২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

হুয়াওয়ের বেটার ওয়ার্ল্ড সামিট

হুয়াওয়ের বেটার ওয়ার্ল্ড সামিট -

চীনা প্রযুক্তি জায়ান্ট হুয়াওয়ে করোনাভাইরাস মহামারী মোকাবেলায় কী ধরনের ভূমিকা রাখতে পারে সেসব বিষয়ে এক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনলাইনে চার দিনব্যাপী এই সম্মেলন গত সোমবার শুরু হয়েছিল। যখন পশ্চিমা দেশগুলোতে হুয়াওয়ের ওপর চাপ বৃদ্ধি করা হচ্ছে তখন এমন আয়োজন অনেকটাই সাহসী পদক্ষেপ হুয়াওয়ের জন্য। হুয়াওয়ের আয়োজন করা ওই ‘বেটার ওয়ার্ল্ড সামিট’ আয়োজনের অন্যতম উদ্দেশ্য কিভাবে বৈশ্বিক অর্থনীতি এই করোনাকালে চাঙ্গা করা যায়। অন্য দিকে এইচএসবিসি হুয়াওয়ের বিরুদ্ধে একটি মামলায় আমেরিকার সাথে সহযোগিতা রক্ষার একটি বিবৃতি জারি করেছে। এর আগে চীনের রাষ্ট্রীয় মাধ্যমে লন্ডনের প্রধান কার্যালয়ের ব্যাংকটিকে হুয়াওয়েকে ফাঁসানোর অভিযোগ তুলেছিল। বিশ্বের বৃহত্তম মোবাইল নেটওয়ার্ক সরঞ্জাম প্রস্তুতকারক কোম্পানিটি জানিয়েছে, তারা এই সম্মেলনে বিশ্বের নামকরা সব প্রযুক্তিবিদ এবং টেলিকম খাতের লোকজনকে সংযোগ স্থাপনের কাজটি করেছে। দক্ষ বক্তা, বিশেষজ্ঞসহ সম্মেলনটিতে বক্ত হিসেবে হুয়াওয়ের ডেপুটি চেয়ারম্যান জিও পিং, দক্ষিণ আফ্রিকার টেলিকম মন্ত্রী স্টেলা এনদাবেনী-আব্রাহামস অংশ নেবেন। মূলত হুয়াওয়ে এই আয়োজনের পেছনের কারণটি, পশ্চিমা দেশগুলোতে হুয়াওয়ের বিরুদ্ধে যে চাপ বাড়ছে সেটিকে কৌশলে মোকাবেলা করার একটা পথ তৈরি করা। এদিকে গত শুক্রবার চীনের পিপলস মিডিয়া এক নিবন্ধে বলেছে, হুয়াওয়েকে ‘ফ্রেমবন্দী’ করতে এবং হুয়াওয়ের ফিন্যান্স চিফ মেঙ ওয়াংজুকে গ্রেফতারে ভূমিকা রেখেছিল।পরের দিন উইচ্যাটে এক বিবৃতিতে হুয়াওয়ে জানিয়েছে, এইচএসবিসি এবং ওয়াশিংটন এতে জড়িত ছিল না। এইচএসবিসি হুয়াওয়ের ফিন্যান্স চিফকে গ্রেফতারে কোনো ভূমিকা রাখেনি বলে বিবৃতিতে বলেছে। ইতোমধ্যে হুয়াওয়ের নেটওয়ার্ক কিট বর্জন করার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড। অস্ট্রেলিয়াও হুয়াওয়ের প্রযুক্তি সরবরাহে দেশটিকে বাধা দিয়েছে। বলা যায় একটা বৈশ্বিক চাপ অব্যাহত রয়েছে হুয়াওয়ের ওপর। সব মিলিয়ে অনেকটাই চাপে হুয়াওয়ে।
অন্য দিকে ভারতে এ বছরের পূর্বনির্ধারিত আয়ের লক্ষ্য অর্ধেকে নামিয়ে আনছে চীনা টেলিকম প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে। এ ছাড়াও দেশটিতে নিজেদের অর্ধেকেরও বেশি কর্মীও ছাঁটাইয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। এর আগে নিজেদের বার্ষিক আয়ের লক্ষ্য ৭০ কোটি ডলার থেকে ৮০ কোটি ডলার নির্ধারণ করেছিল হুয়াওয়ে। গত সোমবার সেটা কমিয়ে এবার ৩৫ কোটি থেকে ৫০ কোটি নির্ধারণ করেছে চীনা এ টেক জায়ান্ট।
নিজেদের ৬০ থেকে ৭০ শতাংশ ভারতীয় কর্মীও ছাঁটাই করবে হুয়াওয়ে। তবে, গবেষণা ও উন্নয়ন এবং বৈশ্বিক সেবা কেন্দ্রের কর্মীরা ছাঁটাইয়ের হাত থেকে রেহাই পাবেন। এমন একটি সময়ে হুয়াওয়ে এ সিদ্ধান্ত জানিয়েছে যখন ভারতে চলছে চীনা পণ্য বয়কট। চীন ভারত সীমান্ত অস্থিরতা ও ২০ জন ভারতীয় সৈনিককে হত্যা প্রশ্নে বর্তমানে কঠোর অবস্থানে রয়েছে ভারত।
নিরাপত্তার প্রশ্নেই চলতি সপ্তাহের শুরুতে মার্কিন সাইবার এবং আন্তর্জাতিক যোগাযোগ এবং তথ্য নীতিমালা বিভাগের ডেপুটি অ্যাসিস্টেন্ট সেক্রেটারি রবার্ট স্ট্রেইয়ার বলেছেন, এলজিসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠান যারা হুয়াওয়ের যন্ত্রাংশ ব্যবহার করছে তাদের অন্য কোনো ‘বিশ্বাসযোগ্য প্রতিষ্ঠানের’ যন্ত্রাংশের দিকে যাওয়া উচিত।
৫জি নেটওয়ার্কের যন্ত্রাংশ সরবরাহকারী হিসেবে শীর্ষে রয়েছে হুয়াওয়ে। অনেক দিন ধরেই যুক্তরাষ্ট্র দাবি করছে, প্রতিষ্ঠানের যন্ত্রাংশের মাধ্যমে হুয়াওয়ের হাত দিয়ে সাইবার গুপ্তচরবৃত্তি চালাতে পারে চীন। আর এমন দাবি বরাবরই নাকচ করে আসছে হুয়াওয়ে।
চার মাস পরেই সারাবিশ্বে মোট ১৫ লাখ ফাইভজি বেজ স্টেশন হবে তৈরি হয়ে যাবে। এখন পর্যন্ত ৮১টি টেলিকম ক্যারিয়ার প্রতিষ্ঠান সাত লাখেরও বেশি ফাইভজি নেটওয়ার্ক চালু করেছে এবং এর আওতায় আছে নয় কোটির বেশি ফাইভজি ব্যবহারকারী। যেসব দেশে ফাইভজি সুবিধা রয়েছে বিশ্ব জিডিপিতে (মোট দেশজ উৎপাদন) তাদের অবদান ৭২ শতাংশ। হুয়াওয়ে আয়োজিত ‘বেটার ওয়ার্ল্ড সামিট ২০২০’-এ প্রতিষ্ঠানটির রোটেটিং চেয়ারম্যান গুয়ো পিং তার এই প্রত্যাশা এবং তথ্য দিয়েছেন।


আরো সংবাদ

নতুন বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র সামনে আনলো ইরান (১৮৬৭০)ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ : সেই রাতের ঘটনা আদালতকে জানালেন ভুক্তভোগী গৃহবধূ (১১২২১)ক্রিকেট ছেড়ে সাকিব এখন পাইকারি আড়তদার! (১০৩৭২)নর্দমা পরিষ্কার করতে গিয়ে ধরা পড়ল দৈত্যাকার ইঁদুর! (ভিডিও) (৮০৯৮)করোনার দ্বিতীয় ঢেউ : বাড়বে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি (৭৮৮১)আজারবাইজানের পাশে দাঁড়ালেন এরদোগান, আর্মেনিয়াকে হুমকি (৭০৭০)যে কারণে আবারো ভয়াবহ যুদ্ধে জড়ালো আর্মেনিয়া-আজারবাইজান (৬১১৬)ড. কামাল ও আসিফ নজরুল ঢাবি এলাকায় অবা‌ঞ্ছিত : সন‌জিত (৫৫৪১)সিসিবিরোধী অব্যাহত বিক্ষোভে উত্তাল মিসর (৫৪৫৪)এবার মথুরা! ঈদগাহ মসজিদ সরিয়ে জমি ফেরানোর দাবিতে আদালতে ‘‌ভগবান শ্রীকৃষ্ণ’‌ (৫২৭২)