০৯ মার্চ ২০২১
`

বিশ্বের সেরা ১৫ সিরিয়ারের মধ্যে তুর্কি ‘আলেফ’

বিশ্বের সেরা ১৫ সিরিয়ারের মধ্যে তুর্কি ‘আলেফ’ - ছবি : সংগৃহীত

কোভিড-১৯ মহামারী রোধে কোয়ারিন্টিন, লকডাউন, কারফিউসহ বিভিন্ন ব্যবস্থায় ২০২০ সালে ঘরবন্দী হতে বাধ্য হয় সারাবিশ্বের মানুষ। প্রায় বছরজুড়েই ঘরে থাকায় একঘেয়েমি কাটানোর উপায় হিসেবে তারা আশ্রয় নেয় নিজেদের টিভি, কম্পিউটার বা স্মার্টফোনের স্ক্রিনের। মহামারীর ভেতর বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সিরিয়ালে বুঁদ হয়ে থাকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের দর্শকেরা।

বিভিন্ন দিক থেকেই কোভিড-১৯ সংকট বিভিন্ন সিরিয়ালের দর্শকদের কাছে বিপুলভাবে পৌঁছানোর ক্ষেত্রে প্রভাবক হিসেবে কাজ করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বিনোদন ম্যাগাজিন ভ্যারাইটি মহামারীর মধ্যে প্রচারিত সারাবিশ্বের শ্রেষ্ঠ ড্রামা সিরিজ নিয়ে একটি তালিকা তৈরি করেছে।

ম্যাগাজিনটির প্রস্তুত করা শীর্ষ ১৫ আন্তর্জাতিক সিরিয়ালের মধ্যে তুর্কি চলচ্চিত্রকার আমিন আলপের পরিচালিত ‘আলেফ’ সিরিয়ালটি স্থান করে নিয়েছে। সিরিয়ালটি এরমধ্যেই উচ্চমানের গল্প, সিনেমাটোগ্রাফি, অভিনয় ও ডার্ক সাউন্ডট্র্যাকের জন্য প্রশংসিত হয়েছে।

মিনিসিরিজটি কোয়ারিন্টিনে বিপুল দর্শকের কাছে পৌঁছা সিরিয়ালগুলোর মধ্যে অন্যতম। তুর্কি ব্লুটিভি ও অপর একটি আমেরিকান টিভি চ্যানেলে সম্প্রচারিত এই সিরিয়ালের কাহিনী এগিয়েছে পেশাদার এক খুনির হত্যার ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত বিভিন্ন আধ্যাত্মিক বার্তাকে কেন্দ্র করে।

কেনান ইমিরজালিওলু, আহমদ মুমতাজ তাইলান ও মেলিসা সোজেন অভিনীত এই সিরিজটির গল্প মৌলিক, যেখানে প্রচণ্ড গতিতে সমাধান হয়েছে সব অস্পষ্টতার।

তালিকায় থাকা অন্যান্য ড্রামা সিরিয়ালের মধ্যে দক্ষিণ কোরিয়ার ‘ক্রাশ ল্যান্ডিং অন ইউ’, সিঙ্গাপুরের ‘ইনভিজিবল স্টোরিজ’, চিলির ‘লা জাউরিয়া’, মিসরের ‘প্যারানরমাল’ ও সুইডেনের ‘পার্টিসান’ অন্যতম।

তালিকায় থাকা সিরিয়ালগুলো বিভিন্ন প্রধান প্ল্যাটফর্মের রেটিং রেকর্ডে পরিবর্তন এনেছে। পাশাপাশি আন্তর্জাতিক বাজারেও দর্শকদের বিপুল মনোযোগ টেনেছে এই সিরিয়ালগুলো।

সূত্র : হুররিয়াত ডেইলি নিউজ



আরো সংবাদ