বিপুল পরিমাণ দর্শক আকৃষ্ট করার পর এবার নতুন একটি ঐতিহাসিক টিভি সিরিজ নির্মাণের কাজে হাত দিয়েছে তুর্কি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান তেকদেন ফিল্ম। তুরস্ক ও পাকিস্তানের প্রস্তাবিত `তুর্কি লালা' সিরিজটি বলকান যুদ্ধের সময় উপমহাদেশের মুসলমানদের ভূমিকা তুলে ধরবে।

তেকদেন ফিল্মের কেমাল তেকদেন জানান, ‘আমরা তুর্কি লালা সিরিজের দৃশ্যপট লেখা শুরু করেছি। প্রথমে আমরা স্ক্রিপ্ট তৈরি করবো, তারপর শুটিং শুরু করবো।’

পাঁচ দিনের সফরে তেকদেন ও তার দল পাকিস্তানে পৌঁছেন বৃহস্পতিবার। সেখানে কর্তৃপক্ষ ও জনগণ তাদেরকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানায়। দলটি প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সাথে সাক্ষাৎ করে তুর্কি লালার ব্যাপারে আলোচনা করে।

তেকদেন জানান, ‘এ সিরিজটিতে তুরস্ক ও পাকিস্তানের অভিনেতারা কাজ করবে। বৃহৎ পরিসরে এর দৃশ্যপট ধারণ করা হবে তুরস্কে।’

পশতু ভাষায় লালা শব্দের অর্থ ‘বড় ভাই’। সিরিজটিতে উপমহাদেশ থেকে যেসব মুসলমানরা ১৯২০ সালে তুরস্কে গিয়েছিল এবং সাম্রাজ্যবাদী বাহিনীগুলোর বিরুদ্ধে লড়াই করেছিল তাদের ভূমিকা ফুটিয়ে তোলা হবে।

তুরস্ককে সাহায্যকারী অধিকাংশ মুসলিম পাকিস্তান থেকে গিয়েছিল। ওসমানীয় সাম্রাজ্যকে সহযোগিতা করার জন্য বিংশ শতাব্দীর শুরুর দিকে তারা খেলাফত আন্দোলনের ব্যানারে সুদূর তুরস্কে পাড়ি জমায়।

কাশ্মির কমিটির চেয়ারম্যান শাহরিয়ার আফ্রিদি ইমরান খানের সাথে বৈঠককালে সিরিজটির ব্যাপারে তাকে অবহিত করেন। তিনি বলেন, খেলাফত আন্দোলনে তুর্কি লালা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিল।

তিনি আবদুর রেহমান পেশোয়ারীর কথা বলছিলেন। ১৯২০ এর দশকের গোড়ার দিকে আনাদোলু এজেন্সির প্রতিষ্ঠাকালীন প্রথম সাংবাদিকদের একজন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছিলেন পেশোয়ারী।

১৮৮৬ সালে পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখা প্রদেশের রাজধানী পেশোয়ারে এক ধনী সমাদানী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। বলকান যুদ্ধের সময় তুরস্ককে সহায়তা করার জন্য জনগণের মিশনে যোগ দিতে তিনি তার পড়ালেখা ছেড়ে দেন।

তেকদেন বলেন, এ সিরিজটি খুবই তাৎপর্যপূর্ণ। এতে তুরস্কের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় এ উপমহাদেশের মুসলমানদের ভূমিকা তুলে ধরা হবে। সিরিজটি তুরস্ক ও পাকিস্তানের মাঝে ভ্রাতৃত্বের বন্ধনকে আরো দৃঢ় করবে বলে জানান তিনি।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তরুণ প্রজন্মের জন্য শিক্ষণীয় এমন আরো ঐতিহাসিক সিরিজ দেখতে চান বলে জানিয়েছেন তেকদেন। তিনি পাকিস্তানের সরকারি টিভিতে আরতুগুল ও ইউনুস এমরের সম্প্রচারের জন্য ইমরান খানকে ধন্যবাদ জানান।

তেকদেনের দলে ছিলেন আবদুর রহমান গাজী হিসেবে দিরিলিস আরতুগুল ও কুরুলুস ওসমান সিরিজে অভিনয় করা সেলাল আল। উষ্ণ অভ্যর্থনা প্রদানের জন্য পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ও পাকিস্তানিদের ধন্যবাদ জানান সেলাল।

সূত্র : আনাদোলু



আরো সংবাদ