০৪ আগস্ট ২০২০

করোনাভাইরাস মোকাবেলায় গুগল অ্যাপলের জোট

করোনাভাইরাস মোকাবেলায় গুগল অ্যাপলের জোট -
24tkt

গুগল ও অ্যাপলের যৌথ উদ্যোগে উন্নয়নকৃত এ ট্র্যাকিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস উভয় প্লাটফর্মে কাজ করবে। এর মাধ্যমে কোভিড-১৯ আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিকে শনাক্ত করা যাবে। সিস্টেমটি মে মাস নাগাদ উন্মোচন করা হতে পারে। লিখেছেন সুমনা শারমিন
গুগল ও অ্যাপল যৌথভাবে নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমিত হয়ে সৃষ্ট রোগ কোভিড-১৯ মোকাবেলায় একটি ট্র্যাকিং সিস্টেম উন্নয়ন করছে। এর মাধ্যমে ব্লুটুথ প্রযুক্তির সহায়তায় করোনাভাইরাস সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার তথ্য ট্র্যাক করা যাবে। বৃহৎ দুই প্রযুক্তি জায়ান্ট বিভিন্ন দেশের সরকার ও স্বাস্থ্যসেবা সংস্থাগুলোকে সহায়তা করতে এ সিস্টেম উন্নয়ন করছে। গুগল ও অ্যাপলের যৌথ উদ্যোগে উন্নয়নকৃত এ ট্র্যাকিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস উভয় প্লাটফর্মে কাজ করবে। এর মাধ্যমে কোভিড-১৯ আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিকে শনাক্ত করা যাবে। সিস্টেমটি মে মাস নাগাদ উন্মোচন করা হতে পারে।
এক যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়েছে, উভয় প্রতিষ্ঠান একটি সমঝোতায় পৌঁছেছে। এর ফলে তৃতীয় পক্ষের কোনো অ্যাপ ডেভেলপার সংশ্লিষ্ট অ্যাপ উন্নয়ন করতে চাইলে অ্যান্ড্রয়েড ও আইফোনের প্রয়োজনীয় তথ্য তাদের সাথে বিনিময় করা হবে। ট্র্যাকিং সিস্টেমের মাধ্যমে পুরো বিষয়টি মনিটর করা হবে ফোনের ব্লুটুথ প্রযুক্তি ব্যবহার করে। এতে যেসব গ্রাহক স্বেচ্ছায় অংশ নেবেন শুধু তাদের ডাটাই ব্যবহার করা হবে। এতে ব্যবহারকারীর পরিচয় গোপন রাখা হবে বলে একমত হয়েছে উভয় প্রতিষ্ঠান।
ব্লুটুথ প্রযুক্তির মাধ্যমে কোভিড-১৯ আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্তের বিষয়টি কোয়ারেন্টিনে থাকা বা সংক্রমণের শিকার হওয়া স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর তথ্য শেয়ার করার ওপর নির্ভর করবে। উদ্যোগটি সফল হলে বিশ্বের কোটি কোটি স্মার্টফোন ব্যবহারকারী এর আওতায় আসবে। গুগল ও অ্যাপল দুই সপ্তাহ ধরে বিষয়টি নিয়ে কাজ করলেও গত শুক্রবারের আগে কোনো প্রতিষ্ঠানই এ নিয়ে মুখ খোলেনি। গোপনীয়তা, স্বচ্ছতা ও সম্মতি হলো এ উদ্যোগের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। সংশ্লিষ্ট সবার মতামতের ভিত্তিতে এ কৌশল কাজ করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছে দুই প্রতিষ্ঠান। ব্লুটুথ প্রযুক্তির সহায়তায় কোভিড-১৯ আক্রান্ত শনাক্তের জন্য ফোনের যেসব তথ্যের পারস্পরিক আদান-প্রদান প্রয়োজন ব্যবসায় কৌশলের অংশ হিসেবে এতদিন তা বন্ধ রাখা হয়েছিল।
এ প্রক্রিয়ায় কোনো জিপিএস বা অবস্থাগত ডাটা বা ফোন ব্যবহারকারীকে শনাক্ত করা যায় এমন কোনো তথ্য ব্যবহার করা হবে না। আগামী মাসে এ বিষয়ে অ্যাপ নির্মাণের জন্য প্রয়োজনীয় প্যাকেজ, যা এপিআই নামে পরিচিত তা উন্মুক্ত করবে গুগল ও অ্যাপল।
বৈশ্বিক স্মার্টফোন বাজারের গুগলের অ্যান্ড্রয়েড ও অ্যাপলের আইওএস অপারেটিং সিস্টেমের দ্বৈত আধিপত্য বিরাজ করছে। এমন একটি উদ্যোগে দুই প্রতিষ্ঠানের একজোট হওয়া খুবই জরুরি ছিল। বিশেষ কোনো কারণে গুগল ও অ্যাপলের জোটবদ্ধ হয়ে কাজ করার এমন নজির খুবই কম।


আরো সংবাদ

হিজবুল্লাহর জালে আটকা পড়েছে ইসরাইল! (১৪২০০)হামলায় মার্কিন রণতরীর ডামি ধ্বংস না হওয়ার কারণ জানালো ইরান (১০৯৪৫)ভারতের যেকোনো অপকর্মের কঠিন জবাব দেয়ার হুমকি দিলো পাকিস্তান (৭৮৮৭)সাবেক সেনা কর্মকর্তাকে গুলি করে হত্যা : পুলিশের ২১ সদস্য প্রত্যাহার (৬৫২১)নেপালের সমর্থনে এবার লিপুলেখ পাসে সৈন্য বৃদ্ধি চীনের (৫৮৪৫)আমিরাতের পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নিয়ে কেন সন্দিহান ইরান-কাতার? (৫৪৭৪)চামড়ার দাম বিপর্যয়ের নেপথ্যে (৪৭৯৯)তল্লাশি চৌকিতে সেনা কর্মকর্তার মৃত্যু দেশবাসীকে ক্ষুব্ধ করেছে: মির্জা ফখরুল (৪৭০২)‘অন্যায় সমর্থন না করায় আমাকে দুইবার মৃত্যুদণ্ড দিয়েছিল জয়নাল হাজারী’ (৪২৪৬)বিশ্বের সর্বকনিষ্ঠ প্রধানমন্ত্রী বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলেন (৪০৮৬)