১৯ জুন ২০২১
`

অ্যাপসের মাধ্যমে প্রতিবন্ধীদের উদ্যোক্তা হওয়ার সুযোগ

সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে অনলাইনে যুক্ত হয়েছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান -

দেশের প্রতিবন্ধী জনগোষ্ঠীর পাশে দাঁড়াতে একসাথে কাজ শুরু করেছে ধামাকাশপিং ডটকম ও ডিজঅ্যাবলড রিহ্যাবিলিটেশন অ্যান্ড রিসার্চ অ্যাসোসিয়েশন্স (ডিআরআরএ)। সম্প্রতি ধামাকার কার্যালয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে দুই প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে।
সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে অনলাইনে যুক্ত হয়েছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। মন্ত্রী এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি এই উদ্যোগে সবাই পাশে দাঁড়াবে। মোবাইল ডিভাইসের মাধ্যমে এই উদ্যোগ ডিজিটাল বাংলাদেশের প্রতিফলন। প্রতিবন্ধীরা ধামাকার এই অ্যাপটি ব্যবহার করে অচিরেই তাদের ভাগ্য পরিবর্তন করতে পারবেন।’
অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ধামাকাশপিং ডট কমের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এস এম ডি জসিম উদ্দীন চিশতি, প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম রানা, ডিআরআরএর নির্বাহী পরিচালক ফরিদা ইয়াসমিন এবং উপদেষ্টা স্বপ্না রেজা।
ধামাকাশপিং ডট কমের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এস এম ডি জসিম উদ্দীন চিশতি বলেন, ‘ডিআরআরএ দেশের প্রতিবন্ধী জনগোষ্ঠীর কল্যাণে কাজ করছে। ধামাকা উদ্যোক্তা অ্যাপের মাধ্যমে ডিআরআরএর সহযোগিতায় প্রান্তিক প্রতিবন্ধীদের পাশে দাঁড়াতে চাই আমরা। উদ্যোক্তা অ্যাপের মাধ্যমে গ্রামীণ ও প্রান্তিক পর্যায়ের প্রতিবন্ধী উদ্যোক্তারা খুব সহজেই যুক্ত হতে পারবেন।’
ডিআরআরএ-এর নির্বাহী পরিচালক ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, ‘কমিউনিটিভিত্তিক পুনর্বাসনের জন্য দীর্ঘ ২৫ বছর ধরে প্রতিবন্ধী জনগোষ্ঠীর পাশে আছে ডিআরআরএ। তাদের শিক্ষা, স্বাস্থ্যসহ স্বাবলম্বী করে গড়ে তোলার কাজ করছি আমরা। এই করোনা মহামারী এবং রমজানে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য খাদ্যসহায়তা হিসেবে ১০ লাখ টাকার অনুদান দিচ্ছে ধামাকা। আগামী দিনে ধামাকা উদ্যোক্তা অ্যাপের মাধ্যমে আমরা প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলতে চাই।’
ধামাকার সিওও সিরাজুল ইসলাম রানা জানান, ডিআরআরএর সহযোগিতায় করোনার এই দুর্যোগে প্রায় ১৫০০ অসহায় প্রতিবন্ধী ব্যক্তির বাসায় তারা ১৫ দিনের খাবার পৌঁছে দেবেন। তিনি বলেন, ‘সাময়িক এই দুর্যোগ মোকাবেলা করার পরে আমরা প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য ধামাকা উদ্যোক্তা অ্যাপের মাধ্যমে উদ্যোক্তা হওয়ার সুযোগ করে দেবো।’



আরো সংবাদ