২৭ জানুয়ারি ২০২১
`

শুরু হলো অ্যাপলের নিজস্ব প্রসেসরের যুগ

-

বিশ্বের জনপ্রিয় প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অ্যাপল বহু প্রতীক্ষিত এম১ প্রসেসর চালিত কম্পিউটারের ঘোষণা দিলো। যদিও গত মঙ্গলবারের ওই ঘেষণায় অ্যাপল প্রেমীদের তৃষ্ণা পুরোপুরি মেটেনি। নিজস্ব প্রসেসরযুক্ত পুরো লাইনআপের ঘোষণা দেয়নি মার্কিন এই প্রযুক্তি জায়ান্ট, বরং আপাতত স্বল্প ক্ষমতার ম্যাকবুক এয়ারেই নতুন প্রসেসরের স্বাদ নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হবে ম্যাক ব্যবহারকারীদের। ম্যাকবুক এয়ার ক্রেতাদের জন্য অন্য কোনো সুযোগ রাখেনি অ্যাপল। ডিভাইসটি শুধু এম১ চিপ চালিত। এটির কোনো ইনটেল চিপ সংস্করণ পাবেন না তারা।
‘ওয়ান মোর থিং’ আয়োজনে নিজস্ব এম১ চিপ চালিত ম্যাকবুক এয়ার, ১৩ ইঞ্চি ম্যাকবুক প্রো দেখিয়েছে অ্যাপল। উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন কম্পিউটারগুলোকে এখনো নিজেদের নতুন চিপের আওতায় আনেনি প্রতিষ্ঠানটি। নিজেদের ১৬ ইঞ্চি ম্যাকবুক প্রো, আইম্যাক, আইম্যাক প্রো এবং ম্যাক প্রোতে এখনো ইনটেল চিপ ব্যবহার করছে তারা।
২০০৫ সাল পর্যন্ত অ্যাপল নিজস্ব ‘পাওয়ারপিসি’ প্রসেসর ব্যবহার করেছে। এরপর প্রতিষ্ঠানটি তাদের কম্পিউটারে ইনটেল প্রসেসর ব্যবহার করতে শুরু করে। সে হিসাবে প্রায় দেড় দশক ধরে অ্যাপল ডিভাইসে রয়েছে ইনটেল চিপ।
ক্রেতারা চাইলে ১৩ ইঞ্চি ম্যাকবুক ও ৫১২ গিগাবাইটের ম্যাক মিনির চিপ যাতে পাল্টে নিতে পারেন, সে ব্যবস্থাও রেখেছে অ্যাপল। কিন্তু সে কাজটি করতে খরচ একটু বেশি পড়বে। এম১ চিপ চালিত ১৩ ইঞ্চি ম্যাকবুক প্রো ৫০০ ডলার কমে এবং মিনি ২০০ ডলার কমে কেনার সুযোগ পাবেন ক্রেতারা। কিন্তু ইনটেল চিপ-চালিত সংস্করণ কিনলে সে সুযোগ থাকছে না ক্রেতাদের জন্য।
ইনটেল চিপ চালিত ১৩ ইঞ্চি ম্যাকবুক প্রো ও ২৫০ গিগাবাইট ম্যাক মিনি সংস্করণে অতিরিক্ত থান্ডারবোল্ট পোর্ট পাবেন ক্রেতারা। এটি বাদেও কিছু পার্থক্য চোখে পড়বে। উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন কম্পিউটারগুলোকে নিজেদের নতুন চিপের আওতায় কবে নাগাদ আনবে, সে ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করেনি অ্যাপল কর্তৃপক্ষ।



আরো সংবাদ