১১ আগস্ট ২০২২
`

অষ্টম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতি : বিজ্ঞান

দ্বিতীয় অধ্যায় : জীবের বৃদ্ধি ও বংশগতি
-


সুপ্রিয় অষ্টম শ্রেণীর শিক্ষার্থী বন্ধুরা, শুভেচ্ছা নিয়ো। আজ তোমাদের বিজ্ঞান বিষয়ের ‘দ্বিতীয় অধ্যায় : জীবের বৃদ্ধি ও বংশগতি’ থেকে একটি নমুনা সৃজনশীল প্রশ্ন ও তার উত্তর নিয়ে আলোচনা করব।
নিচের চিত্রটি লক্ষ করে প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।
ক. মাইটোসিস কাকে বলে? ১
খ. ক্যারিওকাইনেসিস এবং সাইটোকাইনেসিসের ব্যাখ্যা দাও। ২
গ. উদ্দীপকে কোষ বিভাজনের যে পর্যায়টি দেখানো হয়েছে তা বর্ণনা করো। ৩
ঘ. ‘B’ চিহ্নিত অংশটি বংশগতির ধারক ও বাহক- কথাটি বিশ্লেষণ করো। ৪
উত্তর : ক. যে প্রক্রিয়ায় মাতৃকোষের নিউক্লিয়াস একবার বিভাজিত হয়ে সম-আকৃতির, সমগুণসম্পন্ন ও সমসংখ্যক ক্রোমোজোম বিশিষ্ট দু’টি অপত্য কোষের সৃষ্টি করে তাকে মাইটোসিস বলে।
খ. নিউক্লিয়াসের বিভাজনকে ক্যারিওকাইনেসিস বলে। সাইটোপ্লাজমের বিভাজনকে সাইটোকাইনেসিস বলে।
গ. উদ্দীপকে কোষ বিভাজনের পর্যায়টি হলো-
মাইটোসিসের মেটাফেজ পর্যায়। এর বর্ণনা নিম্নরূপ :
১। এ ধাপে ক্রোমোজোমগুলো স্পিন্ডল যন্ত্রের বিষুবীয় অঞ্চলে আসে এবং সেন্ট্রোমিয়ারের সাথে তন্তু দিয়ে আটকে থাকে।
২। এ ধাপে ক্রোমোজোমগুলো সবচেয়ে খাটো ও মোটা দেখায়।
ঘ. উদ্দীপকে প্রদর্শিত চিত্রের ই চিহ্নিত অংশটি হলো ক্রোমোজোম। আর ক্রোমোজোম বংশগতির ধারক ও বাহক। তাই বংশপরম্পরায় জীবের বৈশিষ্ট্য ধারণ করে, বহন করে ও স্থানান্তর করে। বিভক্তির মাধ্যমে ক্রোমোজোম কোষ বিভাজনে প্রত্যক্ষ ভূমিকা পালন করে। জিন অণু ধারণ করে।

 


আরো সংবাদ


premium cement