২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ন ১৪২৯, ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

পঞ্চম শ্রেণীর প্রস্তুতি : বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয়- পর্বসংখ্যা-৭৯

চতুর্থ অধ্যায় : আমাদের অর্থনীতি : কৃষি ও শিল্প
-

প্রিয় পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থী বন্ধুরা, শুভেচ্ছা নিয়ো। আজ তোমাদের বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় বিষয়ের ‘চতুর্থ অধ্যায় : বাংলাদেশের অর্থনীতি : কৃষি ও শিল্প’ থেকে ১০টি সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন ও উত্তর নিয়ে আলোচনা করা হলো।

সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন ও উত্তর
প্রশ্ন : পাটকে সোনালি আঁশ বলা হয় কেন?
উত্তর : বাংলাদেশের অন্যতম অর্থকরী ফসল পাট। পাট ও পাটজাত দ্রব্য রফতানি করে প্রতি বছর বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করে বাংলাদেশ। এ কারণে পাটকে সোনালি আঁশ বলা হয়।
প্রশ্ন : বাংলাদেশে কয় ধরনের ধান উৎপন্ন হয়?
উত্তর : বাংলাদেশে তিন ধরনের ধান উৎপন্ন হয়। যেমন- আউশ, আমন, বোরো।
প্রশ্ন : বাংলাদেশে কী কী ধরনের ডাল উৎপন্ন হয়?
উত্তর : বাংলাদেশে বিভিন্ন ধরনের ডাল উৎপন্ন হয়। যেমন- ছোলা, মসুর, মুগ, কলাই, খেসারি, অড়হর ইত্যাদি।
প্রশ্ন : বাংলাদেশে গম আমদানি করতে হয় কেন?
উত্তর : বাংলাদেশে প্রতি বছর প্রায় ১০ লক্ষ মেট্রিক টন গম উৎপন্ন হয়। কিন্তু চাহিদা প্রায় ১৫ লক্ষ মেট্রিক টন। তাই দেশের চাহিদা পূরণের জন্য প্রতি বছর ৫ লক্ষ মেট্রিক টন গম বিদেশ থেকে আমদানি করতে হয়।
প্রশ্ন : কোন ধরনের মাটি আলু চাষের জন্য উপযোগী?
উত্তর : দো-আঁশ ও বেলে দো-আঁশ মাটি আলু চাষের জন্য উপযোগী।
প্রশ্ন : আমাদের দেশের পাঁচটি শস্যের নাম লিখ।
উত্তর : ধান, গম, ডাল, আলু, তেলবীজ আমাদের দেশের প্রধান শস্য।
প্রশ্ন : বাংলাদেশের তিনটি বৃহৎ শিল্পের নাম লিখ।
উত্তর : বাংলাদেশের তিনটি বৃহৎ শিল্প হচ্ছে- পাট শিল্প, বস্ত্র শিল্প, চিনি শিল্প।
প্রশ্ন : বাংলাদেশের প্রধান প্রধান কৃষিজাত দ্রব্যের নাম লিখ।
উত্তর : বাংলাদেশের প্রধান প্রধান কৃষিজাত দ্রব্যের নাম হলো- ধান, গম, আলু, ডাল, ভুট্টা, তৈলবীজ, মসলা, পাট, চা, তামাক ইত্যাদি।
প্রশ্ন : বর্তমানে বাংলাদেশে উৎপাদিত ধান থেকে প্রতি বছর কত মেট্রিক টন চাল পাওয়া যায়?
উত্তর : বর্তমানে বাংলাদেশে উৎপাদিত ধান থেকে প্রতি বছর প্রায় ৩ কোটি ৪০ লক্ষ মেট্রিক টন চাল পাওয়া যায়।
প্রশ্ন : বাংলাদেশে প্রতি বছর প্রায় কত মেট্রিক টন আলু উৎপন্ন হয়?
উত্তর :বাংলাদেশে প্রতি বছর প্রায় ৪০ লক্ষ মেট্রিক টন বিভিন্ন ধরনের আলু উৎপন্ন হয়।


আরো সংবাদ


premium cement